বৃহস্পতিবার, ১৯শে মে, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ ৫ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

স্মরণকালের সর্বোচ্চ ঘাটতি বাজেট

news-image

২০১৫-১৬ অর্থবছরের জন্য অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত যে বাজেট ঘোষণা করবেন তাতে যে পরিমাণে ঘাটতি রাখা হয়েছে, তা স্মরণকালের মধ্যে সবচেয়ে বেশি। একই সঙ্গে ঘাটতি বাড়ার হার ও পরিমাণ দুটিই আগের যে কোনো সময়ের তুলনায় সর্বোচ্চ। ঘাটতির একটি বড় অংশই নেয়া হবে ঋণ করে। যে কারণে নতুন বাজেটকে অনেকে ঋণ নির্ভর বাজেটও বলছেন। তবে বাজেটের আকার বাড়ানোর ক্ষেত্রে গতানুগতিক ধারা বজায় রাখা হয়েছে।
সূত্র জানায়, আগামী অর্থবছরে বাজেটে ঘাটতি ধরা হয়েছে ৮৬ হাজার ৬৫৭ কোটি। চলতি অর্থবছরের বাজেটে ঘাটতি ধরা হয়েছে ৬১ হাজার ৩৪৬ কোটি টাকা। এক বছরের ব্যবধানে বাজেট ঘাটতি বেড়েছে ২৫ হাজার ৩১১ কোটি টাকা। ঘাটতি বাড়ার হার ৪১ দশমিক ২৬ শতাংশ। আগে কখনোই এত বেশি হারে বাজেট ঘাটতি বাড়েনি। ঘাটতির পরিমাণ অস্বাভাবিক মাত্রায় বাড়ানো হলেও বাজেটের আকার বাড়ানো হয়েছে স্বাভাবিক গতিতে। চলতি অর্থবছরের তুলনায় আগামী অর্থবছরের বাজেটের আকার বাড়ছে ৪৪ হাজার ৫৯৪ কোটি টাকা বা ১৭ দশমিক ৮০ শতাংশ। মোট দেশজ উৎপাদনের (জিডিপি) আকার বাড়ার কারণে বেড়েছে বাজেটের আকার। এ কারণে বেড়েছে বাজেট ঘাটতির পরিমাণ। জিডিপির হিসাবে বাজেট ঘাটতির হার ৫ শতাংশের মধ্যেই রাখা হয়েছে। অন্যান্য সময়েও জিডিপির হিসাবে বাজেট ঘাটতি ৪ থেকে ৫ শতাংশের মধ্যে সীমাবদ্ধ রাখা হয়েছিল। ফলে সংখ্যা বা পরিমাণে ঘাটতির পরিমাণ বাড়লেও সার্বিক অর্থ ব্যবস্তার ওপর এর কোনো নেতিবাচক প্রভাব পড়বে না। এদিকে ব্যবসায়ীরা বলেছেন, সরকার বাজেট ঘাটতি পূরণে বেশি মাত্রায় ঋণ নিলে বেসরকারি খাত ঋণ পাওয়া থেকে বঞ্চিত হবে। সরকার বেশি ঋণ নেয়ার কারণে ঋণের সুদের হার কমছে না। ফলে সরকারের মাত্রাতিরিক্ত ঋণের কারণে ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে বেসরকারি খাত। ২০১০-১১ অর্থবছরের তুলনায় ২০১১-১২ অর্থবছরে বাজেটের আকার বেড়েছে ৩১ হাজার ৪১৯ কোটি টাকা বা ২৩ দশমিক ৭৭ শতাংশ। ওই অর্থবছরে ঘাটতির পরিমাণ বেড়েছিল ১১ হাজার ৩৩৮ কোটি টাকা বা ৩৭ দশমিক ৭৬ শতাংশ। ২০১১-১২ অর্থবছরের তুলনায় ২০১২-১৩ অর্থবছরে বাজেটের আকার বেড়েছিল ২৮ হাজার ১৪৯ কোটি টাকা বা ১৭ দশমিক ২১ শতাংশ। ঘাটতি বেড়েছিল ৫ হাজার ৭৫৩ কোটি টাকা বা ১৪ দশমিক ২০ শতাংশ। ২০১২-১৩ অর্থবছরের তুলনায় ২০১৩-১৪ অর্থবছরে বাজেটের আকার বেড়েছিল ৩০ হাজার ৭৫৩ কোটি টাকা বা ১৬ দশমিক ০৪ শতাংশ। একই সময়ে ঘাটতির পরিমাণ বেড়েছিল ২ হাজার ৩৩৮ কোটি টাকা বা ৫ দশমিক ৮০ শতাংশ। ২০১৩-১৪ অর্থবছরের তুলনায় ২০১৪-১৫ অর্থবছরে বাজেটের আকার বেড়েছিল ২৮ হাজার ১৫ কোটি টাকা বা ১২ দশমিক ৫৯ শতাংশ। বাজেট ঘাটতি বেড়েছিল ১২ হাজার ৯৮৪ কোটি টাকা বা ২৬ দশমক ৮৫ শতাংশ। ২০১৪-১৫ অর্থবছরের তুলনায় ২০১৫-১৬ অর্থবছরে বাজেটের আকার বাড়ছে ৪৪ হাজার ৫৯৪ কোটি টাকা বা ১৭ দশমিক ৮০ শতাংশ। বাজেট ঘাটতি বাড়ছে ২৫ হাজার ৩১১ কোটি টাকা বা ৪১ দশমিক ২৬ শতাংশ।

এ জাতীয় আরও খবর

হজযাত্রী নিবন্ধনের সময় বাড়লো

খালেদাকে পদ্মা সেতুতে তুলে নদীতে ফেলে দেওয়া উচিত: প্রধানমন্ত্রী

বিয়ের প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করায় হত্যা, চারজনের যাবজ্জীবন

সিলেটে বন্যার্তদের পাশে পররাষ্ট্রমন্ত্রী

ক্লাসরুমে ফ্যান খুলে পড়ে চার ছাত্রী আহত

ঘরে বসে খুব সহজেই করে ফেলুন পার্লারের মতো হেয়ার স্পা

সামরিক সহায়তা চাইলো মিয়ানমারের ছায়া সরকার

হত্যা মামলায় তিন ভাইসহ চারজনের যাবজ্জীবন

এমপির গাড়িবহরে ট্রাকচাপায় লাশ হলেন ছাত্রলীগ নেতা

কান উৎসবে বঙ্গবন্ধুর বায়োপিকের ট্রেইলার, ফ্রান্সের পথে তথ্যমন্ত্রী

শ্রমিকের তীব্র সঙ্কট, বৃষ্টিতে তলিয়ে যাচ্ছে ধান

পল্লবীর অনুপস্থিতিতে ফ্ল্যাটে কে আসতেন, মুখ খুললেন পরিচারিকা