সোমবার, ১৬ই মে, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ ২রা জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

৪ বছর আগেই জানা যাবে ক্যান্সার

news-image

ডেস্ক রিপোর্ট : মরণঘাতী রোগ ক্যান্সার। এটি শরীরে বাসা বাঁধতে পারে যেকোনো সময়। বেশির ভাগ ক্ষেত্রে ক্যান্সার দেহে ছড়িয়ে পড়ার পরই তা ধরা পড়ে। ফলে মৃত্যুই হয়ে উঠে নিয়তি।

সে দিন ফুরাল বলে! এখন থেকে আগেই জানা যাবে সংক্রমণ হবে কিনা। সেটিও আবার ৪ বছর আগে। হ্যাঁ, এমনি সুসংবাদ দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্রের হাভার্ড ও নর্থ ওয়েস্টার্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের বিজ্ঞানীরা। তাদের আবিষ্কৃত শনাক্তকরণ পদ্ধতির তথ্য দিয়েছে চিকিৎসা সাময়িকী ইবায়োমেডিসিন।

গবেষক দলের প্রধান অধ্যাপক লিফাং হাউ বলেন, প্রতিটি ক্রোমোজোমের শেষ প্রান্তে টুপির মতো অংশ রয়েছে। সেটি ডিএনএকে সুরক্ষিত রাখে। বিশেষ এ টুপিটিকে বলা হয় টেলোমিয়ার। বয়সের সঙ্গে সঙ্গে নির্দিষ্ট হারে হ্রাস-বৃদ্ধি ঘটে থাকে। লিফাং বলেন, জন্মের সময় একজন মানুষের টেলোমিয়ারের যে আকার থাকে মধ্য বয়সে তা অর্ধেকে নামে, কিন্তু শেষ বয়সে এসে তা আগের অবস্থায় ফিরে আসে। কিন্তু ক্যান্সারের কোনো জীবাণু যদি আক্রমণ করে, তবে স্বাভাবিক হ্রাস-বৃদ্ধি বন্ধ হয়ে টেলোমিয়ার জরাজীর্ণ চেহারা নেয়। আর আক্রান্ত হওয়ার তিন থেকে চার বছর আগে সেটি আর সংকুচিত কিংবা বর্ধিত কোনোটিই হয় না। ১৩ বছরে ৭৯২ জন নারী-পুরুষের ওপর গবেষণা করে এ তথ্য পেয়েছেন তারা। এর মধ্যে ১৩৫ জনের টেলোমিয়ার এ অবস্থায় আসার পর দেখা গেছে, তারা প্রত্যেকেই কোনো না কোনো ক্যান্সারে আক্রান্ত হয়েছেন। কিন্তু আগাম জানা থাকায় প্রায় সবাইকেই সুস্থ করে তোলা সম্ভব হয়েছে। যুগান্তর