শনিবার, ২১শে মে, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ ৭ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

আশুগঞ্জ বিদ্যুৎ কেন্দ্রের প্রকল্প পরিচালক আবদুস সামাদের কাছে অনিয়মই নিয়ম

news-image

নিজস্ব প্রতিবেদক : ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আশুগঞ্জ বিদ্যুৎ কেন্দ্রের অধীনে নির্মিত টিএসকে সাউথ ৪৫০ মেগাওয়াট প্রকল্পের পরিচালক প্রকৌশলি আবদুস সামাদের বিরুদ্ধে নানা অনিয়ম ও দুর্নীতির অভিযোগ উঠেছে।
এক সময় জামায়াত ইসলামের রাজনীতির সঙ্গে সরাসরি জড়িত ছিলেন প্রকৌশলি আবদুস সামাদ। তবে সদ্য বিদায়ী ব্যবস্থাপনা পরিচালক প্রকৌশলি নুরুল আলমের ঘনিষ্ঠজন এবং একই জেলা কুষ্টিয়ার বাসিন্দা হওয়ায় আবদুস সামাদ প্রকল্প পরিচালক হিসোবে নিয়োগ পান। তিনি নিয়োগ পাওয়ার পর থেকেই নানা দুর্নীতি ও অনিয়মের সাথে জড়িয়ে পড়েন। বর্তমানে তিনি শত কোটি টাকার মালিক হয়ে গেছেন। রাজধানী ঢাকা ও তার নিজ জেলা কুষ্টিয়ায় পরিবারের নামে অভিজাত এলকায় ফ্লাট বাড়ি ও গাড়িরও মালিক হয়েছেন।
সূত্রে জানা যায়, গত বছর আশুগঞ্জ বিদ্যুৎ কেন্দ্রে অধীনে নির্মিত টিএসকে সাউথ ৪৫০ মেগাওয়াট প্রকল্পের মালামাল রাতে পাচারকালে স্থানীয় বাসিন্দারা মালামাল বহনকারী ট্্রাকসহ ৭ জনকে আটক পুলিশে সোপর্দ করে। এরপর তাদেরকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়। এ ঘটনায় পুরো বিদ্যুৎ কেন্দ্র জুড়ে তোলপাড় সৃষ্টি হলে ঘটনা তদন্তে কমিটি গঠন করা হয়। তবে গঠিত সেই তদন্ত কমিটি এখনো পর্যন্ত তদন্ত প্রতিবেদন জমা দেয়নি।
অভিযোগ রয়েছে, মালামাল পাচারের সাথে অভিযুক্তদের রক্ষা করতে মরিয়া ছিলেন প্রকল্প পরিচালক আবদুস সামাদ। এমনকি পুলিশের কাছ থেকে অভিযুক্তদের ছাড়িয়ে আনতে থানায়ও যান তিনি। তবে সেখানে গণমাধ্যম কর্মীদের প্রবেশ করতে দেওয়া হয়নি। কারগারে থাকা আসামিরা বর্তমানে জামিনে মুক্ত থাকলেও ঘটনার মূল হোতারা এখনো রয়েছেন ধরা-ছোয়ার বাইরে। এর ফলে আজও তাদের বিরুদ্ধে কোন শাস্তিমূলক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়নি।
এছাড়া প্রকল্প পরিচালক আবদুস সামাদের বিরুদ্ধে টাকার বিনিময়ে অযোগ্য লোক ও প্রতিষ্ঠানকে কাজ পাইয়ে দেওয়ারও অভিযোগ রয়েছে। আর এই ক্ষেত্রে তিনি বিএনপি-জামায়াতপন্থী ঠিকাদারদেরকেই অগ্রধাকিার দিয়েছেন বলেও অভিযোগ পাওয়া গেছে। তবে সরকার দলীয় ঠিকাদারদের কাজ দিলে কমিশন পান না বলেই তিনি বিএনপি-জামায়াতপন্থী ঠিকাদারদের কাজ পাইয়ে দেন বলে এক ঠিকার অভিযোগ করেছেন। এ নিয়ে প্রকল্পের কাজে একাধিক সমস্যাও সৃষ্টি হয়েছে।
এদিকে নির্ভরযোগ্য আরেকটি সূত্র জানিয়েছে, আশুগঞ্জ বিদ্যুৎ কেন্দ্রের প্রভাবশালী বিএনপিপন্থী সিবিএ নেতা এনামুল হকের পরার্মশে আবদুস সামাদ প্রকল্পের কাজকর্ম করে থাকেন।
তবে এসব অনিময় ও দুর্নীতির ব্যাপারে জানতে চেয়ে প্রকল্প পরিচালক আবদুস সামাদের মুঠোফোনে একাধিকবার ফোন করলেও তিনি ফোন রিসিভ না করে সংযোগ বিচ্ছিন্ন করে দেন।

 

 

এ জাতীয় আরও খবর