বৃহস্পতিবার, ১৯শে মে, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ ৫ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

জাপানি সন্ন্যাসীদের মৃত্যুকবিতা

news-image

ডেস্ক রির্পোট : জাপানি সন্ন্যাসী কবি যেন মাস্টার বাসুই তোকুশো (Bassui Tokusho) কানাগাওয়া অঞ্চলে ১৩২৭ সালে জন্মগ্রহণ করেন। একত্রিশ বছর বয়সে তিনি এক ছোট্ট স্রোতস্বিনীর শব্দ শ্রবণ করে আলোকপ্রাপ্ত হন। তারপর তিনি পর্বতের কুঁড়েঘরে বসবাস শুরু করেন। তিনি সেখানেই তার অনুসারীদের যেন আদর্শ শিক্ষা দিতেন এবং এক ফোঁটা মদ্যপানও ভয়াবহ, তা না করার জন্য উপদেশ দিতেন।  তিনি স্বীয় প্রতিকৃতির কিনারায় লিখেছিলেন ‘আমি নীরবতার স্বর থেকে শিখি’। ১৩৮৭ সালে একষট্টি বছর বয়সে মারা যাওয়ার অব্যবহিত পূর্বে তিনি নির্জন পর্বত থেকে জনসমাগমে চলে আসেন এবং জনপরিবেষ্টিত অবস্থায় নিম্নের কবিতাটি উচ্চস্বরে আবৃত্তি করতে করতে মৃত্যুবরণ করেন।

সোজা সামনে তাকাও। কী আছে ওখানে?
যদি তুমি তা হুবহু দেখে থাকো
কখনো ভুল করবে না তুমি।

ইনি বেনেন

জাপানি যেন সন্ন্যাসী কবি ইনি বেনেন (Enni Ben’en) ১২০২ সালে জন্মগ্রহণ করেন। তিনি সন্ন্যাসী তেনদাই থেকে যেন শিক্ষালাভ করেন। তিনি একসময় চৈনিক মেডিটেশন শেখার জন্য চীন গিয়েছিলেন এবং ১২৩৫ সালে ফিরে এসে কোয়োতো’তে তোফুকু-জি আশ্রম স্থাপন করেন। এটা ধরে নেয়া হয় যে তিনি ছিলেন Shoichikokushi Kana Hogo পুস্তকের রচয়িতা। ১২৪৩ সালে তাকে Shoichi পদবীতে ভূষিত করা হয়। ১২৮০ সালে উনাশি বছর বয়সে তিনি মারা যান। তিনি গ্রীষ্মকালে অসুস্থ হয়ে পড়েন এবং শিষ্যদের ডেকে তার মৃত্যুর কথা জানান। একদিন তিনি তার শিষ্যদের ডেকে ঢাক-ঢোল বাজাতে বলেন, তিনি চেয়ার বসে নীচের কবিতাটি লিখেন এবং সই ও তারিখ দিয়ে নীচে লিখেন ‘বিদায়’, অতঃপর মারা যান।

সারাজীবন আমি মানুষকে যেন শিক্ষা দিয়েছি—
উনাশি বছর পর্যন্ত
সে যে দেখেনি জিনিসগুলো ঠিক যেমনটি
কখনো জানবে না যেন

ইক্কিয়ু সোজুন

জাপানী সন্ন্যাসী কবি ইক্কিয়ু সোজুন (Ikkyu Sojun) ১৩৯৪ সালে কোয়োতো’তে জন্মগ্রহণ করেন। তার বাবা ছিলেন জাপানি সম্রাটগো-কোমাতস্যু এর পুত্র। মা ছিলেন এক সাধারণ কর্মচারী। জন্মের পর তার মা’কে জোরপূর্বক তাড়িয়ে দিয়ে তাকে ভৃত্যদের দিয়ে কোয়োতো’র রিনযাই যেন উপাসনালয়ে লালনপালন করা হয়। সেখানে তিনি চৈনিক সংস্কৃতি, কাব্য, যেন আদর্শের শিক্ষালাভ করেন। চৈনিক যেন মাস্টার কিদো চিগু (Kido Chigu)-কে তিনি ঐশী পিতা বিবেচনা করতেন। তিনি তের বছর বয়সে অন্য এক যেন সন্ন্যাসী বোতেতস্যু এর নিকট শিক্ষালাভ করেন। ১৪১০ সালে তিনি অন্য আরেকটি উপাসনালয়ে চলে যান। অতঃপর তিনি আবার যেন সন্ন্যাসী পরিবর্তন করেন। ১৪২০ সালে তিনি মেডিটেশনে আলোকপ্রাপ্ত হন। পরবর্তীতে তিনি প্রচুর মদ্যপান করতে থাকেন এবং উপাসনালয় ছেড়ে দিয়ে ভবঘুরে জীবনযাপন শুরু করেন। ১৪৮১ সালে তিনি সাতাশি বছর বয়সে মারা যান। তিনি মৃত্যু নিয়েই মূলত কবিতা লিখতেন যার মধ্যে নিম্নোক্তটি উল্লেখযোগ্যঃ

সমগ্র সম্রাজ্যের দক্ষিণাংশে
পৃথিবীর কেন্দ্র হতে
কোথায় সে যে আমার যেন-কে বুঝতে পারে?
মাস্টার কিদো’র কী স্বয়ং আবির্ভূত হওয়া উচিত হবে
তিনিও হবেন না মূল্যবান ক্ষয়প্রাপ্ত পয়সার মতো।

সেনগাই গিবোন

জাপানের যেন সন্ন্যাসী সেনগাই গিবোন (Sengai Gibon) ১৮৩৭ সালে অষ্টাশি বছর বয়সে মারা যান। জাপানি যেন সন্ন্যাসীদের মধ্যে তিনি ছিলেন বহুবিধ গুণের অধিকারী। তিনি একাধারে সন্ন্যাসী, কবি, চিত্রকর, আমোদে ছিলেন। তিনি তার মৃত্যুর কবিতা নিম্নোক্তভাবে লিপিবদ্ধ করেছিলেন।

যে আসছে কেবল সে-ই জানে তার আগমণ
আর যে যায় সে জানে কেবল গমণের পর
গভীর ফাটল থেকে রক্ষা পেতে চাওয়া
কেনো খাড়া পাহাড়ে এঁটে থাকা
নীচ দিয়ে মেঘ বয়ে যায়
কখনো জানে না হাওয়া কোথায় তাকে নিয়ে যাবে

তেতস্যুজেন দোকো

জাপানি যেন সন্ন্যাসী মাস্টার তেতস্যুজেন দোকো (Tetsugen Doko)  ১৬৩০ সালে হাইগো বিভাগে জন্মগ্রহণ করেন এবং ১৬৮২ সালে তিপ্পান্ন বছর বয়সে মারা যান। তিনি ছিলেন একজন প্রতিভাধর কবি, চিত্রকর ও ধারাভাষ্যকার। ১৬৮২ সালে জাপানে দুর্ভিক্ষ দেখা দিলে তিনি খাদ্য বিতরণের কাজে নিজেকে নিয়োজিত করেন। গরীব লোকদের খাওয়ানোর জন্য আমাদের মন্দির ও লেখা বিক্রয় করা উচিৎ বলে তিনি মনে করতেন। তার প্রচেষ্টায় প্রায় দশ হাজার লোকের প্রাণ বেঁচে যায়। এ বছরেই তিনি দুর্বল ও রোগাক্রান্ত হয়ে মারা যান। তার শেষকৃত্য অনুষ্ঠানে প্রায় একশত হাজার লোকের সমাগম হয়েছিলো।  মৃত্যুর পূর্বেই তিনি তার নিম্নোক্ত মৃত্যুকবিতাটি লিখে যান।

পরিপূর্ণ বিশাল পরিবর্তন
আমার তিপ্পান্ন বছর বয়সে
আমি পবিত্র আত্মা সম্পর্কে বক্তৃতা দিয়েছি—এক বড়পাপ
আকাশে তার প্রতিধ্বনি বাজে
এখন আমি জলভ্রমণে যাবো প্রস্ফুটিত পদ্মসরোবরে
এবং জলের মধ্যে ভেঙ্গে গুড়ো করবো আকাশ

এ জাতীয় আরও খবর

হজযাত্রী নিবন্ধনের সময় বাড়লো

খালেদাকে পদ্মা সেতুতে তুলে নদীতে ফেলে দেওয়া উচিত: প্রধানমন্ত্রী

বিয়ের প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করায় হত্যা, চারজনের যাবজ্জীবন

সিলেটে বন্যার্তদের পাশে পররাষ্ট্রমন্ত্রী

ক্লাসরুমে ফ্যান খুলে পড়ে চার ছাত্রী আহত

ঘরে বসে খুব সহজেই করে ফেলুন পার্লারের মতো হেয়ার স্পা

সামরিক সহায়তা চাইলো মিয়ানমারের ছায়া সরকার

হত্যা মামলায় তিন ভাইসহ চারজনের যাবজ্জীবন

এমপির গাড়িবহরে ট্রাকচাপায় লাশ হলেন ছাত্রলীগ নেতা

কান উৎসবে বঙ্গবন্ধুর বায়োপিকের ট্রেইলার, ফ্রান্সের পথে তথ্যমন্ত্রী

শ্রমিকের তীব্র সঙ্কট, বৃষ্টিতে তলিয়ে যাচ্ছে ধান

পল্লবীর অনুপস্থিতিতে ফ্ল্যাটে কে আসতেন, মুখ খুললেন পরিচারিকা