রবিবার, ২৬শে জুন, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ ১২ই আষাঢ়, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

যে কারণে রায়েনাকে আউট দিলেন না আম্পায়ার?

masrafi-somoyerkonthosor1-300x178স্পোর্টস ডেস্ক : বলটি ছিল টাইগার সেনাপতির। টাইগরারা দৌড়ে জোট বাধলেন। পরে আসলো রিভিউ। ধারাভাষ্যকররাও রীতিমত আউটের বিষয়টি আগাম বলেই ফেললেন!

৩৪তম ওভারের দ্বিতীয় বল। আগের ম্যাচের সেঞ্চুরিয়ান সুরেশ রায়না তখনো রান পেতে হাঁসফাঁস করছেন। ভারত হারিয়ে ফেলেছে ৩ উইকেট। আর একটা উইকেট ম্যাচের মোড়ই ঘুরিয়ে দিতে পারে।

রায়নার বিপক্ষে এলবিডব্লুর জোরাল আবেদন করলেন মাশরাফি বিন মুর্তজা। আম্পায়ার ইয়ান গৌল্ড খানিকক্ষণ মাথা নেড়ে ‘না’ বলে দিলেন। কিন্তু মাশরাফি আত্মবিশ্বাসী। চেয়ে বসলেন রিভিউ।

পরে তৃতীয় আম্পায়ার স্টিভ ডেভিস রিপ্লে দেখলেন। কিন্তু তিনিও নাকচ করে দিলেন আবেদন। বলটি স্টাম্পেই লাগছিল। সব কিছুই ঠিক কেননা রায়েনার প্যাডে লাগে বলটি।


কিন্তু এর পরেই উইকেটটি পেলেন না মাশরাফি। কেন? বাংলাদেশকে উইকেটটি পেতে দেয়নি এলবিডব্লুর একটি বিশেষ নিয়ম। সেই নিয়মগুলোর একটি হচ্ছে, বল লেগ স্টাম্পের লাইনের বাইরে ফেলা যাবে না। লেগ স্টাম্পের বাইরে বল পড়লে প্রথম দফাতেই এলবিডব্লুর আবেদন নাকচ হবে।

মাশরাফির বলটা ঠিক পুরোপুরি লেগ স্টাম্পের বাইরেও ছিল না। অর্ধেকেরও সামান্য বেশি ছিল লেগ স্টাম্পের লাইনেই। কিন্তু তাতে মন গলবে না আম্পায়ারদের। তারা তো আর নিয়মের বাইরে যেতে পারেন না। বলটাকে পুরোপুরি থাকতে হবে লেগ স্টাম্পের ভেতরে।

ফলে এ যাত্রা বেঁচে গেলেন রায়না। ম্যাচের ভাষ্যকার সঞ্জয় মাঞ্জেরেকার বলেন, নিয়মের দিক দিয়ে সিদ্ধান্তটা ঠিক আছে, কিন্তু নীতির দিক ​দিয়ে ঠিক নেই।’ ক্রিকইনফোও লিখেছে, এটা অনেক ‘ক্লোজ’ একটা আবেদন ছিল। ৫১ শতাংশই আউট!