বুধবার, ২৯শে জুন, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ ১৫ই আষাঢ়, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

‘বিএনপি না আসলে আগামীতেও একইভাবে নির্বাচন হবে’

asraf_234660ডেস্ক রির্পোট : বিএনপি না আসলে আগামীতেও একইভাবে নির্বাচন হবে বলে মন্তব্য করেছেন সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম।  তিনি বলেন, আমরা নির্বাচিত সরকার। সাংবিধানিক বাধ্যবাধকতার মধ্য থেকে যেভাবে নির্বাচন হয়েছে আগামীতেও হবে। বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া আসুক আর না আসুক নির্বাচন একইভাবে হবে।

শনিবার বেলা সাড়ে ১১টায় আওয়ামী লীগ সভাপতির ধানমণ্ডির রাজনৈতিক কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে দলটির সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম এসব কথা বলেন।
চলমান রাজনৈতিক সংকট সমাধানে বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার দেয়া সংলাপের প্রস্তাব প্রত্যাখান করে সৈয়দ আশরাফ বলেন , রক্তাক্ত বাংলাদেশে কিসের আলোচনা। এখন সময় বাংলার মাঠ থেকে সন্ত্রাসীদের বিতাড়িত করার। তিনি বলেন, একটি নির্বাচিত সরকারকে জিম্মি করে আপনি (খালেদা জিয়া) আপনার দাবি আদায় করবেন তা বাংলার মাটিতে সম্ভব নয়।
শুক্রবার গুলশান কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত সংবাদ সম্মেলনে বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার দেয়া বক্তব্যের প্রতিক্রিয়ায় আওয়ামী লীগ এ সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করে।  
খালেদা জিয়ার এসব বক্তব্যের প্রতিক্রিয়ায় সৈয়দ আশরাফ বলেন, আমরা নির্বাচিত সরকার। অতীতে এ দেশে সংবিধান অনুযায়ী নির্বাচন হয়েছে। আগামী নির্বাচনও সংবিধান অনুযায়ী হবে। বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া আসুক আর না আসুক নির্বাচন একইভাবে হবে।
 
চলমান হরতাল-অবরোধ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, মানুষ হত্যা করা গণতান্ত্রিক আন্দোলন নয়। বিএনপি-জামায়াত এ দেশে আইএস এর মতো পরিবেশ সৃষ্টি করতে চায়।
আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক বলেন, পৃথিবীর কোনো রাষ্ট্র সন্ত্রাসীদের সঙ্গে আলোচনা করেনি। তারা যুদ্ধ ঘোষণা করেছে, আমরাও তাই করবো। জ্বালাও-পোড়াও, মানুষ হত্যা বন্ধ করলে, শান্তির পরিবেশ এলে আলোচনা হলেও হতে পারে।
খালেদা জিয়ার উদ্দেশে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, আপনি সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড প্রত্যাহার করুন। আপনি অবরোধ প্রত্যাহার করুন। বাংলাদেশের মানুষের জন্য স্বাভাবিক জীবনযাত্রার পরিবেশ তৈরি করুন। যেভাবে আপনি চান সেভাবে সম্ভব হবে না। সারাদেশকে জিম্মি করে, একটি নির্বাচিত সরকারকে জিম্মি করে আপনি আপনার দাবি আদায় করবেন তা বাংলার মাটিতে সম্ভব নয়।
সৈয়দ আশরাফ বলেন, আমরা জানি আপনার শক্তি কোথায়? কারা এই সন্ত্রাসী কাজকে প্রশ্রয় দিচ্ছে? কোথা থেকে নির্দেশ আসছে তা-ও জানি।
এসময় আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় ও ঢাকা মহানগরের নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।