মঙ্গলবার, ৬ই ডিসেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ ২১শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

অস্কারের ‘সাদা-কালো’ বিতর্ক

b1544a995d08ba27fae5ee4098286a2a-OSCAR-BWলাইফস্টাইল ডেস্ক : অনুষ্ঠিত হয়ে গেল ৮৭তম অস্কারের আসর। পুরস্কার পেলেন অনেকেই। কিন্তু এবার মনোনয়নের সময় থেকেই চলছিল অস্কারের সাদা-কালো বিতর্ক। মনোনয়ন নিয়ে টুইটারে চলছিল ‘#অস্কার সো হোয়াইট’ প্রচারাভিযান। কিন্তু কেবল সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমেই নয় বাস্তব সমাজেও এ ধারণা প্রবল। পুরস্কার ঘোষণার আগেই রয়টার্স/ ইপসস অস্কার জরিপে উঠে এসেছে যে, এক-তৃতীয়াংশ মার্কিনিই মনে করেন, হলিউডে সংখ্যালঘু ও নারীরা যথাযথ মনোযোগ পাচ্ছেন না। খবর রয়টার্সের।

অনলাইন জরিপে অংশ নেওয়া দুই হাজার মার্কিনির ৩৪ শতাংশই বলেছেন, হলিউডের সাধারণ চর্চাতেই সংখ্যালঘুদের নিয়ে সমস্যা আছে। ৩২ শতাংশ বলেছেন, চলচ্চিত্রশিল্পের এ রাজধানী সংখ্যালঘুদের বিষয় নিয়ে অস্কার মানের সিনেমা তৈরির আগ্রহ দেখা যায় না।

জরিপে অংশগ্রহণকারী কৃষ্ণাঙ্গদের ৬২ শতাংশই বলেছেন, সংখ্যালঘুদের নিয়ে সমস্যা আছে হলিউডের। আর সব ধরনের সংখ্যালঘুদের মধ্যে ৪৮ শতাংশও এই একই ধারণা পোষণ করেন।

নৃতাত্ত্বিক, ধর্মীয় ও ভাষাগত সংখ্যালঘুদের পাশাপাশি নারীর প্রতি হলিউডের মনোভাব নিয়েও তুমুল বিতর্ক চলছে সাম্প্রতিক সময়ে। জরিপে অংশগ্রহণকারীদের ৩২ শতাংশই বলেছেন, নারীদের নিয়ে হলিউডের সমস্যা আছে। আর ২৯ শতাংশ বলেছেন, হলিউড নারী দর্শকদের জন্য অস্কার মানের সিনেমা বানাতে যথেষ্ট মনোযোগ দিচ্ছে না। জরিপে অংশগ্রহণকারী নারী ও পুরুষদের মধ্যে এই মনোভাব প্রায় কাছাকাছি। এই মতের পক্ষে সমর্থন জানানো নারীর সংখ্যা ৩০ শতাংশ হলেও পুরুষদের সংখ্যা একটু কম, ২৮ শতাংশ।

মাস খানেক আগে অস্কার মনোনয়নের তালিকা প্রকাশের পর থেকেই এই বিতর্ক দানা বাঁধতে থাকে। সেরা অভিনেতার চারটি ক্যাটাগরিতে একজনও কৃষ্ণাঙ্গ অভিনেতা/অভিনেত্রী মনোনয়ন না পাওয়ায় এবং একজনও নারী সেরা পরিচালক কিংবা সেরা চিত্রনাট্যকারের মনোনয়ন না পাওয়ায় এবারের অস্কারকে স্মরণকালের ‘সবচেয়ে সাদা’ অস্কার হিসেবে সমালোচনা করা হচ্ছে।