সোমবার, ১৬ই মে, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ ২রা জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

জঙ্গি ডাকাত:বিএনপি

102381_Hasan-Mahmudডেস্ক রির্পোট : অবরুদ্ধ খালেদা জিয়াকে গুলশানে তার রাজনৈতিক কার্যালয় থেকে বের করে দেয়ার আহবান জানিয়ে আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ বলেছেন, কোনো বাড়িতে ডাকাত পড়লে মালিক ডাকাতের সাথে আলোচনায় বসে না। দেশে এখন ডাকাত পড়ছে, এদের সাথেও আলোচনা হতে পারে না, হবে না। যারা আলোচনার কথা বলছেন, তাদের বলবো আগে বিএনপিকে নাশকতা থামাতে বলুন। এই জঙ্গিদের সাথে কোনো আলোচনা হবে না।
 
আজ রোববার ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটি-ডিআরইউতে বাংলাদেশ স্বাধীনতা পরিষদ আয়োজিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি একথা বলেন।
 
হাছান মাহমুদ বলেন, গুলশান এলাকা কূটনৈতিক জোন। এখানে কূটনৈতিকদের আবাসস্থল। খালেদা জিয়ার কারণে তাদের স্বাভাবিক জীবনযাত্রা ব্যাহত হচ্ছে। তাদের জীবন হুমকির মুখে পড়েছে। তাই তাকে এখান থেকে বের করে বাড়ি পাঠিয়ে দেয়ার জন্য সরকারের প্রতি আহ্বান জানাচ্ছি।
 
তিনি বলেন, ডিপ্লোমেটিক জোনে বসে, খালেদা জিয়া পেট্রোলবোমা হামলার নেতৃত্ব দিচ্ছেন। ওই এলাকায় অনেক বিদেশী থাকেন। সরকারকে অনুরোধ জানাবো খালেদা জিয়ার গুলশান অফিস ডিপ্লোমেটিক জোন থেকে সরিয়ে তাকে বাড়িতে পাঠান।
 
ড. হাছান মাহমুদ বলেন, রাজনীতি মানুষের কল্যাণের জন্য। ব্রিটিশবিরোধী রাজনীতি যারা করতেন, তাদের দেখলে মানুষ শ্রদ্ধায় অবনত হতো। মানুষ সম্মান করতো। দুঃখজনক হলেও সত্য, আজকে বিএনপি নেত্রী খালেদা জিয়ার নেতৃত্বে মানুষ হত্যার রাজনীতি চলছে। ক্ষমতায় যাওয়ার জন্য খালেদা জিয়ার নেতৃত্বে বিএনপি-জামায়াত চক্র ধ্বংসের রাজনীতি শুরু করেছে। এদের প্রতিহত করতে হবে।
 
তিনি বলেন, নির্বাচন এলে তারা কড়া মুসলমান হয়ে যান, অথচ মুসলমানদের দ্বিতীয় বৃহত্তম জামায়াত ইজতেমার মধ্যে খালেদা জিয়া অবরোধ প্রত্যাহার করেন নাই। ইজতেমাগামী গাড়িতে পেট্রোলবোমা মেরেছেন। এটা কোনো রাজনীতি নয়।
 
ড. হাছান বলেন, বিএনপির ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব প্রেস কাবে খাটের নিচে লুকিয়ে ছিলেন। আমরা বিরোধী দলে থাকলে আর প্রেস কাবে অবস্থান নিলে ঘোষণা দিয়ে গ্রেফতার হতাম। যারা বোরকা পড়ে হাইকোর্টে যান তাদের দ্বারা গাড়িতে পেট্রোলবোমা মারা সম্ভব।
 
বাংলাদেশ স্বাধীনতা পরিষদের উপদেষ্টা হাসিবুর রহমান মানিকের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় আরো বক্তব্য রাখেন সাবেক স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শামছুল হক টুকু, ঢাকা মহানগর আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক শাহে আলম মুরাদ, ঢাকা মহানগর আওয়ামী লীগের সদস্য হেদায়েতুল ইসলাম স্বপন, কেন্দ্রীয় কমিটির সহ-সম্পাদক সুরুজ আলম, স্বাধীনতা পরিষদের সভাপতি জিন্নাত আলী খান জিন্নাহ, বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক জোটের সাধারণ সম্পাদক অরুন সরকার রানা প্রমুখ।

এ জাতীয় আরও খবর

সর্বদলীয় সরকার গঠনে বিরোধী দলকে আমন্ত্রণ শ্রীলঙ্কার প্রধানমন্ত্রীর

টাইগার স্পিনারদের দাপট, ম্যাথিউসের সেঞ্চুরিতে শ্রীলঙ্কার স্বস্তি

বিজেপি নেতাকে কষে চড় মারলেন এনসিপি কর্মী

উত্ত্যক্তের প্রতিবাদ করায় মাকে লাথি, মেয়েকে ‘ধর্ষণচেষ্টা’!

ঢাকাবাসীকে ‘স্বস্তির খবর’ দিলো কোয়ালিটি ইনডেক্স

দেশের উত্তরাঞ্চলে ভারি বৃষ্টির সম্ভাবনা

ঘুরে ঘুরে ময়লা সংগ্রহ করেন মামুন, বিলান গাছ

ক্ষমতাচ্যুত হতে পারেন পুতিন : ইউক্রেন জেনারের

টিসিবিতে সোমবার থেকে সয়াবিন মিলবে ১১০ টাকায়

সাবেক রেলমন্ত্রী মুজিবুল হক হাসপাতালে

ভোটের এক মাস আগেই কুমিল্লায় বিজিবি মোতায়েন

অসুস্থ মঈন খান আইসিইউতে