সোমবার, ৩০শে জানুয়ারি, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ ১৬ই মাঘ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

কয়েক দিনের ভিতর শাস্তির আওতায় আসছেন আরো ৮ কর্মকর্তা

dsgdfgd-300x191ডেস্ক রির্পোট :জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ে চলছে চুলচেরা বিশ্লেষণ। এ বিশ্লেষণ কোন কোন কর্মকর্তা-কর্মচারী গুলশানে বিএনপি কার্যালয়ে বৈঠক করেছেন সে জন্য। সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানাগেছে এ তথ্য।
সূত্র জানায়, অনেকেরই নাম পাওয়া গেছে। শিগগিরই ৮ কর্মকর্তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে। বিভিন্ন প্রাইভেট টিভি চ্যানেল থেকে সংগ্রহ করা আনএডিটেড ভিডিও ফুটেজ, ওই দিনের সিসিটিভির ফুটেজ ও স্থিরচিত্র দিয়ে গোয়েন্দা সংস্থার তৈরি তালিকা দিয়ে ৩০ জন কর্মকর্তা-কর্মচারীকে চিহ্নিত করেছে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়। তাদের দেওয়া তথ্যভিত্তির ওপরই অভিযুক্ত কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের বিরুদ্ধে শাস্তির জন্য সুপারিশ করা হবে। গোয়েন্দো সংস্থার তালিকা থেকে যাচাই-বাছাই শেষে সর্বশেষ ২০ জন অভিযুক্তের একটি চূড়ান্ত তালিকা করেছে প্রশাসন। এখন চলছে সেই তালিকাটির চুলচেরা বিশ্লেষণ।
সূত্রমতে, প্রশাসনের শীর্ষ কর্মকর্তারা চুলচেরা বিশ্লেষণে সতর্ক এ কারণেই, যাতে নিরপরাধ কোনো কর্মকর্তা-কর্মচারী শাস্তি ভোগ না করেন। সঙ্গে সঙ্গে লঘু পাপে গুরুদন্ড যাতে দেওয়া না হয় সেজন্যও সর্বোচ্চ সচেষ্ট রয়েছে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ।
এদিকে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় থেকে অভিযুক্ত কর্মকর্তাদের চিহ্নিত ও তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য প্রশাসনিকভাবে এখনও কোনো তদন্ত কমিটি গঠনের জন্য নির্দেশনা দেওয়া হয়নি।
প্রসঙ্গত, গুলশানে খালেদা জিয়ার সঙ্গে সরকারবিরোধী ষড়যন্ত্রমূলক বৈঠকে অংশ নেওয়ার অভিযোগে যুগ্ম-সচিব (ওএসডি) একেএম জাহাঙ্গীরকে বাধ্যতামূলক অবসর দিয়েছে সরকার।
জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় থেকে গত বৃহস্পতিবার জারি হওয়া আদেশে বলা হয়েছেÑ তার চাকরি ২৫ বছর পূর্ণ হয়েছে। জনস্বার্থে গণকর্মচারী (অবসর গ্রহণ) আইন ১৯৭৪-এর ৯(২) ধারায় প্রদত্ত ক্ষমতাবলে তাকে চাকরি থেকে অবসর দেওয়া হয়েছে এবং বিধি মোতাবেক অবসরজনিত সুবিধা পাবেন বলেও আদেশে উল্লেখ করা হয়।
জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের ঊর্ধ্বতন একজন কর্মকর্তা নাম প্রকাশ না করে জানান, অভিযুক্ত কর্মকর্তাদের বিষয়ে শতভাগ নিশ্চিত হয়ে বিএনপি নেত্রীর সঙ্গে বৈঠকে যাওয়া কর্মকর্তাদের বিরুদ্ধে বাধ্যতামূলক অবসরে পাঠানোর মাধ্যমে ব্যবস্থা নেবে সরকার। আর কর্মচারীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেবে সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়।
এ ঘটনায় জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ইসমাত আরা সাদেকও বৈঠকে অংশগ্রহণকারীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার ঘোষণা দেন। গত ৯ ডিসেম্বর প্রতিমন্ত্রী বলেন, বৈঠককারীরা শনাক্ত হয়েছে, এবার ব্যবস্থা নেব আমরা।