সোমবার, ৩০শে জানুয়ারি, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ ১৬ই মাঘ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব প্রাণতোষ চৌধুরীর ৮১ তম জন্ম বার্ষিকী পালিত

picপ্রতিনিধি : ব্রাহ্মণবাড়িয়ার প্রবীণ সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব,সাহিত্য একাডেমীর পরিচালক বিশিস্ট আলোকচিত্রী প্রাণতোষ চৌধুরীর ৮১ তম জন্ম বার্ষিকী গত বুধবার পালিত হয়েছে। শহীদ ধীরেন্দ্র নাথ দত্ত ভাষা চত্বরে সাহিত্য একাডেমী কার্যালয়ে প্রাণতোষ চৌধুরীকে সংগঠনের পক্ষ থেকে ফুলেল শুভেচ্ছা জানান সংগঠনের সভাপতি কবি জয়দুল হোসেন। এছাড়া মিস্টি মুখ সহ উপহার প্রদান করা হয়। অনুষ্ঠানে সাহিত্য একাডেমীর সম্পাদক অধ্যাপক মিজানুর রহমান শিশিরের সঞ্চালনায় প্রাণতোষ চৌধুরীর বর্ণিল জীবনের উপর আলোচনা করেন কবি জয়দুল হোসেন, বীর মুক্তিযোদ্ধা ও সঙ্গীত র্শিপী ফিরোজ আহমেদ, লেখক সামসুদ্দিন আহমেদ, প্রাবন্ধিক লেখক অধ্যাপক মানবর্দ্ধন পাল, নন্দিতা গুহ ,একেএম শিবলী, জহিরুল ইসলাম স্বপন, ফারুক আহমেদ ভ’ইয়া, কবি রফিকউদ্দিন, নেলী আক্তার,নূরুল আমীন,জামিনুর রহমান,নির্জয় হাসান সোহেল প্রমুখ। অন্যান্যের মধ্যে ছিলেন সংগঠনের হেদায়েত, অঞ্জন,তানবীর,বোরহান,বিশাল,নীল,আনোয়ার,শিবলী,কানন,আকরাম ।
অনুষ্ঠানে বক্তারা বলেন, সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব, সাদা মনের মানুষ প্রাণতোষ চৌধুরী অনন্য প্রতিভায় বিভিন্ন ক্ষেত্রে ভ’মিকা রেখে যাচ্ছেন। মহান মুক্তিযুদ্ধ সহ বিভিন্ন সময়ে তার তোলা আলোকচিত্র জেলার ইতিহাসকে সংরক্ষণ করেছে এবং ঐতিহ্যকে বিকশিত করেছে। সংগীত শিল্পী সহ সাংগঠনিক দক্ষতায় তিনি অনন্য অবদান রাখছেন। বক্তারা প্রাণতোষ চৌধুরীর ছবির এ্যালবাম ও স্মৃতি কথা প্রকাশের দাবী জানান এবং প্রবীণ এই ব্যক্তিত্বের দীর্ঘায়ূ সহ উত্তরোত্তর সমৃদ্ধি কামনা করেন। অনুষ্ঠানে প্রাণতোষ চৌধুরী তার অনূভূতি ব্যক্ত কালে বলেন, আমি ব্রাহ্মণবাড়িয়ার বিভিন্ন স্তরের মানুষের ভালবাসা পেয়েছি । এই ভালবাসার কাছে আমি ঋণী। তিনি সকল সজ্জন, সতীর্থ , শুভানুধ্যায়ী সহ নবীণ প্রবীণ সকলের মঙ্গল কামনা করেন। তিনি বলেন জন্মদিনের শুভেচ্ছার স্বাদ জীবদ্দশায় গ্রহণ এক অন্যরকম অনূভ’তি, এতে অনেকদিন বেচে থাকার জন্য মনে ইচ্ছে জাগে, কর্মে অণুপ্রেরণা জুগায়। তিনি নতুন প্রজন্মকে সত্য ও সুন্দরের পথে চলে পারষ্পারিক সৌহার্দ সম্প্রীতির বন্ধন অটুট রাখার আহবান জানান।