শুক্রবার, ১৯শে আগস্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ ৪ঠা ভাদ্র, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

বাচ্চা থাকবে ডিপ ফ্রিজে

Nari-300x240লাইফস্টাইল ডেস্ক :একটু বুঝিয়ে বলা যাক, যুক্তরাষ্ট্রে ফেসবুক কিংবা অ্যাপলের মতো বড় বড় কোম্পানি তাদের নারীকর্মীদের নিজেদের ডিম্বাণু জমিয়ে রাখার জন্য টাকা দিচ্ছে, যাতে তারা পরে মা হতে পারেন। আগে ক্যারিয়ার, পরে বাচ্চা।
প্রস্তাবটা বেশ যুক্তিযুক্ত, এমনকি ফ্যাশনদুরস্ত মনে হতে পারে। এমন এক নারীকর্মী যার প্রশিক্ষণে কোম্পানি বেশ কিছু অর্থ বিনিয়োগ করেছে, তিনি সন্তানসম্ভবা হয়ে পড়লে বেশ কিছু দিন কাজে আসতেপারবেন না। জন্মের পরও সেই শিশুর কারণে তার পক্ষে ওভারটাইম করা, বিজনেস ট্রিপ কিংবা ককটেল পার্টিতে যাওয়া মুশকিল হয়ে পড়বে। অর্থাৎ, তার কেরিয়ারে একটা বিরতি, অন্তত বিঘ্ন ঘটবে। কোম্পানিও তার কাছ থেকে যে পরিমাণ কাজ ও প্রেরণা পেতে পারত, তার সবটা পাবে না।
সেই কারণেই অনেক মার্কিন কোম্পানি উচ্চ যোগ্যতাসম্পন্ন নারীদের মা হওয়ার ইচ্ছা ভাঁড়ারে তুলে রাখতে সাহায্য করতে চায়। ফেসবুক ইতিমধ্যেই যা করছে এবং অ্যাপল আগামী বছর থেকে যা করতে চায়, তা হলোথ নারীকর্মীরা যদি তাদের ডিম্বাণু হিমায়িত করে রাখতে চান, তবে কোম্পানি তার খরচ দেবে। দুটি সংস্থাই নাকি ডিম্বাণু বের করে তা জমিয়ে রাখার জন্য কর্মীপ্রতি ২০ হাজার ডলার পর্যন্ত ব্যয় করতে প্রস্তুত।
কোম্পানির যুক্তি হলো, নারীরা কোম্পানির ‘হায়ারার্কি’ বা ক্রমাধিপত্যের পর্যায়ক্রমে একটি আকর্ষণীয় ও স্থায়ী অবস্থান নিশ্চিত করে ফেলার পরই তাদের সন্তান ধারণের কথা ভাবা উচিত। ডিম্বাণু হিমায়িত করার কারণ, ত্রিশের মাঝামাঝি থেকে নারীদের সুস্থ ডিম্বাণু উৎপাদনের ক্ষমতা দ্রুত হ্রাস পায়। তরুণ বয়সে ডিম্বাণু জমিয়ে রাখলে পরেও সন্তান জন্ম দেওয়া যায়।