সোমবার, ১৫ই আগস্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ ৩১শে শ্রাবণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

মঙ্গল গ্রহে ৬৮ দিন পর্যন্ত বাঁচতে পারে মানুষ

45882_huআন্তর্জাতিক ডেস্ক :বিশ্বজুড়ে রক্তিম গ্রহ মঙ্গলে পাড়ি জমাতে আগ্রহী মানুষের সংখ্যা কম নয়। তার প্রমাণ গ্রহটিতে পাড়ি জমাতে আগ্রহী মানুষের আবেদনের সংখ্যা। কিন্তু, তাদের মঙ্গল যাত্রা কতোটা নিরাপদ, তা নিয়ে বিতর্ক ও সংশয় রয়েই গেছে। সে বিতর্ককেই নতুন করে উস্কে দিলেন মার্কিন গবেষকরা। মঙ্গলে প্রাণের অস্তিত্ব নিয়েও এ পর্যন্ত বহু গবেষণা পরিচালিত হয়েছে। গ্রহটিতে মানুষ কতোদিন পর্যন্ত বেঁচে থাকতে পারবে, তা নিয়ে ছিল সংশয়। যুক্তরাষ্ট্রের ম্যাসাচুসেটস ইনস্টিটিউট অব টেকনোলজির (এমআইটি) একদল গবেষক দাবি করছেন, মঙ্গল গ্রহে মানুষের পক্ষে ৬৮ দিনের বেশি বেঁচে থাকা সম্ভব নয়। বর্তমানে যে প্রযুক্তি রয়েছে, তা দিয়ে সর্বোচ্চ ৬৮ দিন পর্যন্ত বেঁচে থাকা যেতে পারে। তারা বলছেন, মঙ্গলে ২ মাস বসবাসের পর মহাকাশযানের ভিতরের অক্সিজেন বিপজ্জনক হয়ে উঠতে পারে। আরও অত্যাধুনিক প্রযুক্তি দিয়ে বর্তমান এ সীমাবদ্ধতা দূর করা সম্ভব বলে মনে করছেন তারা। এ খবর দিয়েছে অনলাইন এনডিটিভি। নেদারল্যান্ডসভিত্তিক একটি অলাভজনক প্রতিষ্ঠান ‘মার্স ওয়ান’ মঙ্গলে স্থায়ী বসতি স্থাপনের প্রকল্প বাস্তবায়নের লক্ষ্যে কাজ করছে। এর মধ্যে মঙ্গলে বসবাসের জন্য ২ লাখ আবেদনও জমা পড়েছে। সেখান থেকে ১ হাজার জনের সংক্ষিপ্ত একটি তালিকা তৈরি করা হয় এবং চূড়ান্তভাবে ২৪ জনকে স্থায়ীভাবে মঙ্গলে নিয়ে যাওয়ার জন্য নির্বাচন করা হয়েছে। ২০২৪ সালের মধ্যে মানুষকে মঙ্গলে পাঠানোর পরিকল্পনা করছে মার্স ওয়ান। যারা যাবেন, তারা পৃথিবীতে ফেরার সুযোগ পাবেন না। কিন্তু, তার আগেই এমআইটি’র ৫ গবেষক নানা তথ্য-উপাত্ত বিশ্লেষণ করে এ উদ্বেগজনক তথ্য দিয়েছেন। এ নিয়ে তারা ৩৫ পৃষ্ঠার একটি প্রতিবেদন তৈরি করেছেন। মঙ্গলে বসবাসকারীদের জন্য খাবার ব্যবস্থা থাকবে নভোযানে। গবেষকরা বলছেন, এ গাছগুলো থেকে যে পরিমাণ অক্সিজেন উৎপন্ন হবে, তা নিরাপদ নয়। অক্সিজেন নিষ্কাশনের পৃথক ব্যবস্থার প্রয়োজনীয়তার কথা উল্লেখ করেছেন তারা। মার্স ওয়ানের সহ-প্রতিষ্ঠাতা ও প্রধান নির্বাহী বাস ল্যান্সড্রপের মতে, মঙ্গলে অতিরিক্ত সরঞ্জাম সমস্যা সৃষ্টি করতে পারে। তিনি অভিযোগ করেছেন, গবেষকরা অসম্পূর্ণ তথ্য নিয়ে গবেষণা চালিয়েছেন। মঙ্গলে মানুষের বসতি স্থাপনের প্রযুক্তি তৈরি প্রায় শেষ পর্যায়ে। পৃথিবী থেকে সাড়ে ৫ কোটি কিলোমিটার দূরে অবস্থিত মঙ্গল গ্রহ। পৃথিবী থেকে ছেড়ে যাওয়ার পর ৭ মাস পর মঙ্গলে পৌঁছবে নভোযান। তবে তার আগে এ গবেষণা ভাঁজ ফেলবে মঙ্গল যাত্রীদের কপালে, তাতে সন্দেহ নেই। তবে একই সঙ্গে ভুলগুলো শুধরে নিয়ে অত্যাধুনিক প্রযুক্তি তৈরির সম্ভাবনাও জোরালো হলো।

এ জাতীয় আরও খবর

ভাসমানসহ সব শিশু টিকা পাবে: স্বাস্থ্যমন্ত্রী

২০৪১ সালে মাথাপিছু আয় হবে সাড়ে ১২ হাজার ডলার: প্রতিমন্ত্রী

মানুষ যেন স্বল্পসময়ে ন্যায়বিচার পায় : প্রধান বিচারপতি

আশপাশের সব ভবনই ঝুঁকিপূর্ণ : ফায়ার সার্ভিস

বাংলাদেশ সংকটে নেই, বিশ্ব সংকটে আছে : নৌ-প্রতিমন্ত্রী

বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নপূরণে সংগ্রাম করে যাচ্ছেন শেখ হাসিনা: কাদের

বিশ্বনেতাদের চোখে বঙ্গবন্ধু

দেশে বিচারবহির্ভূত হত্যাকাণ্ড ঘটে না: পররাষ্ট্রমন্ত্রী

মিসরে গির্জায় ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডে নিহত ৪১

ফাঁস হওয়া গোপন ভিডিও নিয়ে যা বললেন অঞ্জলি

‘বালুখেকো’ সেলিমকে আত্মসমর্পণের নির্দেশ

পাখির আঘাতে বিকল লন্ডনগামী বিমানের ফ্লাইট