শনিবার, ২০শে আগস্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ ৫ই ভাদ্র, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ইংরেজি বিভাগে ভর্তি হতে পারবে ১৭ জন

dhaka-university-300x225ক্যাম্পাস প্রতবিদেক:ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের এবারের ’খ’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষায় ভর্তিচ্ছুকদের বিপর্যয়কারী ফলাফলের পর ইংরেজি বিভাগের ১৫০টি আসন পুরণ করা নিয়ে সমস্যায় পড়ে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ।
মঙ্গলবার ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি কমিটির এক বৈঠকে আসন পূরণের জন্য শর্ত শিথিল করার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।  বৈঠকে ইংরেজি বিভাগে ভর্তি হওয়ার জন্য খ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষায় ইংরেজিতে আগে ১৮ থেকে ২০ পর্যন্ত  নম্বর পাওয়ার যে বাধ্যবাধকতা ছিল তা পরিবর্তন করার সিদ্ধান্ত নেয় কর্তৃপক্ষ। এবার খ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষায় যারা ইংরেজিতে ৮ থেকে ১৫ পর্যন্ত নম্বর পেয়েছে তারা ইংরেজিতে ভর্তি হতে পারবে।
কিন্তু তা সত্ত্বেও কর্তৃপক্ষ খ ইউনিট থেকে আর মাত্র ১৫ জনকে ইংরেজিতে ভর্তি করাতে পারবে। এবার ভর্তি পরীক্ষায় মাত্র দু’জন ইংরেজিতে ভর্তির যোগ্যতা অর্জন করে।
এ কারণে নিয়ম পরিবর্তন করে ঘ ইউনিট থেকে ২৫ জন শিক্ষার্থী নেয়ার পরিবর্তে তারা এখন বাকী আসনগুলো এই ইউনিট পুরণের সিদ্ধান্ত  নিয়েছে।
এতোসব চেষ্টার কর্তৃপক্ষ ইংরেজিতে ভর্তি যোগ্য ১৩৭ জন শিক্ষার্থী পাবে। যদিও এটা নিশ্চিত নয় যে এই ১৩৪ জনই ইংরেজিতে ভর্তি হতে পারবে কিনা অথবা ভর্তি হবে কিনা।
সেপ্টেম্বর মাসে খ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষায় ১,৩৬৪ জন পরীক্ষার্থীর মধ্যে মাত্র ২ জন ইংরেজিতে ভর্তির যোগ্যতা অর্জন করে।
ভর্তি কমিটির সদস্য অধ্যাপক ইমদাদুল হক জানান, ” বৈঠকে পরীক্ষার্থীদের ইংরেজিতে খারাপ করার পেছনে কারণ সম্পর্কে আলোচনা করা হয়। শিক্ষার্থীরা ইংরেজিতে কম নম্বর পাওয়ার কারণ হচ্ছে ইংরেজিতে স্কুল ও কলেজে ভাল শিক্ষকের অভাব।”
ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে সিনেট ভবনে অনুষ্ঠিত ওই বৈঠকে একজন শিক্ষার্থী ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে এখন থেকে একবারের বেশি ভর্তি পরীক্ষা দিতে পারবে না বলেও সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।
এবার খ, গ ও ঘ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষায় ১৭৫,৮২৪ জন পরীক্ষাথীর মধে ইংরেজিতে ফেল করে প্রায় ৫৮ শতাংশ পরীক্ষাথী।