বুধবার, ১৭ই আগস্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ ২রা ভাদ্র, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

নবীনগরে পৃথক সংঘর্ষে নিহত-১, আহত অর্ধশতাধিক

L Lasআবু কামাল খন্দকার : উপজেলায় গত দু’দিনে পৃথক সংঘর্ষে ১ জন নিহত ও অর্ধশতাধিক আহত হয়েছে। এ ঘটনায় নবীনগর থানা পুলিশ অভিযান চালিয়ে চরলাপাং গ্রাম থেকে ইউপি মেম্বার সহ ১৪ জনকে গ্রেপ্তার করে। গ্রেপ্তার আতংকে পুরোগ্রাম পুরুষ শূন্য হয়ে পড়েছে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন রয়েছে। 
জানা যায়, উপজেলার চরলাপাং গ্রামে অধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় দানেশ মেম্বার গ্রুপ ও শওকত মেম্বার গ্রুপের লোকজনের কথাকাটাকাটি হয়। এরই জের ধরে উভয় গ্রুপের লোকজন দেশীয় অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। এতে চরলাপাং গ্রামের তাজুল ইসলামের ছেলে সুমন (২২) নিহত হয়। এ ঘটনায় মহিলা সহ কমপক্ষে ২০ জন আহত হয়। আশঙ্কাজনক অবস্থায় মজিবুর রহমান (৩৫), আনোয়ার হোসেন (১৫), ইউসুফ (২২), ফুল মিয়া (৪০), লাইলী (২০) কে ঢাকায় প্রেরণ করা হয়। এ ঘটনায় নিহতের পিতা তাজুল ইসলাম মামলা করলে পুলিশ ইউপি মেম্বার নুরুল ্ইসলাম সহ ১৪ জনকে গ্রেপ্তার করে।
 অপরদিকে শুক্রবার সকালে উপজেলার নোয়াগ্রামে ফুটবল খেলার তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে দু’গ্রুপের সংঘর্ষে ৫ জন আহত হয়। গুরুত্বর আহত দু’ভাই আবু কাউছার (২৬) ও ইমু (১৭) কে নবীনগর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এছাড়াও বিভিন্ন স্থানে সংঘর্ষে প্রায় ২০ জন আহত হয়েছে। তাদেরকে নবীনগর হাসপাতালে প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া হয়েছে।


এ ব্যাপারে ওসি রূপক কুমার সাহা বলেন, সংঘর্ষের ঘটনায় মামলা হয়েছে। ঘটনার সাথে জড়িত সন্দেহে ১৪ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে বাকিদেরও গ্রেফতারের চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে।