সোমবার, ১৫ই আগস্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ ৩১শে শ্রাবণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

মহিলা কাবাডিতে ব্রোঞ্জ নিশ্চিত

1_154423 (1)গুয়াংজুর নানশা জিমন্যাশিয়াম থেকে ইনচনের সংদো গ্লোবাল বিশ্ববিদ্যালয়ের জিমন্যাশিয়াম। চার বছর পর ফের পদক জয়ের উল্লাস শাহনাজ পারভীন মালেকাদের। বাংলাদেশ মহিলা ক্রিকেটারদের পর ইনচনে লাল-সবুজ পতাকা আরও একবার উড়লো মহিলা কাবাডি খেলোয়াড়দের সৌজন্যে। সোমবার সংদো গ্লোবাল বিশ্ববিদ্যালয় জিমন্যাশিয়ামে স্বাগতিক দক্ষিণ কোরিয়াকে তিনটি লোনাসহ ৩০-১৮ পয়েন্টে হারিয়ে গেমসের ব্রোঞ্জপদক নিশ্চিত করেন বৃষ্টি, পলি, শারমিনরা। কোচ সুবিমলচন্দ্র দাস বলেন, ‘তিন দলের গ্র“পে একটি করে ম্যাচ জিতে ভারত ও বাংলাদেশের সমান পয়েন্ট। তবে ভারত ও দক্ষিণ কোরিয়ার ম্যাচের ফলাফলে নির্ধারিত হবে কারা রানার্সআপ হবে। বাংলাদেশকে পেছনে ফেলতে হলে ভারতকে প্রায় ২৭ পয়েন্টের মতো বড় ব্যবধানে হারানোর অসম্ভব কাজটি করতে হবে স্বাগতিক দক্ষিণ কোরিয়ার, যা অকল্পনীয়।’ ছয় মাস আগে ভারতে গিয়ে কোচ শ্রীনিবাস রেড্ডির তত্ত্বাবধানে অনুশীলন করেন কোরিয়ার খেলোয়াড়রা। ভারতীয় কোচ দারুণ শিখিয়েছেন তাদের। বিশেষ করে বোনাস পয়েন্টে কিভাবে এগিয়ে যাওয়া যায়, রপ্ত করেছেন কোরিয়ান মেয়েরা। তাদের ১৮ পয়েন্টের মধ্যে ১২টি এসেছে বোনাস থেকে। সেদিক দিয়ে বাংলাদেশের জুনি চাকমা, রুপালি আক্তাররা পিছিয়ে। ৩০ পয়েন্টের মধ্যে মাত্র একটি এসেছে টেকনিক্যাল থেকে। ফাতেমা আক্তার পলি বলেন, ‘এশিয়ান গেমসে ব্রোঞ্জপদক অক্ষুণ্ন থাকল। এজন্য ভালো লাগছে।’ অধিনায়ক শাহনাজ পারভীন মালেকার কথায়, ‘কোরিয়ার মেয়েরা ভারতে গিয়ে ছয় মাস অনুশীলন করেছে। সেখানে তারা জিম করেছে। তাদের হাত ও পায়ের মাসেল অনেক শক্ত। বোনাস পয়েন্ট নিয়ে সটকে পড়ে ওরা। যা আমরা পারি না। জিম থাকলে খুব ভালো হতো। আমাদের শারীরিক সক্ষমতা বাড়াতে পারতাম।’ বাংলাদেশ কন্টিনজেন্টের শেফ দ্য মিশন শেখ বশির আহমেদ মামুন বলেন, ‘ক্রিকেটে রুপার পর ব্রোঞ্জ নিশ্চিত হয়েছে। স্বর্ণপদকের জন্য পুরুষ ক্রিকেটারদের দিকে তাকিয়ে রয়েছি। আশা করি সাকিবরা আমাদের হতাশ করবে না।’ মহিলা ক্রিকেটারদের প্রত্যেককে একশ’ ডলার দিয়েছেন শেফ দ্য মিশন। কাবাডি খেলোয়াড়দেরও পুরস্কার দেয়ার ঘোষণা দিয়েছেন তিনি। শুরুতেই বোনাস পয়েন্টে এগিয়ে যায় কোরিয়া। তবে রেইডিং আর ক্যাচিংয়ে পারদর্শী বাংলাদেশ। সেদিকেই এগোতে থাকেন লাল-সবুজের মেয়েরা। একটি লোনার দুই পয়েন্টসহ ১২-১১ ব্যবধানে এগিয়ে থেকেই প্রথমার্ধ শেষ করে বাংলাদেশ। এসময় কোরিয়ার বোনাস পয়েন্ট ছিল নয়টি। দ্বিতীয়ার্ধে দুর্দান্ত খেলেন পলি, বৃষ্টি, মালেকারা। দু-দু’বার কোরিয়ার সবাইকে আউট করেন। ফলে দুটি লোনায় চার পয়েন্ট পেয়ে যায় বাংলাদেশ। বোনাস পয়েন্ট নয়, বাংলাদেশ রেইডিং ও ক্যাচিংয়ে পরাজিত করে কোরিয়াকে। দ্বিতীয়ার্ধে কোরিয়ার পাওয়া সাত পয়েন্টের মধ্যে বোনাস থেকে এসেছে তিনটি। আর বাংলাদেশের পাওয়া ১৬ পয়েন্টের মধ্যে দুটি লোনায় চার এবং একটি টেকনিক্যাল পয়েন্ট। বাকিগুলো এসেছে ক্যাচ ও রেইডের মাধ্যমে। বুধবার বি-গ্র“পের চ্যাম্পিয়ন দল ইরান অথবা থাইল্যান্ডের সঙ্গে খেলবেন শাহনাজ পারভীন মালেকারা।

এ জাতীয় আরও খবর

দেশে বিচারবহির্ভূত হত্যাকাণ্ড ঘটে না: পররাষ্ট্রমন্ত্রী

মিসরে গির্জায় ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডে নিহত ৪১

ফাঁস হওয়া গোপন ভিডিও নিয়ে যা বললেন অঞ্জলি

‘বালুখেকো’ সেলিমকে আত্মসমর্পণের নির্দেশ

পাখির আঘাতে বিকল লন্ডনগামী বিমানের ফ্লাইট

বঙ্গবন্ধু এক্সপ্রেসওয়েতে বাসের ধাক্কায় নিহত ২

বঙ্গবন্ধুর আদর্শে উজ্জীবিত বুয়েট শিক্ষার্থীরা

বুয়েটের আন্দোলনকারীরা শিবির: জয়

অনুশীলনে গুলিবিদ্ধ বিজিবি সদস্যের মৃত্যু

সরকারি চাকরিজীবীদের নির্বাচনে অংশগ্রহণ বিষয়ে করা রিট খারিজ

বঙ্গবন্ধু হত্যার বড় সুবিধাভোগী জিয়া ও তার পরিবার : তথ্যমন্ত্রী

আপনারা সবাই আমারে খায়া ফেললেন : পররাষ্ট্রমন্ত্রী