শুক্রবার, ১৯শে আগস্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ ৪ঠা ভাদ্র, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

আজ জাতিসংঘে ভাষণ দেবেন প্রধানমন্ত্রী

Untitled-247-639x526আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আজ শনিবার জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের ৬৯তম অধিবেশনে ভাষণ দেবেন। একইদিন দুপুরেই তাঁর সঙ্গে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির বৈঠক হবে।
‘২০১৫ উত্তর উন্নয়ন এজেন্ডা কার্যকরকরণ ও বাস্তবায়ন’ থিমে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বক্তব্য বিশেষ দিকনির্দেশনা হিসেবে গুরুত্ব পাবে।
এর আগে গত ২২ সেপ্টেম্বর থেকে শুরু হয় নিউইয়র্কে জাতিসংঘ সদর দফতরে সাধারণ পরিষদের ৬৯তম অধিবেশন। প্রধানমন্ত্রী জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের অধিবেশনে বাংলাদেশ প্রতিনিধিদলের নেতৃত্ব দিচ্ছেন। চলতি বছর জাতিসংঘে বাংলাদেশের সদস্যপদ লাভের ৪০ বছর পূর্ণ হতে যাচ্ছে। এ উপলক্ষে বাংলাদেশ মিশন বিশেষ অনুষ্ঠানের আয়োজন করেছে।
জাতিসংঘে বাংলাদেশের স্থায়ী প্রতিনিধি ড. এ কে আবদুল মোমেন জানান, এ বছর ৬৯তম অধিবেশনের জেনারেল ডিবেটের জন্য নির্ধারিত প্রতিপাদ্য বিষয়Ñ ‘২০১৫ সাল উত্তর উন্নয়ন এজেন্ডা কার্যকরণ ও বাস্তবায়ন’। এছাড়া আইনের শাসন, শান্তির সংস্কৃতি ছড়িয়ে দেওয়া, শান্তি উন্নয়ন, শিক্ষার প্রসার, মানুষের পুষ্টির নিশ্চয়তা এবং প্রতিবন্ধীদের মানসিক বিকাশসহ মানবসম্পদ উন্নয়ন অগ্রযাত্রার বিভিন্ন বিষয় নিয়ে আলোচনা হবে।
তিনি জানান, প্রতিবারের মতো এবারও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বাংলায় বক্তৃতা করবেন। প্রধানমন্ত্রী তাঁর বক্তৃতায় আন্তর্জাতিক শান্তি ও নিরাপত্তা, গণতন্ত্র ও সুশাসন প্রতিষ্ঠা, নারীর ক্ষমতায়নে বাংলাদেশের অগ্রণী ভূমিকা, অভিবাসী শ্রমিকদের অধিকার আদায়, দারিদ্র্য দূরীকরণে বর্তমান সরকারের গৃহীত পদক্ষেপগুলো, জলবায়ু পরিবর্তন মোকাবিলায় গৃহীত কার্যক্রমগুলো, স্বল্পোন্নত দেশগুলোর স্বার্থসংশ্লিষ্ট বিষয়, সহস্রাব্দ উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রায় বাংলাদেশের অবস্থান ও আবেদনের কথা তুলে ধরবেন।
এবারের অধিবেশনে ৯৫ জন প্রেসিডেন্ট, ৪৫ জন প্রধানমন্ত্রী, দুজন ভাইস প্রেসিডেন্ট, একজন ডেপুটি প্রধানমন্ত্রী এবং ৫০ জন মন্ত্রী অংশ নিচ্ছেন। একইসঙ্গে ১৯৩টি সদস্য দেশের উচ্চপর্যায়ের প্রতিনিধিরাও রয়েছেন।
উল্লেখ্য, জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের ৬৯তম অধিবেশনে যোগ দিতে গত ২১ সেপ্টেম্বর রোববার রাতে যুক্তরাষ্ট্রের উদ্দেশে ঢাকা ছেড়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তাঁর সফরসঙ্গী হিসেবে গণমাধ্যমের বিশিষ্ট ব্যক্তিত্বদের মধ্যে রয়েছেন দৈনিক ভোরের পাতা এবং দ্য ডেইলি পিপল’স টাইম সম্পাদক ও প্রকাশক ড. কাজী এরতেজা হাসান।
আগামী ২৯ সেপ্টেম্বর সকালে নিউইয়র্ক থেকে লন্ডনের উদ্দেশে রওনা হবেন শেখ হাসিনা। ১ অক্টোবর যুক্তরাজ্য থেকে রওনা হয়ে পরদিন সকালে দেশে পৌঁছানোর কথা রয়েছে প্রধানমন্ত্রীর।