শুক্রবার, ১৯শে আগস্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ ৪ঠা ভাদ্র, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

বৃষ্টিতে ডুবে গেছে ম্যানিলা, নিহত ১

5f46c2b5d193796325b605c9eb32e568-5  ফিলিপাইনের রাজধানী ম্যানিলায় আজ শুক্রবার সকালে গ্রীষ্মকালীন ঝড় ফুং-ওং বয়ে গেছে। এই ঝড়ের প্রভাবে মুষলধারে নামা বৃষ্টিতে ডুবে গেছে ম্যানিলার রাস্তাঘাট। কোথাও কোথাও বহুতল ভবনের একতলা পর্যন্ত ডুবে গেছে পানিতে। এতে অচল হয়ে পড়েছে সেখানকার জনজীবন। পানিতে ডুবে মারা গেছে এক তরুণী।

 


বার্তা সংস্থা এএফপির খবরে জানানো হয়, একটি বড় নদীর পানি কূল ছাপিয়ে উঠে পূর্বাঞ্চলের বেশ কিছু এলাকা প্লাবিত করেছে। এ ছাড়া মহানগরের বেশ কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ ও উত্তরাঞ্চলের কিছু এলাকা প্লাবিত হয়েছে। রাজধানীর সব প্রতিষ্ঠান আজ ছুটি ঘোষণা করা হয়েছে।


খবরে জানানো হয়, মুষলধারে নামা বৃষ্টির পানিতে পথঘাটসহ অনেক ঘরবাড়ি ডুবে গেছে। এতে হাজার হাজার মানুষ ঘরবাড়ি ছেড়ে অন্যত্র আশ্রয়ের দিকে ছুটে চলেছে। এখন পর্যন্ত পানিতে ডুবে একজনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে। তিনি ম্যানিলার উত্তরাঞ্চলের একটি বস্তি এলাকার তরুণী বলে জানা গেছে।

ফুং-ওং ঝড়ের কারণে দেশটির শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান থেকে শুরু করে সব প্রতিষ্ঠান বন্ধ ঘোষণা করেছে সরকার। আর্থিক প্রতিষ্ঠানগুলো বন্ধ হয়ে যাওয়ায় চিকিৎসাসেবা দেওয়া সম্ভব হচ্ছে না।


দেশটির সমাজকল্যাণমন্ত্রী কোরাজন সলিমান বলেন, মুষলধারে নামা বৃষ্টির পানিতে বন্যা সৃষ্টি হওয়ার কারণে অন্তত ৫০ হাজার মানুষ নিজেদের ঘরবাড়ি ছেড়ে অন্যত্র আশ্রয়ের জন্য ছুটে চলেছেন।


দেশটির আবহাওয়া দপ্তর জানিয়েছে, ঘণ্টায় ৮৫ কিলোমিটার বেগে ফুং-ওং ঝড় বয়ে গেছে। এর প্রভাবে মুষলধারে বৃষ্টি হচ্ছে। গতকাল রাত থেকেই ম্যানিলায় প্রায় ২৬৮ মিলিমিটার বৃষ্টি হচ্ছে।

ম্যানিলা বিমানবন্দর কর্তৃপক্ষ আজ এক জরুরি বিবৃতিতে জানায়, খারাপ আবহাওয়ার কারণে তারা ২১টি অভ্যন্তরীণ ও ছয়টি আন্তর্জাতিক ফ্লাইট বাতিল করেছে।

ফিলিপাইনে প্রতিবছর গড়ে ২০টি ঘূর্ণিঝড় আঘাত হানে। এতে শতাধিক মানুষের প্রাণহানি ঘটে। লাখো মানুষের জীবনে নেমে আসে অবর্ণনীয় দুর্ভোগ।