শনিবার, ২০শে আগস্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ ৫ই ভাদ্র, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

বোলারদের দিনটি সাকলায়েনের

1410887395.ওয়েস্ট ইন্ডিজ থেকে এখনও আসেনি জাতীয় দলের কোন সুখবর। বাংলাদেশ ক্রিকেটের এমন হতাশার মাঝে সুসংবাদ নিয়ে আসছে বাংলাদেশ ‘এ’ দল। জিম্বাবুয়ে ‘এ’ দলের  বিপক্ষে প্রথম চার দিনের ম্যাচে জয়ের সুবাতাস পাচ্ছে নাঈম ইসলামের দল। ম্যাচ জিততে আজ শেষ দিনে মাত্র ৬১ রান প্রয়োজন বাংলাদেশের। হাতে রয়েছে ৯ উইকেট।

কক্সবাজার শেখ কামাল আন্তর্জাতিক স্টেডিয়ামে গতকাল বোলারদের দিনে মোট উইকেটের পতন ঘটেছে ১৮টি। এর মধ্যে বাংলাদেশের ৮টি এবং অতিথি জিম্বাবুইয়ানদের ১০টি উইকেটের পতন ঘটেছে। তবে সব নাটকীয়তার শেষে স্বস্তি নিয়ে তৃতীয় দিনের খেলা শেষ করেছে বাংলাদেশ ‘এ’ দল। প্রথম ইনিংসে জিম্বাবুয়ে ‘এ’ দলের করা ২০৬ রানের জবাবে আগের দিন প্রথম ইনিংসে ৩ উইকেটে ১৬২ রান নিয়ে দিনশেষ করেছিল বাংলাদেশ ‘এ’ দল। গতকাল নাঈমদের প্রথম ইনিংসের চাকা থেমেছে ২১১ রানে। সফরকারী দুই বোলার ওয়েলিংটন মাসাকাদজা (৬ উইকেট) এবং তিনোতেন্দা মুতমবদজি (৪ উইকেট) স্বাগতিকদের ইনিংসটিকে দীর্ঘ হতে দেননি।

বাংলাদেশের চেয়ে ৫ রানে পিছিয়ে থেকে দ্বিতীয় ইনিংসের ব্যাটিংয়ে নেমেছে জিম্বাবুয়ে। কিন্তু প্রথম ইনিংসের মতো দ্বিতীয় ইনিংসেও ভিসু সিবান্দার দলের জন্য মূর্তিমান আতঙ্কে পরিণত হয়েছেন বাংলাদেশ ‘এ’ দলের স্পিনার সাকলাইন সজীব। প্রথম ইনিংসে তিনি দখল করেছিলেন ৯ উইকেট। জিম্বাবুয়ের দ্বিতীয় ইনিংসে ২১.২ ওভার বল করে মাত্র ৫০ রান খরচায় ৬ উইকেট নিয়েছেন সজীব। তার সঙ্গে উইকেট উৎসবে যোগ দিয়েছেন বাংলাদেশের আরেক স্পিনার জুবায়ের হোসেন। ১০ ওভার বল করে মাত্র ১৮ রান খরচায় ৪ উইকেট নিয়েছেন তিনি। এই দুই বাংলাদেশি বোলারের কৃতিত্বে জিম্বাবুয়ে ‘এ’ দলের দ্বিতীয় ইনিংস শেষ হয়ে গেছে ১০৮ রানেই। ফলে জয়ের জন্য বাংলাদেশ ‘এ’ দলের টার্গেট দাঁড়িয়েছে মাত্র ১০৪ রান।

প্রথম ইনিংসে ৮২ রানে ৯ উইকেট নিয়ে অতিথিদের ২০৬ রানে বেঁধে রেখেছিলেন সাকলায়েন। সুবিধাজনক অবস্থানে থেকেও ব্যাটিং ব্যর্থতায় মাত্র ৫ রানের লিড নেয় বাংলাদেশ। বোলিং সহায়ক পিচে আবার স্বাগতিকদের ত্রাতা প্রথম ইনিংসে প্রথম শ্রেণীর ক্রিকেটে বাংলাদেশের কোনো ক্রিকেটার হিসেবে সেরা বোলিংয়ের রেকর্ড গড়া সাকলায়েন। দ্বিতীয় ইনিংসে ৫০ রানে ৬ উইকেট নিয়ে অতিথিদের মাত্র ১০৮ রানে বেঁধে রাখেন এই স্পিনার। পাশাপাশি এই ইনিংসে লেগ স্পিনার জুবায়ের হোসেনের (৪/১৮) সহায়তা পেয়েছেন তিনি। জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে দুই ইনিংসেই ৫ উইকেট নেয়ার কৃতিত্ব দেখালেন এই স্পিনার। এর আগে এক ম্যাচে ১১৩ রানে ১৩ উইকেট প্রাপ্তি ছিল তার সেরা বোলিং। সেটা আরেকটু উজ্জ্বল হল এবার। দুই ইনিংস মিলিয়ে কক্সবাজারে ১৩২ রানে ১৫ উইকেট নেন সাকলাইন।

জয়ের লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে দ্বিতীয় ইনিংসে দিনশেষে বাংলাদেশ ‘এ’ দলের সংগ্রহ দাঁড়িয়েছে ১ উইকেট হারিয়ে ৪৩ রান। ২৭ রান নিয়ে ব্যাট করছেন লিটন দাস। আর ১০ রান নিয়ে তাকে সঙ্গ দিচ্ছেন মার্শাল আইয়ুব।