বুধবার, ১৭ই আগস্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ ২রা ভাদ্র, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

মুঠোফোনে কথা বলার ওপর সারচার্জ বসল

Mobile operatorমুঠোফোনে কথা বলা ও অন্যান্য সেবার জন্য ১ শতাংশ হারে ‘উন্নয়ন সারচার্জ’ আরোপের চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নিল সরকার। এর ফলে মুঠোফোন ব্যবহার করে সেবার জন্য প্রতি ১০০ টাকা খরচ হলে এক টাকা বাড়তি সারচার্জ দিতে হবে।
সচিবালয়ের গতকাল প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত মন্ত্রিসভার বৈঠকে এ প্রস্তাব অনুমোদন করা হয়। প্রস্তাবটি করে অভ্যন্তরীণ সম্পদ বিভাগ। সিদ্ধান্তটি বাস্তবায়ন করবে জাতীয় রাজস্ব বোর্ড।
প্রজ্ঞাপন জারির দিন থেকেই এটি কার্যকর হবে। সিম কার্ড ও রিম কার্ডের জন্য এ সারচার্জ প্রযোজ্য হবে।
সভা শেষে মন্ত্রিপরিষদ সচিব মোহাম্মদ মোশাররাফ হোসাইন ভূইঞা সাংবাদিকদের সভার সিদ্ধান্ত জানান। তিনি বলেন, সারচার্জের টাকা সরকারের শিক্ষা ও স্বাস্থ্য খাতের উন্নয়নে ব্যয় করা হবে। এ সিদ্ধান্ত নেওয়ার আগে এনবিআর মুঠোফোন অপারেটরসহ অংশীজনের সঙ্গে আলোচনা ও পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে এ প্রস্তাব করে।
সম্ভাব্য হিসাবের তথ্য তুলে ধরে মন্ত্রিপরিষদ সচিব বলেন, সারচার্জ বাবদ বছরে সরকারের অতিরিক্ত রাজস্ব আসবে ১৪০ কোটি টাকা। হিসাব করে দেখা গেছে, একজন সিম ব্যবহারকারী গড়ে মাসে ২০০ টাকা খরচ করেন। এ হিসাবে মাসে গড়ে দুই টাকা সারচার্জ হবে।
সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিরা জানিয়েছেন, এ সিদ্ধান্তের ফলে মুঠোফোনে কথা বলার খরচ বাড়বে। এনবিআরসহ সংশ্লিষ্ট সূত্রগুলো জানিয়েছে, প্রি-পেইড মুঠোফোন ব্যবহারকারী কার্ড কেনা বা ফ্লেক্সিলোড করার সময় ১ শতাংশ হারে সারচার্জ আরোপ করা হবে। আর পোস্ট-পেইড ফোন ব্যবহারকারীরা বিল পরিশোধের সময় ১ শতাংশ বাড়তি অর্থ দেবেন। বর্তমানে দেশে প্রায় সাড়ে ১১ কোটি মুঠোফোন ব্যবহারকারী রয়েছেন।
এনবিআর সূত্র জানায়, খরচের ওপর সারচার্জ আরোপ করায় ভিন্ন আঙ্গিকে এ অর্থ কাটবে এনবিআর। নতুন নিয়ম কার্যকর হলে এক শ টাকার রিচার্জ বা ফ্লেক্সিলোড করলে একজন মুঠোফোন ব্যবহারকারী ৮৪ টাকার টক টাইম পাবেন। ১৫ শতাংশ মূল্য সংযোজন কর (মূসক) কেটে রাখার পর বর্তমানে তিনি ৮৫ টাকার টক টাইম পান। নতুন নিয়মে মূসকের পাশাপাশি ১ শতাংশ সারচার্জ কেটে রাখা হবে। এতে ফোনে কথা বলায় খরচ বাড়বে। ইন্টারনেট ব্যবহার করার জন্য রিচার্জ করলেও সারচার্জ আরোপ হবে। তবে এনবিআর সরাসরি ফোন ব্যবহারকারীর কাছ থেকে টাকা কেটে রাখবে না। মুঠোফোন অপাটেররা কার্ড কেনা বা ফ্লেক্সিলোড করার সময় মূসক ও সারচার্জ কেটে রেখে টক টাইম দেবে। পরে ওই অর্থ এনবিআরের কোষাগারে জমা দেবে মুঠোফোন অপারেটর প্রতিষ্ঠানগুলো।
চলতি ২০১৪-১৫ অর্থবছরের বাজেট পাস হওয়ার দিন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তাঁর বক্তৃতায় মুঠোফোন ব্যবহারকারীদের ওপর সারচার্জ আরোপের প্রস্তাব করেন। কিন্তু তাৎক্ষণিকভাবে ওই ধরনের প্রস্তাব পাস করার প্রয়োজনীয় প্রস্তুতি এনবিআরের ছিল না। গতকাল তা চূড়ান্ত হলো।