রবিবার, ২১শে জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ ৬ই শ্রাবণ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

পৌরসভার ময়লা-আবর্জনা ফেলে পরিবেশ নষ্ট

smolব্রাহ্মণবাড়িয়া পৌরসভার পৈরতলা,বর্ডার বাজার ও শেরপুর এলাকায় কুমিল্লা-সিলেট মহাসড়কের পাশে খোলা জায়গায় পৌরসভার ময়লা-আবর্জনা ফেলায় ওই এলাকাগুলোর আবহাওয়া বিষাক্ত হয়ে উঠেছে।ফলে ওই এলাকার বড় বড় গাছ মরে কাঠ হয়ে যাচ্ছে। পাশাপাশি সেখানকার বাসিন্দারা আগের তুলনায় এখন বেশি রোগে ভুগছেন।রাস্তার পাশের ব্যবসায়ীরা ময়লার গন্ধে সস্থিতে ব্যবসা করতে পারছেননা।
সরেজমিনে গিয়ে এই প্রতিবেদক দেখেন,পৈরতলা ব্রীজ থেকে শেরপুর পর্য্যন্ত রাস্তার দুই পাশে ময়লা আবর্জনার স্থুপ।রাস্তা দিয়ে হেটে গেলে মানুষের শ্বাস কষ্ট হয়।এলাকাবাসী জানায়,মহাড়ককের এই অংশে আগে অন্তত ৫০টি বড় গাছ থাকলেও সেই গাছ মরে এখন আছে মাত্র ১০/১২টি।
পৈরতলা গ্রামের আলমগীর বলেন,ব্রাহ্মণবাড়িয়া পৌরসভা বিশাল এলাকা হওয়া সত্বেও এর ময়লা-আবর্জনা ফেলার কোন নির্দিষ্ট স্থান নেই।ফলে পৌরসভার কর্মীরা যত্রতত্র ময়লা ফেলে পরিবেশ নষ্ট করছে।
ব্রাহ্মণবাড়িয়া বন বিভাগের সহকারী সংরক্ষক এনামুল হক বলেন,গাছে নিয়মিত বিষাক্ত মাটির ছোয়া ও বিষাক্ত আবহাওয়া লাগায় ওই এলাকার গাছগুলো ধীরে ধীরে মরে যাচ্ছে।
ব্রাহ্মণবাড়িয়া পৌরসভার মেয়র মোঃ হেলাল উদ্দিন বলেন,শহরের (পৌরসভার)ময়লা আবর্জনা ফেলার জন্য নির্দিষ্ট কোন স্থান সরকার থেকে আমাদেরকে দেওয়া হয়নি।তাই বধ্য হয়েই আমরা যত্রতত্র ময়লা ফেলছি।তবে একটি বড় ডাম্পিং স্পটের জন্য আমরা সরকারের কাছে আবেদন করেছি।