শনিবার, ২৫শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ ১১ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

যৌতুকের জন্য নির্যাতনের শিকার আকলিমা আক্তার

nirjatonব্রাহ্মণবাড়িয়ার কসবায় যৌতুকের জন্য এক মুক্তিযোদ্ধার মেয়ে তাঁর শ্বশুর-শাশুড়ির নির্যাতনের শিকার হয়েছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। আর মেয়েকে বাঁচাতে গিয়ে মা-বাবাও শ্বশুরবাড়ির লোকজনের নির্যাতনের শিকার হন। নির্যাতিত পরিবারের অভিযোগ, থানায় অভিযোগ করা হলেও পুলিশ মামলা নিচ্ছে না।
এলাকাবাসী জানান, কসবা উপজেলার কুইয়া পানিয়া গ্রামের মুক্তিযোদ্ধা আবু তাহেরের মেয়ে আকলিমা আক্তারের সঙ্গে ১২ বছর আগে দক্ষিণ কসবা গ্রামের আবদুল মতিনের ছেলে আবুল বাশারের বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকেই যৌতুকের জন্য শ্বশুর-শাশুড়ি আকলিমাকে মারধর করতেন। এ ঘটনায় এলাকায় একাধিকবার সালিস হয়। সর্বশেষ গত ২০ মে স্থানীয় দুজন কাউন্সিলরকে নিয়েও একটি সালিস হয়।
আকলিমা অভিযোগ করেন, ১৫ আগস্ট প্রবাসী স্বামীর মুঠোফোনে দেওয়া নির্দেশে তাঁর শ্বশুর, শাশুড়ি, দেবর ও ননদ দুই লাখ টাকা যৌতুক দাবি করেন। পরে তাঁরা তাঁকে নির্যাতন করে ঘরে আটকে রাখেন। সংবাদ পেয়ে আকলিমার বাবা ও মা তাঁকে উদ্ধার করতে এলে তাঁরাও নির্যাতনের শিকার হন। পরে লোকজন তাঁদের উদ্ধার করে কসবা হাসপাতালে ভর্তি করেন। এ ঘটনায় ওই দিনই আকলিমা বাদী হয়ে ছয়জনের বিরুদ্ধে অভিযোগ দিলেও পুলিশ তা মামলা হিসেবে গ্রহণ করেনি।
আকলিমার শ্বশুর গতকাল বৃহস্পতিবার দাবি করেন, আকলিমার অভিযোগ সম্পূর্ণ মিথ্যা।
মামলা না নেওয়া প্রসঙ্গে উপপরিদর্শক আশরাফ কামাল জানান, বিষয়টি সামাজিকভাবে সমাধানের চেষ্টা চলছে। সমাধান না হলে মামলা নেওয়া হবে

এ জাতীয় আরও খবর

ঈদের পর শনিবার শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলা নিয়ে যা জানালেন শিক্ষামন্ত্রী

‘নেতানিয়াহুকে গ্রেপ্তার’ দাবিতে বাংলাদেশের সমর্থন আছে

এমপি আনার হত্যায় ৮ দিনের রিমান্ডে তিন আসামি

আইনমন্ত্রী আনিসুল হক হাসপাতালে ভর্তি

ফাইনাল কলকাতার প্রতিপক্ষ হায়দরাবাদ

সরকার আজিজ ও বেনজীরের দুর্নীতির অংশীদার: দুদু

সাগরতলে ১৭ বিলিয়ন ডলারের ধনরত্ন

বান্দরবানে সীমান্তে মাইন বিস্ফোরণ, বাংলাদেশি যুবকের পা বিচ্ছিন্ন

ঘূর্ণিঝড় ‘রেমাল’ প্রবল হয়ে আঘাত হানতে পারে রোববার সন্ধ্যায়

জিহাদকে নিয়ে আনারের দেহাংশের খোঁজ চলছে ভাঙ্গরে

এবার সোমালি জলদস্যুদের কবলে এমভি ব্যাসিলিস্ক

‘বাবার লাশের ছোট্ট টুকরো হলেও স্পর্শ করতে চাই’