শনিবার, ২০শে জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ ৫ই শ্রাবণ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

এক নম্বরে আমলারা

image_92405_0

কলম্বো: অবিশ্বাস্য টেস্ট বাঁচাল দক্ষিণ আফ্রিকা৷ নিজেদের ক্রিকেট ইতিহাসে অন্যতম ধীর গতির ইনিংস খেললেন হাসিম আমলারা৷ প্রায় ছয় ঘণ্টার লড়াই করে ১১১ ওভার খেলে করল মাত্র ১৫৯ রান! উইকেট পড়েছে আটটি৷ ড্র হয়ে যাওয়ায় শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে দুই টেস্টের সিরিজ ১-০ জিতে নিল দক্ষিণ আফ্রিকা, ১৯৯৩ সালের পর এই প্রথম৷ সিরিজ জিতে টেস্ট র‌্যাঙ্কিংয়ে একে উঠে এলো তারা৷ ছিনিয়ে নিল অস্ট্রেলিয়ার জায়গা৷



৩৮ রানে এক উইকেট হাতে নিয়ে পঞ্চম দিন খেলতে নেমেছিল দক্ষিণ আফ্রিকা৷ প্রথম

দক্ষিণ আফ্রিকা ক্রিকেট দল

থেকেই ম্যাচ বাঁচানোই লক্ষ্য ছিল৷ কিন্ত্ত একসময় ১৪৮ রানে আট উইকেট পড়ে যায় তাদের৷ তখনও বাকি ছিল ৮ ওভার৷ মাঠে থাকা সমর্থকরা তখন চাইছিলেন হয় বৃষ্টি আসুক, নয় কম আলোর জন্য ম্যাচ শেষ করে দিন আম্পায়ার৷ শেষ দুটো উইকেট নিতে শ্রীলঙ্কা অধিনায়ক অ্যাঞ্জেলো ম্যাথাউস অফ সাইডে ছয় জন ফিল্ডার দাঁড় করিয়ে দিয়েছিলেন৷ কিন্ত্ত মাটি কামড়ে পড়ে থাকলেন ফিল্যান্ডার৷ ৯৮ বল খেলে ২৭ রানে অপরাজিত তিনি৷ তার সঙ্গে ছিলেন ইমরান তাহির (২১ বলে ৪)৷ তাদের আগে বড় ধৈর্য্যের পরীক্ষা দিয়ে যান অধিনায়ক হাসিম আমলা (১৫৯ বলে ২৫), দুমিনি (৬৫ বল খেলে ৩), স্টেইন (২৮ বলে ৬)৷



চেষ্টার ত্রুটি করেননি শ্রীলঙ্কার দুই বোলার রঙ্গনা হেরাথ এবং দিলরুয়ান পেরেইরা৷ হেরাথ ৪৫ ওভার বল করে, ৩০ ওভার মেডেন দিয়ে ৪০ রানে পান পাঁচ উইকেট৷ পেরেইরা তিন৷ কিন্ত্ত শেষবেলায় মাত্র দু'জন ব্যাটসম্যানকে আউট করতে পারলেন না তারা৷ তবে টেনশনের অভাব ছিল না৷ নাটকীয় ম্যাচ বাঁচিয়ে জয়ের আনন্দে ভেসে যায় 'টিম দক্ষিণ আফ্রিকা৷'



সংক্ষিপ্ত স্কোর: শ্রীলঙ্কা: ৪২১ ও ২২৯-৮; দক্ষিণ আফ্রিকা: ২৮২ ও ১৫৯-৮ (ফিল্যান্ডার ২৭, হেরাথ ৫-৪০, পেরেইরা ৩-৬০)