মঙ্গলবার, ২১শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ ৭ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

মালয়েশিয়ার বিধ্বস্ত বিমানের কেউ বেঁচে নেই

biman-300x168পূর্ব ইউক্রেনে রাশিয়ার সীমান্তবর্তী গ্রামে ২৯৫ জন আরোহী নিয়ে মালয়েশিয়ার একটি বিমান বিধ্বস্ত হয়েছে। আরোহীদের কেউই বেঁচে নেই। বিমানটিকে মিসাইল হামলা করে বিধ্বস্ত করারও অভিযোগ উঠেছে। এই ঘটনায় ইউক্রেন সরকার এবং ইউক্রেনের পূর্বাঞ্চলে লড়াইরত রুশপন্থী বিদ্রোহী বাহিনী একে অন্যকে দুষছে ।

তবে, বিমানটিকে প্রকৃতই ভূপাতিত করা হয়েছে কিনা এ বিষয়ে এখনো কিছু জানা যায়নি। বিমানটি আমস্টারডাম থেকে কুয়ালালামপুরে যাচ্ছিলো। রাশিয়ার সীমান্তবর্তী গ্রাম গ্রাবোভো, যেটি নিয়ন্ত্রণ করছে ইউক্রেনের বিচ্ছিন্নতাবাদী বিদ্রোহীরা, সেখানে বিমানটি বিধ্বস্ত হবার পর ইউক্রেনের সরকার দাবী করেছে, বিমানটিকে মিসাইল হামলা করে ভূপাতিত করেছে রুশপন্থী বিদ্রোহীরা। কিন্তু ইউক্রেনের এই দাবী নাকচ করে বিদ্রোহীরা পাল্টা অভিযোগে বলেছে, ইউক্রেনের বিমানবাহিনীই বিমানটিকে বিধ্বস্ত করেছে। তবে, বিমানটি বিধ্বস্ত হবার কোনো প্রকৃত কারণ এখনো জানা যায় নি।
মালয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রী নজিব রেজাক বলেছেন, ঘটনার হবার প্রকৃত কারণ তারা অবশ্যই খুঁজে বের করবেন।
ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট পেড্রো পোরোশেঙ্কো বলেছেন, এটি কোনো দুর্ঘটনা নয়, বরং এটি একটি সন্ত্রাসী কর্মকা-।
ইউক্রেনের পররাষ্ট্রমন্ত্রী পাভলো ক্লিমকিন দাবি করেছেন, বিমানটি যে রুশপন্থীরাই বিধ্বস্ত করেছে এর প্রমাণ হিসেবে তাদের কাছে একটি ফোনালাপ রয়েছে।
তিনি বলছেন “বিমানটি ভূপাতিত করার বিষয়ে বিদ্রোহীরা যখন ফোনে কথা বলছিল তখনকার একটি অডিও আমরা পেয়েছি।
আমরা এখন তাদের সেই আলাপ অনুবাদ করছি এবং খুব শীগগিরই এটিকে আমরা ইন্টারনেটে প্রকাশ করবো”।
বিমানটিকে লক্ষ্য করে রাশিয়ার দিক থেকে মিসাইল ছোঁড়া হচ্ছে এমন একটি ভিডিও— যা অস্পষ্ট এবং অপেশাদার লোকের তোলা— প্রকাশ করেছে ইউক্রেনে গণমাধ্যম। কিন্তু ভিডিওটির কোনো সত্যতা পাওয়া যায় নি।
এই অভিযোগের জবাবে রুশপন্থী বিদ্রোহীদের একজন মুখপাত্র সের্গেই কাভটারাদজে বলেছেন, এত উঁচুতে বিমান বিধ্বস্ত করার প্রযুক্তি ইউক্রেনের বিমান বাহিনীরই আছে, তাদের নয়।
এখানে তিনি বলছেন, আমাদের কাছে যে প্রযুক্তি আছে তা দিয়ে আমরা কেবল তিন কি চার হাজার মিটার উঁচুতে ব্যবস্থা নিতে পারি। কিন্তু যে বিমানটি বিধ্বস্ত হয়েছে সেটি ছিল প্রায় দশ হাজার মিটার উঁচুতে।
একমাত্র ইউক্রেনের বিমানবাহিনীর পক্ষেই এই বিমান ধ্বংস করা সম্ভব; আমাদের পক্ষে নয়। এই ঘটনায় মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা বলেছেন, ঘটনার সত্যতা উদঘাটন করতে ইউক্রেন সরকারকে যে কোনো সহায়তা দিতে তারা প্রস্তুত। নেদারল্যান্ডস-এর রাজধানী অ্যামস্টারডাম থেকে মালয়েশিয়ার কুয়ালালামপুরে যাবার পথে ইউক্রেনের পূর্বাঞ্চলে বিধ্বস্ত হয় বোয়িং এমএইচ১৭। বিমানটিতে ডাচ, অস্ট্রেলিয়া, মালয়েশিয়া, ইন্দোনেশিয়া, ব্রিটেন ও জার্মানসহ মোট নয়টি দেশের নাগরিক ছিল।বিবিসি

এ জাতীয় আরও খবর

মেয়রের সামনে কাউন্সিলরকে জুতাপেটা করলেন চামেলী!

নেতানিয়াহুর বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানার আবেদন

নির্বাচনের পর আরও ভয়ঙ্কর হয়ে উঠেছে সরকার : ফখরুল

২৪ উপজেলায় ইভিএমে ভোট হবে মঙ্গলবার

এলজিইডি’র সেই প্রকৌশলীর স্ত্রীরও ৬ কোটি টাকার অবৈধ সম্পদ!

রাইসির হেলিকপ্টার দুর্ঘটনায় আমরা জড়িত নই: ইসরায়েলি কর্মকর্তা

কঠোরভাবে বাজার মনিটরিংয়ের নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর

‘গিভ অ্যান্ড টেকের অফার অনেকেই দেয়, মেডিকেলের স্যারও দিয়েছিল’

বিয়ের পর আমার কাজের মান ভালো হয়েছে

৪ দিনেও খোঁজ মেলেনি ভারতে নিখোঁজ এমপি আনারের

বঙ্গবন্ধু শান্তি পদক দেবে সরকার, পুরস্কার কোটি টাকা ও স্বর্ণ পদক

অটোরিকশা চালকদের তাণ্ডবের ঘটনায় ৪ মামলা, আসামি প্রায় ২৫০০