শুক্রবার, ৩১শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ ১৭ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

‘কাবা ধ্বংসের হুমকির পরই সীমান্তে সৌদি সেনা মোতায়েন’

tahran khatibইরানের বিশিষ্ট আলেম ও তেহরানের জুমা নামাজের অস্থায়ী খতিব আয়াতুল্লাহ মুহাম্মাদ আলী মুওয়াহহিদি কিরমানি বলেছেন, ফিলিস্তিনে ইহুদিবাদী ইসরাইলের অপরাধযজ্ঞ থেকে জনগণের দৃষ্টিকে আড়াল করার জন্যই সৃষ্টি করা হয়েছে সন্ত্রাসী গ্রুপ আইএসআইএল এবং ইসরাইল বিরোধী শক্তিগুলোকে টার্গেট করাও এই গ্রুপের আরেকটি বড় লক্ষ্য।
তিনি আজ তেহরানের জুমা নামাজের খোতবায় এইসব মন্তব্য করেছেন।
আয়াতুল্লাহ কিরমানি মুসলিম দেশগুলোতে আইএসআইএল-এর সন্ত্রাসী অপরাধযজ্ঞের তীব্র নিন্দা জানান ও গ্রুপটিকে সাম্রাজ্যবাদী শক্তিগুলোর অনুচর ও বিশ্বের নিরাপত্তার জন্যও হুমকি বলে উল্লেখ করেন।
তিনি আইএসআইএল- এর আবু তুরাব মুকাদ্দেসি নামের এক নেতার হুমকির কথাও তুলে ধরে জানান যে, ওই সন্ত্রাসী বলেছে, তারা পবিত্র মক্কা দখলে নিয়ে কাবা ঘর ধ্বংস করে দেবে, কারণ, এই ঘরে মুসলমানরা পাথরের পূজা বা ইবাদত করে!-আর এই হুমকির পরই তাদেরই ম“দাতা সৌদি সরকার ইরাক সীমান্তে ত্রিশ হাজার সেনা মোতায়েন করেছে।
আয়াতুল্লাহ কিরমানি বলেছেন, সাম্রাজ্যবাদীরা ভাবছে আইএসআইএল-এর মত সন্ত্রাসী গ্র“প লেলিয়ে দিয়ে ইসলাম ও ইরানের ইসলামী বিপ্লবের প্রভাবকে রুখতে পারবে, কিন্তু তাদের এই দুরাশা পূরণ হয়নি।
তিনি বলেছেন, আধিপত্যকামী শক্তিগুলো সব উপায়-উপকরণ নিয়ে ইসলামের বিরুদ্ধে যুদ্ধে নেমেছে; আজকাল ইরাকে যা ঘটছে তা শিয়া-সুন্নির দ্বন্দ্ব নয় বরং মানুষকে হত্যা ও মানুষকে সহায়তার মধ্যে দ্বন্দ্ব।
আয়াতুল্লাহ কিরমানি আইএসআইএল-এর সন্ত্রাসীদেরকে নানা অঞ্চলে বিতাড়িত করার ক্ষেত্রে ইরাকি জনগণের সহায়তাপুষ্ট সরকারি সেনাদের সাম্প্রতিক নানা সাফল্যের কথা তুলে ধরে বলেছেন, এইসব সাফল্যের পেছনে ইরাকের ধর্মীয় নেতাদের ফতোয়ার রয়েছে গুরুত্বপূর্ণ প্রভাব।
আয়াতুল্লাহ কিরমানি আইএসআইএল-এর অমানবিক পদক্ষেপগুলোর নিন্দা জানাতে ও তাদের হাত থেকে ইরাকি জনগণকে উদ্ধার করার কার্যকর উপায় বের করতে জাতিসংঘ, জোটনিরপেক্ষ আন্দোলন এবং ইসলামী সহযোগিতা সংস্থা ও আরব লীগসহ আন্তর্জাতিক সংস্থাগুলোর কাছে আবেদন জানিয়েছেন।
তিনি বলেন, সাম্রাজ্যবাদী শক্তিগুলো ও ইহুদিবাদী ইসরাইল ইসলামকে একটি হিংস্র ধর্ম হিসেবে তুলে ধরার জন্য মুসলমানদেরকে সন্ত্রাসের শিকারে পরিণত করেছে ; কিন্তু ইসলাম সম্পর্কে আতঙ্ক ছড়িয়ে দেয়ার যে চেষ্টা তারা করছে তা বিশ্বের শান্তি ও নিরাপত্তাসহ সবগুলো ধর্মের জন্যই হুমকি।
আয়াতুল্লাহ কিরমানি ইসলামের শত্রুদের সৃষ্ট বিভেদকামী গ্র“পগুলোর মোকাবেলায় ঐক্যবদ্ধ থাকতে বিশ্বের সব দেশের সব মাজহাবের মুসলমানদের প্রতি আহ্বান জানান।
তিনি বলেন, ইসলামের শত্রু পাশ্চাত্য এইসব সন্ত্রাসী গ্র“প সৃষ্টি করে একদিকে মুসলিম বিশ্বের অস্ত্রসহ নানা পণ্যের বাজার গড়ে তুলছে এবং অন্যদিকে তাদের তেল-সম্পদ শোষণ করছে।
মুসলিম বিশ্বে প্রতিরোধ ও শাহাদতের সংস্কৃতি থাকায় ইসলাম-বিদ্বেষী সাম্রাজ্যবাদীদের সব চক্রান্ত ব্যর্থ হয়ে গেছে বলে আয়াতুল্লাহ কিরমানি মন্তব্য করেন।

 

এ জাতীয় আরও খবর

নজরুল পুরস্কার পেলেন চার গুণী

জামানত হারিয়েছেন ওবায়দুল কাদেরের ভাই শাহাদাত

ভিসা হয়নি ২৯২ হজযাত্রীর, ৯ এজেন্সির ব্যাখ্যা তলব

শাকিবের জীবনে প্রথম প্রেমিকা আমি : অপু বিশ্বাস

সাকিবের দলে খেলবেন মিলার

র‍্যাবের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার উত্তম কুমারের দেশত্যাগে নিষেধাজ্ঞা

বেনজীরের বিরুদ্ধে টাকা সরানোর প্রমাণ পেয়েছে দুদক

ঈদযাত্রায় একদিন একটু কষ্ট হলে কী আসে-যায়: কাদের

ফরিদপুর-১ আসনের সাবেক এমপি মনজুর হোসেন আর নেই

দস্যুতা না ছাড়লে দুঃসংবাদের খবর দিলেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

‘দেশের সবচেয়ে লাভজনক’ কক্সবাজার স্পেশাল ট্রেন বন্ধ

সরকারের স্বার্থ নয়, জনগণের অধিকার নিশ্চিতে কাজ করব : ইসির নতুন সচিব