বুধবার, ২১শে এপ্রিল, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ ৮ই বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

তারেক জিয়ার মিশন মালয়েশিয়া সিঙ্গাপুর ও থাইল্যান্ড

download

এম.আমজাদ চৌধুরী রুনু, কুয়ালালামপুর মালয়েশিয়া থেকেঃ র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ান র‌্যাব বিলুপিÍর দাবিতে প্রবাসে জনমত তৈরির অংশ হিসেবে এবং দলের সাংগঠনিক স্থবিরতায় জর্জরিত বিএনপিকে চাঙ্গা করার মিশন নিয়ে লন্ডন ছেড়ে  মালয়েশিয়া গেছেন বিএনপির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমান। মালেয়েশিয়ার রাজধানী কুয়ালালামপুরে তারেক রহমানের আগমণে বিএনপি ও  তার অঙ্গ সংগটন দু, দিনের কর্মসূচী হাতে নিয়েছে। দু, দিনের কর্মসূচীকে সফল করতে মালয়েশিয়া বিএনপির নীতিনির্ধারকরা প্রাণপণ চেষ্টা চালিয়েছেন। আগামী ১১জুন কুয়ালালামপুরের ওরিয়েন্টাল হোটেলের বলরুমে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ান র‌্যাব বিলুপিÍর দাবিতে প্রবাসে জনমত তৈরির অংশ হিসেবে গণ সাক্করের উদ্বোধন করবেন বিএনপির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমান এবং ৮ জুন জাতীয়তাবাদী যুবদল মালয়েশিয়া শাখার উদ্যোগে  গিতা আছলী হল হল রুমে এক কর্মী সমাবেশের আয়োজন করেছে। এ কর্মী সমাবেশে উপস্তিত থাকবেন, কেন্দ্রীয় বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান শাহ মুয়াজ্জেম হোসেন, মালয়েশিয়া বিএনপির সাবেক সভাপতি ড. আহমেদ বুরহান, কেন্দ্রীয় যুবদলের সিনিয়র সহ সভাপতি এ্যাডভোকেট আব্দুছালাম আজাদ, সহ সভাপতি সেলিমুজ্জামান সেলিম, মীর রবিউল ইসলাম লাভলু, কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক আ খ ম মোজাম্মেল হক, দাতু আলম মজুমদার, কেন্দ্রীয় সেচ্ছা সেবক দলের সহ সভাপতি ও মালয়েশিয়া বিএনপির আহবায়ক মাহবুব আলম শাহ, সদস্য সাচব মোর্শারাফ হোসেন, মালয়েশিয়া বিএনপির সাবেক সাধারণ সম্পাদক তালহা মাহমুদ, মালয়েশিয়া যুবদলের সাধারণ সম্পাদক রফিকুল ইসলাম ইলিয়াছ। একাধিক সূত্রে জানা গেছে, তারেক মালয়েশিয়ায় ১১জুন পর্যন্ত অবস্থান করে পাশের দেশ সিঙ্গাপুর যাবেন। সেখানে বিএনপির চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার সঙ্গে বৈঠক করবেন তিনি। মায়ের সঙ্গে বৈঠককালে তারেক রহমান আগস্টের মধ্যে বিএনপি ও এর অঙ্গ সংগঠনগুলো পুনর্গঠন এবং অক্টোবর থেকে মধ্যবর্তী নির্বাচনের জন্য আন্দোলন শুরুর ব্যাপারে সিদ্ধান্তে পৌঁছবেন। ২জুন সোমবার স্থানীয় সময় দুপুর ৩টায় স্ত্রী ডা. জোবায়দা রহমান ও মেয়ে জাইমা রহমানকে নিয়ে তারেক মালয়েশিয়ার কুয়ালালামপুর বিমানবন্দরে পৌঁছান। সেখানে তাকে স্বাগত জানান মালয়েশিয়া সরকারের কমিউনিকেশন ও মাল্টিমিডিয়া মন্ত্রণালয়ের মহাসচিব দাতো আবদুর রহিম রাজি এবং তারেক রহমানের ব্যক্তিগত কর্মকর্তা মিয়া নূর উদ্দীন অপু। জানা গেছে, তারেক কুয়ালালামপুরের জালান কিয়া পেং এ প্রিন্স কোর্ট মেডিকেল সেন্টারে চেকআপ করাবেন। বিএনপির উচ্চ পর্যায়ের এক সূত্র জানান, তারেকের মালয়েশিয়া অবস্থানকালেই খালেদা জিয়া মেডিকেল চেকআপ করতে এই সময়ের মধ্যে সিঙ্গাপুর সফর করবেন। তার সঙ্গে বৈঠক করতে মালয়েশিয়া থেকে সিঙ্গাপুর যাবেন তারেক রহমান।  একটি সূত্রে জানাগেছে, দল পরিচালনা ও সরকারবিরোধী আন্দোলনের কৌশল নির্ধারণে এতদিন তারেক টেলিফোনে মা খালেদা জিয়ার সঙ্গে 

আলোচনা করছিলেন। তবে বছর শেষে মধ্যবর্তী নির্বাচন নিশ্চিত করতে দল পুনর্গঠন ও আন্দোলনের কৌশল নির্ধারণ করতে গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্তে উপনীত হতে এবার সরাসরি সাক্ষাতে মায়ের সঙ্গে কথা বলবেন তারেক। উল্লেখ্য, তারেক রহমান ২০০৮ সালের ১২ সেপ্টেম্বর চিকিৎসার জন্য লন্ডন যান। প্রায় পাঁচ বছর পর গত বছরের ১ এপ্রিল প্রথমবারের মতো তিনি লন্ডনের বাইরে ওমরাহ পালন করতে সৌদি আরব যান। সাম্প্রতিক মাসগুলোতে তারেক তার বাবা জিয়াউর রহমানকে বাংলাদেশের প্রথম রাষ্ট্রপতি ও স্বাধীনতার ঘোষক দাবি করে বক্তব্য দেন। এ সময় দেশের স্বাধীনতাকালে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ভূমিকা নিয়ে তার কঠোর সমালোচনাও করেন তারেক। তারেকের বক্তব্যকে কেন্দ্র করে গত কয়েক মাস ধরে প্রবাসে ও বাংলাদেশে তুমুল বিতর্ক চলছে।