সোমবার, ২৭শে জুন, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ ১৩ই আষাঢ়, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

পরিনীতির ‘খান’ বিভ্রাট!

বলিউডের প্রভাবশালী তিন তারকা অভিনেতা সালমান খান, আমির খান ও শাহরুখ খানের সঙ্গে অভিনয়ের জন্য মুখিয়ে থাকেন বলিউডের প্রায় সব অভিনেত্রী। অথচ তুমুল জনপ্রিয় এ তিন অভিনেতার সঙ্গে নাকি কাজ করতে আগ্রহী নন ‘ইশকজাদে’ তারকা পরিনীতি চোপড়া। সম্প্রতি এমন খবর প্রকাশিত হওয়ায় বলিউডে হইচই পড়ে যায়। পরিনীতির মন্তব্যের সূত্র ধরে খবরটি চাউর হলেও তিনি দাবি করেছেন, তাঁর মন্তব্যকে ভুলভাবে উপস্থাপন করা হয়েছে গণমাধ্যমে।



এ প্রসঙ্গে পরিনীতির ভাষ্য, ‘একটি সাক্ষাত্কারে আমার করা মন্তব্যকে ভুলভাবে উপস্থাপন করা হয়েছে গণমাধ্যমে। আমার মন্তব্যকে বিকৃত ও অতিরঞ্জিত করে এ ধরনের বানোয়াট খবর রটানো হয়েছে।’ সম্প্রতি এক খবরে এমনটিই জানিয়েছে ওয়ান ইন্ডিয়া।



পরিনীতি আরও বলেন, ‘সাক্ষাত্কারের একপর্যায়ে আমাকে প্রশ্ন করা হয়, সিনিয়র অভিনেতাদের সঙ্গে ছবিতে কাজের প্রস্তাব আমি পেয়েছি কি না। জবাবে আমি বলি, হ্যাঁ পেয়েছি। কিন্তু ছবিগুলোতে অভিনয়ের সুযোগ কম থাকায় আমি প্রস্তাবগুলো ফিরিয়ে দিয়েছি। আমি নির্দিষ্ট করে কোনো অভিনেতার নাম উল্লেখ করিনি।’



মাত্র তিন বছর আগে বলিউডে পা রেখেছেন পরিনীতি। কাজেই শাহরুখ, সালমান ও আমির খানের মতো প্রভাবশালী তারকাদের সঙ্গে কাজে আগ্রহী নন—এমন ধৃষ্টতাপূর্ণ মন্তব্য করা তাঁর পক্ষে সম্ভব নয় বলেই জানিয়েছেন পরিনীতি। এ প্রসঙ্গে ২৫ বছর বয়সী পরিনীতির ভাষ্য, ‘এ ধরনের সংবেদনশীল মন্তব্য করা আমার পক্ষে কোনোভাবেই সম্ভব নয়। কারণ আমি বলিউডে একদমই নতুন।’



২০১১ সালে ‘লেডিস ভার্সেস রিকি বেহেল’ ছবির মাধ্যমে বলিউডে যাত্রা শুরু করেন পরিনীতি। প্রথম ছবিতেই তাঁর সাবলীল অভিনয় প্রশংসিত হয় বিভিন্ন মহলে। ছবিটির জন্য সেরা নবাগত অভিনেত্রী হিসেবে ফিল্মফেয়ার পুরস্কারও অর্জন করেন তিনি।



প্রথম ছবির সাফল্যের পর ‘ইশকজাদে’ (২০১২), ‘শুদ্ধ দেশি রোমান্স’ (২০১৩) ও ‘হাসি তো ফাঁসি’ (২০১৪) ছবিগুলোতেও পরিনীতির পরিণত অভিনয় মুগ্ধ করে দর্শকদের। সামনে মুক্তির অপেক্ষায় রয়েছে তাঁর অভিনীত ‘দাওয়াত-এ-ইশক’ ও ‘কিল দিল’ ছবিগুলো। বর্তমানে ছবি দুটির শুটিং নিয়ে ব্যস্ত সময় পার করছেন তিনি। ‘দাওয়াত-এ-ইশক’ ছবিতে ‘আশিকি ২’ তারকা আদিত্য রয় কাপুরের সঙ্গে জুটি বেঁধেছেন পরিনীতি। আর যশরাজ ফিল্মসের ‘কিল দিল’ ছবিতে পরিনীতির সঙ্গে অভিনয় করছেন রণবীর সিং, আলী জাফর ও গোবিন্দ।