শুক্রবার, ১লা জুলাই, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ ১৭ই আষাঢ়, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

ভারতে দুই কিশোরী গণধর্ষণ ও হত্যা অপরাধীদের প্রকাশ্যে ফাঁসির দাবি স্বজনদের

ভারতের উত্তর প্রদেশের বদাউন জেলায় দলিত সম্প্রদায়ের দুই কিশোরীকে গণধর্ষণের পর গাছে ঝুলিয়ে হত্যার ঘটনায় জড়িত ব্যক্তিদের প্রকাশ্যে ফাঁসির দাবি তুলেছেন দুই কিশোরীর স্বজনেরা।



পিটিআইকে দেওয়া এক সাক্ষাত্কারে গণধর্ষণ ও হত্যার শিকার এক কিশোরীর বাবা বলেছেন, ২০১২ সালের ১৬ ডিসেম্বর নয়াদিল্লিতে মেডিকেলছাত্রীকে গণধর্ষণের যে ঘটনা ভারতজুড়ে তোলপাড় সৃষ্টি করেছে, এবারের ঘটনা তার চেয়েও ভয়াবহ। তিনি বলেন, ‘আমাদের নিষ্পাপ মেয়েদের ঝুলিয়ে হত্যা করার যে দৃশ্য পৃথিবী প্রত্যক্ষ করেছে, আমরা চাই অপরাধীদেরও একইভাবে হত্যার দৃশ্য মানুষ দেখুক। তাদের প্রকাশে ঝুলিয়ে হত্যা করা উচিত।’



এ ঘটনায় ভারতের কেন্দ্রীয় তদন্ত সংস্থার (সিবিআই) তদন্ত ও অপরাধীদের সর্বোচ্চ শাস্তি দাবি করেছেন ওই কিশোরীর বাবা।



ধর্ষণ ও হত্যার শিকার দুই কিশোরীর পরিবারকে ক্ষতিপূরণ দেওয়ার ঘোষণা দিয়েছেন উত্তর প্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী অখিলেশ যাদব। তবে দুই কিশোরীর একজনের বাবা বলেছেন, ‘আমরা ক্ষতিপূরণ চাই না। ন্যায়বিচার চাই।’ রাজ্য সরকারের প্রতিশ্রুতি ও ঘোষণায় তাঁদের বিশ্বাস নেই বলে জানান তিনি।



এদিকে, প্রাথমিক এজাহারে নাম উল্লেখ করা পাঁচ আসামিকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। এদের মধ্যে সারভেশ যাদব ও ছত্রপাল নামের পুলিশের দুজন কনস্টেবল রয়েছেন। এ ছাড়া পাপ্পু যাদব, আওয়াদেশ যাদব ও উরভেশ যাদব নামে তিন ভাইকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। এজাহারে অজ্ঞাতনামা আরও দুই ব্যক্তির কথা উল্লেখ করা হয়েছে।



২৭ মে রাতে নিজ বাড়ি থেকে নিখোঁজ হয় বদাউন জেলার কারতা গ্রামের দুই কিশোরী। এদের একজনের বয়স ১৪ ও অপরজনের ১৫। তারা পরস্পর আত্মীয়। এর পরদিন অর্থাত্ ২৮ মে ওই গ্রামেরই একটি আমগাছ থেকে ওই দুই কিশোরীর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করা হয়। ময়নাতদন্ত প্রতিবেদন বলছে, ওই দুই কিশোরীকে হত্যার আগে ধর্ষণ করা হয়।



২০১২ সালের ১৬ ডিসেম্বর দিল্লিতে চলন্ত বাসে গণধর্ষণের অপরাধ প্রমাণিত হওয়ায় চার আসামিকে মৃত্যুদণ্ড দেওয়া হয়েছে। এ ঘটনার প্রধান আসামি বাসচালক রাম সিং তিহার কারাগারে থাকা অবস্থায় মারা যান। এ ঘটনায় জড়িত অপ্রাপ্তবয়স্ক একজনকে কিশোর সংশোধন কেন্দ্রে পাঠানো হয়েছে।

এ জাতীয় আরও খবর

ঈদের আগে ফ্রিজ পরিষ্কারের দারুণ কিছু টিপস

ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি ২২

পদ্মা সেতু হওয়ায় দুশ্চিন্তায় দৌলতদিয়ার ১৪০০ হকার

বাসার নিচতলায় হাঁটুপানি, বিদ্যুৎস্পৃষ্টে ২ জনের মৃত্যু

‘সোনার চর’ দিয়ে কাজে ফিরলেন মৌসুমী

কিশোরীকে ‘আই লাভ ইউ’ বলায় যুবকের কারাদণ্ড

কোক স্টুডিও বাংলায় গান গাইবেন ওস্তাদ রশিদ খান

সেই জিতুকে স্কুল থেকে আজীবন বহিষ্কার

জাতির কাছে নূপুর শর্মার ক্ষমা চাওয়া উচিত : ভারতীয় সুপ্রিম কোর্ট

যাত্রীর চাপে এক্সপ্রেসওয়ের টোল প্লাজায় বাড়ল বুথ

‘আমরা শেষ পর্যন্ত সিদ্ধান্তে অটল থাকতে পারলে আ.লীগ সরকার থাকবে না’

ভাইয়ের জানাজায় অংশ নিতে প্যারোলে মুক্তি পেলেন হাজী সেলিম