রবিবার, ২৬শে জুন, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ ১২ই আষাঢ়, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

সাকিবের কিপ্টেমি

আজকের ম্যাচের আগে আইপিএলের পয়েন্ট টেবিলে কলকাতার অবস্থান পাঁচে। দলের পারফরম্যান্স ভালো না হলেও ব্যক্তিগত পারফরম্যান্সে সাকিব আল হাসানের অবস্থান যথেষ্ট ওপরেই। তবে ব্যাটসম্যান সাকিবের চেয়ে বোলার সাকিবই বেশি সফল।

টি-টোয়েন্টি রানের খেলা। এখানে ১ রান কম দেওয়াও কখনো কখনো একটা উইকেট তুলে নেওয়ার চেয়ে বেশি গুরুত্বপূর্ণ। মোট উইকেটের হিসাবে সাকিব হয়তো মাত্র ৬টি উইকেট নিয়েছেন, কিন্তু রান দেওয়ার ব্যাপারে সাকিব শুরু থেকেই কৃপণ ছিলেন। আজও করলেন দুর্দান্ত বোলিং। আর ১ রান কম দিলেই এবারের আসরে সবচেয়ে কৃপণ বোলিংয়ের রেকর্ডটা হয়ে যেত। আজ দিল্লি ডেয়ারডেভিলসের বিপক্ষে ৪ ওভারে সাকিব দিয়েছেন ১৩ রান। এবারের আইপিএলের ৪ ওভারে ১২ রান দিয়ে সবচেয়ে কৃপণ বোলিংয়ের রেকর্ডটা রবীন্দ্র জাদেজার, সাকিবদের কলকাতার বিপক্ষেই।

এক ম্যাচে ৪ ওভার বল করে সবচেয়ে কম রান দেওয়া বোলারদের তালিকায় সাকিবের অবস্থান দ্বিতীয় স্থানে। ইকোনমি রেট ৩.২৫। কলকাতার বিপক্ষে রবীন্দ্র জাদেজার ১২ রান দিয়ে ৪ উইকেট নেওয়া ইনিংসটায় ইকোনমি রেট ছিল ৩। ‘কিপ্টে’ বোলিংয়ের তালিকায় সাকিবের পাশে রয়েছেন বালাজি ও ভাটিয়া। দুজনের ইকোনমি রেট ৩.২৫। তবে ম্যাচে বালাজি উইকেট পেয়েছেন ৪টি ও ভাটিয়া ২টি।

টুর্নামেন্টে কমপক্ষে ২০ ওভার বল করেছেন এমন তালিকায় সবচেয়ে কৃপণ বোলার হিসেবে সাকিবের অবস্থান তিনে। ৬ ম্যাচে ২৩ ওভার বল করে সাকিব ১৪০ রানে পেয়েছেন ৬ উইকেট। ইকোনমি রেট ৬.০৮। তার ওপরে রয়েছেন যুজবেন্দ্র চাহাল (৫.৯৬) ও ভুবনেশ্বর কুমার (৫.৭৮)।

ব্যাট হাতে সাকিবের রান বলার মতো না হলেও সর্বশেষ দুটি ম্যাচে কলকাতার জয়ের আশা জাগিয়েছিলেন মূলত তিনিই। দুর্ভাগ্য, সতীর্থদের ব্যর্থতার কারণে দুটি ম্যাচই হারতে হয়েছে। তবে সাকিবকে দলে রাখা মানে যে ১২ জন নিয়ে খেলা, এটা নিশ্চয়ই টের পাচ্ছে কলকাতা। গুঞ্জন আছে, সাকিবকে নিয়মিত খেলানোর ব্যাপারে নির্দেশ দিয়েছেন কেকেআরের মালিক বলিউড তারকা শাহরুখ খানই।