বুধবার, ২১শে ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ ৮ই ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণে ব্যায়াম

dayabetis2_35493ডেস্ক রির্পোট : ডায়াবেটিস রোগ নিয়ে ভুগছে না এমন পরিবারের সংখ্যা দিনে দিনে কমে আসছে। আপনি যদি এমন পরিবারের সদস্য না হয়ে থাকেন তবে আপনি ভাগ্যবানদের একজন বলা যায়, কেননা এই ডায়াবেটিস ধীরে ধীরে শরীরের প্রধান প্রধান অঙ্গকে আক্রমণ করে।


আমাদের টার্গেট হবে যদি ডায়াবেটিস হয়েও যায়, তবুও রক্তে গ্লুকোজ-এর লেভেল মেইন্টেইন করে একে স্বাভাবিক রাখার চেষ্টা করা। কেননা রক্তে গ্লুকোজ স্বাভাবিক থাকলেই আমরা ডায়াবেটিস দমিয়ে রাখতে পারবো।


শারীরিক ব্যায়াম এই ব্যাপারে খুব ভালো ভূমিকা পালন করে। যদি রেগুলার ব্যায়াম করা যায় তবে ডায়াবেটিসকে বেশ ভালোভাবে নিয়ন্ত্রণে রাখা সম্ভব।


এখন প্রশ্ন হচ্ছে কিভাবে ব্যায়াম করা যেতে পারে, আর এটা কিভাবেই বা কাজ করে!


কিভাবে করা যেতে পারে:


প্রতিদিন সকাল বা বিকালে ৪৫ থেকে ৬০ মিনিট করে হাঁটা বা দৌড়ানো যেতে পারে। এই সহজ ব্যায়ামই সকল ডায়াবেটিক কপ্লিকেশনকে থামিয়ে রাখতে প্রধান ভূমিকা পালন করে।


কিভাবে কাজ করে:


ইনসুলিনের অভাবে রক্তের গ্লুকোজ কোষের ভিতরে ঢুকতে পারে না। তাই রক্তে গ্লুকোজ-এর পরিমাণ বেড়ে যায়। রক্তের গ্লুকোজ কোষের ভিতরে যেতে গ্লুট (GLUT) নামের সারফেস প্রোর্টিন কাজ করে, যার অনেকগুলো টাইপ রয়েছে এবং এর সবগুলো টাইপ কাজ করতে সরাসরি ইনসুলিনের এর উপর নির্ভরশীল। শুধু মাত্র গ্লুট ৪ (GLUT ৪) কাজ করে ব্যায়ামের মাধ্যমে। মানুষ যখন শারীরিক শ্রম করে তখন এই  গ্লুট ৪ এর মাধ্যমে রক্তের গ্লুকোজ কোষের ভিতরে ঢুকে। এভাবেই ব্যায়ামের মাধ্যমে রক্তে গ্লুকোজ এর পরিমাণ কমে গিয়ে ডায়াবেটিস-এর কমপ্লিকেশান হওয়ার সম্ভাবনা কমে যায়।


ডায়াবেটিস রোগ নিয়ে ভুগছে না এমন পরিবারের সংখ্যা দিনে দিনে কমে আসছে। আপনি যদি এমন পরিবারের সদস্য না হয়ে থাকেন তবে আপনি ভাগ্যবানদের একজন বলা যায়, কেননা এই ডায়াবেটিস ধীরে ধীরে শরীরের প্রধান প্রধান অঙ্গকে আক্রমণ করে।


আমাদের টার্গেট হবে যদি ডায়াবেটিস হয়েও যায়, তবুও রক্তে গ্লুকোজ-এর লেভেল মেইন্টেইন করে একে স্বাভাবিক রাখার চেষ্টা করা। কেননা রক্তে গ্লুকোজ স্বাভাবিক থাকলেই আমরা ডায়াবেটিস দমিয়ে রাখতে পারবো।


শারীরিক ব্যায়াম এই ব্যাপারে খুব ভালো ভূমিকা পালন করে। যদি রেগুলার ব্যায়াম করা যায় তবে ডায়াবেটিসকে বেশ ভালোভাবে নিয়ন্ত্রণে রাখা সম্ভব।


এখন প্রশ্ন হচ্ছে কিভাবে ব্যায়াম করা যেতে পারে, আর এটা কিভাবেই বা কাজ করে!


কিভাবে করা যেতে পারে:

প্রতিদিন সকাল বা বিকালে ৪৫ থেকে ৬০ মিনিট করে হাঁটা বা দৌড়ানো যেতে পারে। এই সহজ ব্যায়ামই সকল ডায়াবেটিক কপ্লিকেশনকে থামিয়ে রাখতে প্রধান ভূমিকা পালন করে।

কিভাবে কাজ করে:


ইনসুলিনের অভাবে রক্তের গ্লুকোজ কোষের ভিতরে ঢুকতে পারে না। তাই রক্তে গ্লুকোজ-এর পরিমাণ বেড়ে যায়। রক্তের গ্লুকোজ কোষের ভিতরে যেতে গ্লুট (GLUT) নামের সারফেস প্রোর্টিন কাজ করে, যার অনেকগুলো টাইপ রয়েছে এবং এর সবগুলো টাইপ কাজ করতে সরাসরি ইনসুলিনের এর উপর নির্ভরশীল। শুধু মাত্র গ্লুট ৪ (GLUT ৪) কাজ করে ব্যায়ামের মাধ্যমে। মানুষ যখন শারীরিক শ্রম করে তখন এই  গ্লুট ৪ এর মাধ্যমে রক্তের গ্লুকোজ কোষের ভিতরে ঢুকে। এভাবেই ব্যায়ামের মাধ্যমে রক্তে গ্লুকোজ এর পরিমাণ কমে গিয়ে ডায়াবেটিস-এর কমপ্লিকেশান হওয়ার সম্ভাবনা কমে যায়।


কিভাবে করতে হবে:


হাঁটা বা দৌড়ানোর ক্ষেত্রে ৫ মিনিট একটু জোরে যেতে হবে, পরবর্তী ৫ মিনিট একটু ধীরে অনেকটা স্বাভাবিক হাঁটার মতো। আবার পরবর্তী ৫ মিনিট জোরে, এভাবে ৪৫ থেকে ৬০ মিনিট নিয়মিত ব্য‍ায়াম করতে হবে।


হাঁটা বা দৌড়ানোর ক্ষেত্রে ৫ মিনিট একটু জোরে যেতে হবে, পরবর্তী ৫ মিনিট একটু ধীরে অনেকটা স্বাভাবিক হাঁটার মতো। আবার পরবর্তী ৫ মিনিট জোরে, এভাবে ৪৫ থেকে ৬০ মিনিট নিয়মিত ব্য‍ায়াম করতে হবে।


 

এ জাতীয় আরও খবর

টাকা ফেরত দেওয়ার কারণ জানালেন জয়া

ঘরের বাইরে মাস্ক পরার পরামর্শ দিয়ে বিজ্ঞপ্তি

বাণিজ্য মেলায় বিক্রি ৪০০ কোটি, রপ্তানি আদেশ ৩৯২ কোটি টাকার

শাহজালালের থার্ড টার্মিনাল চালুর সময় জানাল বিমানমন্ত্রী

মানি লন্ডারিংয়ের ৮০ শতাংশ হ‌য় ব্যাংকের মাধ্যমে

গণতন্ত্র ও ভোটাধিকার পুনরুদ্ধারের আন্দোলন চলবে : বিএনপি

প্রধানমন্ত্রীর সংবাদ সম্মেলন শুক্রবার

খুলনাকে হারিয়ে প্লে অফে চট্টগ্রাম

আগের যে কোনো সরকারের চেয়ে বর্তমান সরকার শক্তিশালী : পররাষ্ট্রমন্ত্রী

বাংলাদেশের সাফল্যের ভূয়সী প্রশংসা ডব্লিউএফপির

সন্ধ্যা থেকে ঢাকার যেসব সড়ক বন্ধ থাকবে

তিউনিসিয়া উপকূলে নৌ-দুর্ঘটনায় নিহতদের ৮ জন বাংলাদেশি