বৃহস্পতিবার, ৩০শে জুন, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ ১৬ই আষাঢ়, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

নাসিরনগরে গ্রেফতার আতঙ্কে তিন গ্রাম পুরুষশূন্য

CNGপ্রতিনিধি: ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নাসিরনগরে সিএনজি চালিত অটোরিকশা ষ্ট্যান্ডের আধিপত্য বিস্তার নিয়ে সৃষ্ট সংঘর্ষে পুলিশ আহত হওয়ার মামলাসহ তিন মামলায় নুরপুর, লাহাজুরা ও পুকুরপাড় গ্রাম এখন পুরুষশূণ্য। এরই মধ্যে পুলিশ ২০জনকে গ্রেফতার করে জেলহাজতে প্রেরণ করেছে।
পুলিশ ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়,গত ২৩ এপ্রিল সকালে উপজেলার চৈয়ারকুড়ি বাজারে সিএনজি চালিত অটোরিকশা স্ট্যান্ড নিয়ে পূর্ব বিরোধের জের ধরে জেঠা গ্রামের মো. সাজিদ মিয়া ও নূরপুর গ্রামের মো. এমরান মিয়ার কথা কাটাকাটি হয়। এরই জেরে উভয় গ্রামের লোকজন দেশীয় অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে সংঘর্ষে লিপ্ত হয়। নাসিরনগর থানা পুলিশসহ জেলা সদর থেকে দাঙ্গা পুলিশ ও র‌্যাব-১৪ এর ভৈরব ক্যাম্পের সদস্যরা ঘটনাস্থলে পৌঁছে ৪০ রাউন্ড ফাকাঁগুলি ও ২ রাউন্ড টিয়ারসেল ছুঁড়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনে। টানা তিন ঘন্টাব্যাপী সংঘর্ষে তিন পুলিশসহ উভয়পক্ষে অর্ধশতাধিক লোক আহত হয়। সংঘর্ষ চলাকালে কয়েকটি বাড়িতে ভাঙচুর ও অগ্নিসংযোগের ঘটনা ঘটে। এর মধ্যে আগুনে বিশিষ্ট ব্যবসায়ী জেঠাগ্রামের আতিকুর রহমান খসরুর বাড়িতে হামলা চালিয়ে বাড়িঘর ভাংচুর,লুটপাট ও অগ্নিসংযোগে সাতটি ছাগল ও দু’টি গরু পুড়ে মারা যায়। আহত হয় এ সআই মিজানুর রহমান (৩৫).কনষ্টেবল ডালিম সরকার (৪০) শিব্বির আহমেদ(২৫)। এই ঘটনায় এসআই মো. তোফাজ্জল হোসেন বাদি হয়ে ১৯ জনের নামোল্লেখসহ অজ্ঞাতনামা সাড়ে চারশ’ জনকে আসামী করে একটি মামলা দায়ের করেন। এদিকে জেঠাগ্রামের আতিকুর রহমান খসরু বাদি হয়ে ৩০ জনকে আসামী করে লুটপাট অগ্নিসংযোগের অভিযোগে আরেকটি মামলা দায়ের করেন। অন্যদিকে জেঠাগ্রামের মো. সাজিদ মিয়া বাদি হয়ে ২৬ জনকে আসামী করে দ্রুত বিচার আইনে আরো একটি মামলা দায়ের করেন। মোট তিনটি মামলায় পর থেকে নুরপুর গ্রামসহ লাহাজুরা ও পুকুরপাড়ের পুরুষরা গ্রেফতার আতঙ্কে বাড়িঘর ছেড়ে পালিয়ে বেড়াচ্ছেন। মহিলারাও রয়েছেন আতঙ্কে। এলাকার প্রাথমিক ও মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে শিক্ষক ও শিক্ষার্থীর উপস্থিতি কমে গেছে উল্লেখযোগ্য হারে। পুলিশ ঘটনার সাথে জড়িত থাকার সন্দেহে ২০ জনকে গ্রেফতার করে জেলহাজতে প্রেরণ করেছেন।
মামলার বাদী নাসিরনগর থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) মো. তোফাজ্জল হোসেন জানান,‘ঘটনার সাথে জড়িতদের বিরুদ্ধে গ্রেফতার অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

 

এ জাতীয় আরও খবর