শনিবার, ৩রা ডিসেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ ১৮ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

জবসকে তাড়ানো ভুল ছিল: স্কালি

আশির দশক। প্রযুক্তি-প্রতিষ্ঠান অ্যাপল পরিচালনার জন্য একজন ঝানু করপোরেট নেতৃত্বের প্রয়োজন অনুভব করলেন অ্যাপলের তরুণ সহপ্রতিষ্ঠাতা স্টিভ জবস। তখন করপোরেট ব্যবসায় রীতিমতো খ্যাতিমান পেপসিকোর জন স্কালি। তাঁকে প্রস্তাব দিলেন স্টিভ। স্কালিকে জবস বললেন, ‘সারা জীবন চিনি-মেশানো পানি বিক্রি করে যাবেন? নাকি আমার সঙ্গে এসে পৃথিবীকে বদলে দিতে আগ্রহী হবেন?’। দূরদৃষ্টিসম্পন্ন স্কালি স্টিভ জবসের এই প্রশ্নটির মাহাত্ম্য বুঝে ফেললেন নিমিষেই। যোগ দিলেন অ্যাপলে। স্কালির দক্ষ হাতে তরতরিয়ে করপোরেট ক্ষেত্রে এগিয়ে চলল অ্যাপল। কিন্তু মতের মিল? সেটা আর হলো না। শেষ নাগাদ অ্যাপলের প্রতিষ্ঠাতা স্টিভ জবসই করপোরেট রাজনীতির কারণে নিজের প্রতিষ্ঠান থেকে বিতাড়িত হলেন। স্টিভ জবসকে তাড়ানোর জন্য দায়ী করা হয় জন স্কালিকেই। অবশ্য নব্বইয়ের দশকে আবার অ্যাপলে ফিরে আসেন স্টিভ জবস এবং অ্যাপলকে প্রতিষ্ঠা করেন বিশ্বের বৃহত্তম প্রযুক্তি-প্রতিষ্ঠানে।

ক্যানসারে আক্রান্ত হয়ে স্টিভ জবস পৃথিবী ছেড়ে গেছেন ২০১১ সালে। ৭৫ বছর বয়সী স্কালিও এখন অ্যাপলের সঙ্গে নেই। স্কালি ভারতে নতুন করে একটি ব্যবসার উদ্যোগ নিয়েছেন। তাঁর এই ব্যবসা হবে কম দামি মোবাইল ফোন বিক্রির।

সম্প্রতি অ্যাপলে থাকাকালীন নিজের সিদ্ধান্ত ও কাজের বিষয়ে টাইমস অব ইন্ডিয়াকে বেশ কিছু তথ্য দিয়েছেন জন স্কালি।

স্কালি স্বীকার করেছেন, ১৯৮৫ সালে স্টিভ জবসকে তাঁর প্রতিষ্ঠিত অ্যাপল থেকে তাড়িয়ে বড় একটি ভুল করেছিলেন তিনি।

স্কালি বলেছেন, ‘আমি মনে করি অ্যাপলের প্রতিষ্ঠাতা জবসকে অ্যাপল ছাড়তে বাধ্য করা ভুল ছিল আর এই ভুলের সঙ্গে আমার সম্পৃক্ততা ছিল। তবে ১৯৮৫ সালের স্টিভ আর ১৯৯৭ সালে অ্যাপলে ফিরে আসা স্টিভ এক রকম ছিলেন না। তিনি যখন অ্যাপলে ফিরে এসেছিলেন তখন তিনি আগের চেয়ে অনেক বেশি পরিপক্ব ও অভিজ্ঞ ছিলেন আর আশির দশকের স্টিভ ছিলেন তরুণ ও শিক্ষানবিশ এক নির্বাহী মাত্র।’

যুক্তরাষ্ট্রের করপোরেট বিশ্বের তারকাখ্যাতি পেয়েছিলেন স্কালি। কনজুমার মার্কেটিংয়ের বিষয়টি অ্যাপলের সঙ্গে যুক্ত করতে স্কালিকে নিয়োগ দেন স্টিভ জবস। অ্যাপলের ম্যাকিনটোশ কম্পিউটার বিক্রি নিয়ে স্কালি ও জবসের মধ্যে মতবিরোধ দেখা দেয়। অ্যাপলের সেই সময়কার জনপ্রিয় অ্যাপল২ কম্পিউটার থেকে আসা অর্থ ম্যাকিনটোশে বিনিয়োগ করতে বলেছিলেন জবস। এমনকি ম্যাকিনটোশের দাম কমাতেও বলেন জবস। কিন্তু স্কালি তাতে রাজি হননি।

স্কালি তাঁর যুক্তিতে বলেন, ‘প্রতিষ্ঠানের সব লাভ ছিল এটাতেই। আমি ম্যাকিনটোশের দাম কমানোতে কোনো লাভ দেখতে পাইনি। আমার সেই সিদ্ধান্ত নিয়ে আমার মোটেও দুঃখ নেই।’

স্কালি মন্তব্য করেন, ‘আমরা দুজন একত্রে কাজ করলে অ্যাপলকে আরও এগিয়ে নিয়ে যেতে পারতাম। সমাধানের পথও হয়তো খোলা ছিল। আমার আর স্টিভের মধ্যে দ্বন্দ্ব মেটানোর সুযোগ ছিল। কিন্তু সে সময় অ্যাপল বোর্ড এতে গুরুত্বপূর্ণ প্রভাব ফেলেছিল। ইতিহাস তো আর বদল করা যায় না।’

ভারতে ইনফ্লেকশনপয়েন্ট নামে আইটি ও টেলিকম সাপ্লাই চেন তৈরির উদ্যোগ নিয়েছেন স্কালি। এই প্রতিষ্ঠানটি চীনে মোবাইল ফোন তৈরি করে ভারতে বিক্রি করবে। তাদের ব্র্যান্ড হবে অবি মোবাইলস। ভারতের মোবাইল নির্মাতাপ্রতিষ্ঠান মাইক্রোম্যাক্সের স্মার্টফোন বিভাগের প্রধান অজয় শর্মাকে অবি মোবাইলসের প্রধান নির্বাহী হিসেবে দায়িত্ব দিয়েছেন স্কালি।

এ জাতীয় আরও খবর

রাতে সমাবেশস্থল ঘুরে গেলেন মির্জা ফখরুল

২-০ গোলে হারিয়েও ঘানার সঙ্গে বিদায় উরুগুয়ের

পর্তুগালকে হারিয়ে রোনালদোদের সঙ্গে দ্বিতীয় রাউন্ডে কোরিয়া

বাংলাদেশের মানুষদের সমর্থনে গর্বিত আর্জেন্টিনা কোচ স্কালোনি

চিকা মারাকে কেন্দ্র করে চবি ছাত্রলীগের দুই গ্রুপের সংঘর্ষ চলছে

জাকিরের বিরচিত লড়াইয়ে ‘এ’ দলের ড্র

ঢাবিতে গণধোলাইয়ে আহত শিক্ষক হাসপাতালে

বিএনপি-নাগরিক ঐক্যের ৩১ জন গ্রেপ্তার

‘বাস বন্ধ হলে ধার-দেনা করে সংসার চালাতে হয়’

প্রধানমন্ত্রীর জনসভায় আওয়ামী লীগ সরকারি সুবিধা নিচ্ছে না : স্বপন

ভারত সিরিজে ওয়ানডে অধিনায়ক লিটন

বাঞ্ছারামপুরে বিকল্প রাস্তা না রেখেই ব্রীজ নির্মান : ভোগান্তিতে কয়েক গ্রামের মানুষ