শুক্রবার, ৩০শে সেপ্টেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ ১৫ই আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

পিটারসেন অমন নন!

অ্যাশেজ সিরিজে ইংল্যান্ডের ভরাডুবির পর আকস্মিকভাবেই বাদ দেওয়া হয়েছিল কেভিন পিটারসেনকে। সতীর্থদের সঙ্গে সম্পর্ক ভালো না, এমন অভিযোগও উঠেছিল পিটারসেনের বিরুদ্ধে। কিন্তু এই অভিযোগ অস্বীকারই করেছেন পিটারসেন। বলেছেন, তাঁর বিরুদ্ধে ওঠা অভিযোগ একেবারেই সত্যি নয়। বরং তিনি নিজেকে একজন পরোপকারী ও বন্ধুবত্সল ক্রিকেটার হিসেবেই অভিহিত করতে চান।



উদাহরণ হিসেবে তিনি উল্লেখ করেছেন জোনাথন ট্রটের ব্যাপারটি। ২০১২-১৩ মৌসুমে অ্যাশেজ সিরিজে চাপজনিত কারণে সমস্যায় ভুগছিলেন ট্রট। সে সময় পিটারসেনই নাকি প্রথম শনাক্ত করেছিলেন ব্যাপারটা। শুধু ট্রটের খারাপ সময়েই না, সতীর্থদের মধ্যে যে কেউই খারাপ অবস্থার মধ্যে থাকলে তাঁদের পাশে দাঁড়িয়েছেন পিটারসেন। কারও সঙ্গে খারাপ সম্পর্ক থাকা তো দূরের কথা, সতীর্থদের সঙ্গে ভালো সম্পর্ক ছিল বলেই দাবি করেছেন ডানহাতি এই ব্যাটসম্যান।

অথচ সতীর্থদের সঙ্গে সম্পর্ক ভালো না, এমন অভিযোগ তুলেই ইংল্যান্ড দল থেকে বাদ দেওয়া হয়েছিল পিটারসেনকে। এখন পর্যন্ত বিষয়টির গ্রহণযোগ্য কোনো ব্যাখ্যা পাওয়া যায়নি ইংল্যান্ড ক্রিকেট বোর্ডের কাছ থেকে। সম্প্রতি জানা গেছে, ধোঁয়াশাপূর্ণ বিষয়গুলো নিয়ে খুব শিগগিরই নাকি কথা বলবেন ইংল্যান্ডের টেস্ট দলের অধিনায়ক অ্যালিস্টার কুক। একটা টিভি শোতে কথা বলার কথা পিটারসেনেরও। দেখা যাক তখন আরও নতুন কী তথ্য জানা যায়! পিটিআই।