সোমবার, ৫ই ডিসেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ ২০শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

বিসিএস বাংলা প্রথম ও দ্বিতীয়পত্রে তিশা-মারজুক

পয়লা বৈশাখ উপলক্ষে এক ঘণ্টার নাটক ‘বিসিএস বাংলা প্রথম ও দ্বিতীয়পত্র’ নির্মাণ করেছেন মাসুদ সেজান। নাটকটির প্রধান দুই চরিত্রে অভিনয় করছেন তিশা ও মারজুক রাসেল।



উত্তরার বিভিন্ন লোকেশনে নাটকটির শুটিং শুরু হয়েছে গতকাল মঙ্গলবার। ভিনদেশি সংস্কৃতির প্রভাবে তরুণ প্রজন্ম যে বাংলা ভাষা ও নিজের দেশের সংস্কৃতিকে ভুলে যেতে বসেছে তাই তুলে ধরা হয়েছে নাটকটির গল্পে। এখানে মারজুক রাসেলকে একজন রক স্টারের ভূমিকায় দেখা যাবে। আর তিশা অভিনয় করছেন রবীন্দ্রপ্রেমী সংস্কৃতিমনা এক তরুণীর চরিত্রে।



নাটকের কাহিনিতে দেখা যাবে, তিশার প্রেমে পড়েন মারজুক রাসেল। কিন্তু তিশা ভিনদেশি সংস্কৃতি লালন করা কারো সঙ্গে প্রেম করতে রাজি হন না। শেষ পর্যন্ত মারজুক রাসেল নিজেকে বাংলা সংস্কৃতির প্রেমিক হিসেবে উপস্থাপন করার জন্য নানা ধরনের উদ্ভট কাণ্ড ঘটান।‘বিসিএস বাংলা প্রথম ও দ্বিতীয়পত্র’ নাটকের দৃশ্য



নাটক প্রসঙ্গে তিশা বলেন, ‘সেজান ভাইয়ের নাটক মানেই মেসেজ নির্ভর নাটক। এ নাটকের মাধ্যমে তিনি তরুণ প্রজন্ম থেকে শুরু করে সবার মাঝে বাঙালি চেতনাকে তুলে ধরতে চেয়েছেন। এ নাটকে আমি একজন সংস্কৃতিমনা তরুণীর চরিত্রে অভিনয় করছি। নাটকে অভিনয় করে আমার বেশ ভালো লাগছে। আশা করি, দর্শকদেরও ভালো লাগবে।’



মারজুক রাসেল বলেন, ‘আমার চরিত্রটা ভিন্নধর্মী। যাঁরা দেখবেন তাঁদের চৈতন্যোদয় হবে। যাঁরা নানান ব্যস্ততায় বা তথ্যের অভাবে দেখতে পারবেন না তারা লোকমুখে শুনে দেখতে আগ্রহী হবেন।’



পরিচালক মাসুদ সেজান বলেন, ‘আমাদের বাঙালি চেতনা ও সংস্কৃতিকে খুবই সহজ একটি গল্পের মধ্য দিয়ে তুলে ধরবার চেষ্টা করেছি।’



তিশা ও মারজুক রাসেল ছাড়াও ‘বিসিএস বাংলা প্রথম ও দ্বিতীয়পত্র’ নাটকে আরো অভিনয় করেছেন, তারিক স্বপন, মিলন ভট্ট প্রমুখ। নাটকটি পহেলা বৈশাখে বাংলাভিশন টিভি চ্যানেলে রাত নয়টায় প্রচারিত হবে।