মঙ্গলবার, ৪ঠা অক্টোবর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ ১৯শে আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

মুন্সেফপাড়ায় দিনে-দুপুরে ছিনতাই ও খুনের প্রচেষ্টা

গত ৩০ মার্চ রবিবার আনুমানিক সকাল ১০ টায় ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার মুন্সেফপাড়ায় ( কাঙ্গালনাথের বাড়ি নেহার মঞ্জিলের সম্মুখে ) ছিনতাইকারীদের দ্বারা গুরুতর জখমী হয় ব্রাহ্মণবাড়িয়ার শেরপুর (উঃ) এলাকার বাসিন্দা শামীম মিয়া। সে ইলেক্ট্রিকের কাজ করে জীবিকা নির্বাহ করে। 

সন্ত্রাসী দ্বারা গুরুতর আহতের পিতা গোলাপ মিয়া বাদী হয়ে সদর মডেল থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। আসামীরা হল- জালাল মিয়া, মুখলেছ মিয়া, জসিম মিয়া, মাসুদ মিয়া এবং নাম না জানা ৩ জন, তারা সকলেই বিরাসারের বাসিন্দা।

মামলার এজাহার থেকে জানা যায়, ৩০ মার্চ আনুমানিক সকাল ১০টায় ওই ছিনতাইকারীরা তাকে অজ্ঞাত মোবাইল নাম্বার হতে ফোন করে সিলিং ফ্যান মেরামতের জন্য ঐ স্থানে আসতে। সে ঘটনাস্থলে পৌছলে সিএনজি অটোরিক্সায় অপেক্ষারত সেই ছিনতাইকারীরা তাকে চারদিকে ঘিরে ফেলে, অতঃপর রাম-দা, কিরিজ, বেনার বিভিন্ন দেশীয় অস্ত্র দ্বারা শামীমের মাথায় সজোড়ে আঘাত করে এবং কিরিজ দ্বারা তাকে প্রাণে হত্যার করতে বুকে ,মুখে ও শরীরের বিভিন্ন স্থানে ক্ষত-বিক্ষত করে তাকে রক্তাক্ত অবস্থায় ঐ স্থানে ফেলে চলে যায়। তার সাথে থাকা মটোফোনটিও নিয়ে যায় তারা, যার মূল্য প্রায় পনের হাজার টাকা এবং তার পকেটে থাকা নগদ ২৩০০ টাকাও জোড় পূর্বক ছিনতাই করে নেয়। তার চিৎকারে ঘটনাস্থলে লোকজন ছুটে আসে এবং তাকে দ্রুত সদর হাসপাতালে ভর্তি করে।  ঘটনাস্থলে যারা ছিলেন তারা এই ঘটনার সাক্ষ্য দিতে রাজি হয়েছে।

উল্লেখ্য, আসামীদের নামে থানায় একাধিক মামলা রয়েছে। 

সদর থানার এস,আই রফিকুল ইসলাম তাকে হাসপাতালে খবর পেয়ে দেখতে আসেন। তিনি আসামীদের বিরুদ্ধে তড়িৎ ব্যবস্থা গ্রহণ করবেন বলে জানান।