বুধবার, ২৯শে জুন, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ ১৫ই আষাঢ়, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

সাহিত্য একাডেমি সমম্বয়ে সারাদেশের সঙ্গে একসাথে ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় জতীয় সঙ্গীত পরিবেশিত হয়েছে

Sahitta Academy PIC = 27-03-2014.docরিয়াসাদ আজিম:২০১৪ সালের ২৬ মার্চ । বাংলাদেশের স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবসের এবছরের এই মহান দিনটি আমাদের জাতীয় জীবনে এবং বিশ্বের ইতিহাসে অক্ষয় হয়ে থাকবে। বাঙালির ৪৩ তম মহান স্বাধীনতা দিবসের এই দিনটি অম্লান হয়ে থাকবে  একারনে যে, লাখো কন্ঠে ঐকতানে জাতীয় সঙ্গীত পরিবেশন করে আমরা বিশ্বে ইতিহাস সৃষ্টি করেছি। এই ঘটনা বিশ্বের ইতিহাস বলে তা গিনিজবুকে স্থান পাওয়ার যোগ্য।

রাজধানী ঢাকার জাতীয় প্যারেড গ্রাউন্ডে আয়োজিত মূল অনুষ্ঠানের সঙ্গে সমন্বয় করে ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় শহীদ ধীরেন্দ্রনাথ দত্ত ভাষাচত্বরে সকাল এগারোটায় লখো কন্ঠে জাতীয় সঙ্গীত পরিবেশনের আয়োজন করা হয়। সাহিত্য একাডেমির আয়োজন ও সমন্বয়ে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সকল সাংস্কৃতিক সংগঠন এতে অংশগ্রহণ করে। অংশগ্রহণ কারী সংগটনগুলো হলো- মুক্তিযোদ্ধা শিল্পী গোষ্ঠী, তিতাস ললিতকলা একাডেতি, আনন্দলোক সাংস্কৃতিক কেন্দ্র, উদীচী শিল্পী গোষ্ঠী, ভ’ঁইয়া ফাউডেশন প্রমূখ। জাতীয় সঙ্গীতে নেতৃত্ব দিয়েছেন মুক্তিযোদ্ধা ও রণাঙ্গনের শিল্পী ফিরোজ আহামেদ। অনুষ্ঠান সমন্বয়ের দায়িত্ব পালন করেন সাহিত্য একাডেমির সভাপতি কবি জয়দুল হোসেন, পরিচালক মানবর্দ্ধন পাল, মিলি চৌধুরী, নন্দিতা গুহ প্রমূখ।