শুক্রবার, ৯ই ডিসেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ ২৪শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

অথচ সেই আফতাব এখন…

53313527c7da9-Aftabটি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের প্রথম আসরে নিজেদের প্রথম ম্যাচেই ওয়েস্ট ইন্ডিজকে হারিয়ে তাক লাগিয়ে দিয়েছিল বাংলাদেশ। জোহানেসবার্গের ওয়ান্ডারার্স স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত সে ম্যাচে বাংলাদেশ জিতেছিল ৬ উইকেটে। দুর্দান্ত জয়ের অন্যতম নায়ক ছিলেন আফতাব আহমেদ। ৪৯ বলে ৬২ করে দলকে জিতিয়ে তবেই ফিরেছিলেন। সাত বছর পর ঘরের মাঠের বিশ্বকাপে সেই একই প্রতিপক্ষ।



সন্ধ্যার ম্যাচের আগে এ ডানহাতি ব্যাটসম্যান সাত বছরের পুরোনো স্মৃতি তর্পণ করলেন এভাবে, ‘ওই ম্যাচটি জিতেছিলাম, সেটি এক বিরাট পাওয়া। প্রথমে ব্যাট করা ওয়েস্ট ইন্ডিজের ১৮ ওভার পর্যন্ত সংগ্রহ ছিল ৫ উইকেটে ১৩১। ১৯তম ওভারে আশরাফুলের ওভারেই উঠল ২৪ রান। এতেই ওরা ২০ ওভারে ১৬৪ করতে পারল। এত রান আমরা আদৌ করতে পারব কি না, ভেবে তখন সত্যি ঘাবড়ে গিয়েছিলাম।’



সেই ‘ঘাবড়ে’ যাওয়া আফতাবই পরে ঘাবড়ে দেন ক্যারিবীয়দের। ঝোড়ো এক ইনিংস খেলে বাংলাদেশকে বিশ্বকাপ অভিষেকেই এনে দেন স্মরণীয় এক জয়। সেই স্মৃতি আজও মনে পড়ে আফতাবের, ‘ব্যাট করতে যখন নেমেছিলাম, মাথায় একটাই চিন্তা, যা হওয়ার হবে। রানের দিকে তাকিয়ে লাভ নেই। আশরাফুল নামার পর দুজনের ভালো একটা জুটি দাঁড়িয়ে গেল। বল দারুণ ব্যাটে আসছিল। আশরাফুলকে বললাম, ‘‘ম্যাচ নিয়ে চিন্তা করে লাভ নেই। ব্যাটে-বলে দারুণ হচ্ছে। যেভাবে খেলছি, সেভাবেই খেলে যাই।’’ আসলে ওই দিন হারব কী জিতব—এ নিয়ে কোনো চিন্তা খেলেনি মাথায়। ভালো খেলছি, খেলে যাই—এমন চিন্তাই করেছি। হাল ছাড়িনি একদমই। বিশ্বাস ছিল, ভালো ব্যাট করলে আশা থাকবে। শেষ পর্যায়ে ম্যাচটি জিতেই গেলাম!’

আজকে আবার সেই ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে যখন বিশ্বকাপে মুখোমুখি বাংলাদেশ, হতাশার কথা, আফতাবকে ড্রেসিংরুমের বদলে ড্রইংরুমে বসে স্মৃতিচারণা করতে হচ্ছে। অথচ ক্রিকেটে আফতাবের আগমন হয়েছিল আশা জাগিয়ে। ২০০৫ সালের ইংল্যান্ড সফরে চেস্টারলি-স্ট্রিট টেস্টে আফতাবের অপরাজিত ৮২ রানের সেই ইনিংসটি ক্রিকেটপ্রেমীদের চোখে এখনো লেগে থাকার কথা। কিন্তু সেই তিনি কিনা হঠাত্ হারিয়ে গেলেন দৃশ্যপট থেকে। কী ভাবছেন ফেরা নিয়ে—জিজ্ঞেস করতেই জানালেন, ‘এগুলো নিয়ে এখন আর চিন্তা করছি না।’

তাহলে কি ক্রিকেটে নিজের ভবিষ্যত্ আর দেখতে পান না ২৮ বছর বয়সী আফতাব? অনুযোগের সুরেই বললেন, ‘দল থেকে ছিটকে পড়ার পর আবার ফিরে আসতে যে ধরনের পরিচর্যা দরকার, সেটি পাইনি। যদি সেভাবে পরিচর্যা পেতাম, হয়তো আবার ফিরে আসতাম।’ এ ক্ষেত্রে দুষলেন বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডকেই, ‘বোর্ডই যেখানে আগ্রহ দেখাইনি, আমার আর কী-ইবা করার আছে! ক্রিকেটের প্রতি আগ্রহ হারিয়ে ফেলেছি। আমাকে বারবার বলা হলো ‘অলস’। কিন্তু জাতীয় দলের বাইরে চলে গেলে অন্যান্য দলে কি সেভাবে আমাকে রাখা হয়েছে?’

আজ ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ফের জয় আসবে বাংলাদেশের? আফতাব বললেন, ‘আশা-বিশ্বাস রাখতে হবে। আমরা নিজেদের দিনে যেকোনো দলকেই হারানোর ক্ষমতা রাখি। শেষ বল পর্যন্ত লড়াই করতে হবে। ইনশা আল্লাহ এতেই জয়ের ভালো সুযোগ তৈরি হবে। বাংলাদেশের জন্য শুভকামনা।’

এ জাতীয় আরও খবর

ডাচদের ‘প্রতিশোধের’ হুমকি, আর্জেন্টিনার ভাবনায় ইনজুরি

ক্রোয়েশিয়া বাধা টপকে সেমিতে যেতে পারবে ব্রাজিল?

হাজারীবাগে দুই শিশুসন্তানকে হত্যার পর মায়ের আত্মহত্যা

জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ডিবিতে আনা হয়েছে ফখরুল-আব্বাসকে : হারুন

৫ নারীর হাতে বেগম রোকেয়া পদক তুলে দিলেন প্রধানমন্ত্রী

সবজির দাম কমেছে, এখনো অস্বস্তি চাল-চিনি-তেলে

সতর্ক অবস্থানে পুলিশ : নয়াপল্টনে বিএনপি কার্যালয়ে তালা, যান চলাচল বন্ধ

বিএনপিকে মোকাবিলা করবে ১৪ দল: আমু

এপিডিইউর ভাইস চেয়ারম্যান হলেন মির্জা ফখরুল

সাগরে ঘূর্ণিঝড় ‘মানদৌস’

শান্তিপূর্ণ সমাবেশের অধিকারের নিশ্চয়তা চায় জাতিসংঘ

বিএনপির গণসমাবেশ: বাঙলা কলেজ মাঠ পরিদর্শনে ডিএমপি