শুক্রবার, ১৯শে এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ ৬ই বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

নাসিরনগর উপজেলায় জমে উঠেছে নিবার্চনী প্রচারণা জয় পরাজয়ের হিসাব মিলাচ্ছেন ভোটাররা

upzila-election-1_14280_01নাসিরনগর প্রতিনিধি ॥

গণসংযোগ আর মাইকিং-পোষ্টারিং এর মধ্য দিয়ে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নাসিরনগর উপজেলায় জমে উঠেছে নিবার্চনী প্রচারণা। ইতিমধ্যেই প্রচার প্রচারণায় ব্যস্ত হয়ে পড়েছেন প্রার্থীরা। নিবার্চনকে ঘিরে উপজেলার মানুষের মধ্যে বিরাজ করছে উৎসবের আমেজ।  ৪র্থ উপজেলা পরিষদ নিবার্চনের ৪র্থ ধাপে নাসিরনগর উপজেলায় ৭৪টি ভোট কেন্দ্রে ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে  আগামী ২৩ মার্চ । প্রতীক নিয়ে মাঠ চষে বেড়াচ্ছেন প্রার্থীরা। সুখে-দুঃখে যাকে কাছে পাবেন,তাকেই দেবেন ভোট এমনই প্রত্যাশা ভোটারদের। বিজয় নিশ্চিত করতে প্রার্থীরা বিভিন্ন প্রতিশ্র“তি দিয়ে ভোট চাইছেন ভোটারদের কাছে। প্রার্থীদের পাশাপাশি তাদের সমর্থক ও কর্মীরা ভোটারদের বাড়ি বাড়ি গিয়ে চাইছেন ভোট। উপজেলা চেয়ারম্যান ও ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থীরা সকাল থেকে শুরু করে গভীর রাত পর্যন্ত গণসংযোগ চালিয়ে যাচ্ছেন। তবে মুখ খুলছেন না ভোটাররা।  বিএনপির কাল হয়ে দাঁড়িয়েছে বিগত নিবার্চনে জোট থেকে নিবাচর্তি বর্তমান উপজেলা চেয়ারম্যান আহসানুল হক মাস্টার। আর একারনেই নিশ্চিত হতে পারছেন না বিএনপি সমর্থিতরা। মাঠ পর্যায়ে অভিযোগ উঠেছে বিএনপির একটি গ্র“প নীরবে বর্তমান চেয়ারম্যানের পক্ষে কাজ করছেন। স্থানীয় সরকার নিবার্চন নির্দলীয় দাবি করা হলেও উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে আওয়ামীলীগ ও বিএনপি দুই দলেই একক প্রার্থী ঘোষনা করেছে। বিএনপি জোটের শরীক দল বিজেপির কেন্দ্রীয় সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান ও ৪ দলীয় জোট থেকে নির্বাচিত বর্তমান উপজেলা চেয়ারম্যান মোঃ আহসানুল হক মাস্টার (ঘোড়া) প্রতীক নিয়ে উপজেলা নিবার্চনে লড়ছেন।  ্এদিকে আওয়ামীলীগ থেকে উপজেলা চেয়ারম্যান উপজেলা আওয়ামীলীগ সাধারণ সম্পাদক ও বুড়িশ্বর ইউপি চেয়ারম্যান এটিএম মনিরুজ্জামান সরকার (আনারস), ভাইস চেয়ারম্যান পদে উপজেলা যুবলীগ সভাপতি অঞ্জন কুমার দেব (তালা), মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান বর্তমান মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান সৈয়দা হামিদা লতিফ পান্নাকে(প্রজাপতি), উপজেলা চেয়ারম্যান পদে উপজেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক ও গোর্কণ ইউপি চেয়ারম্যান এম এ হান্নান(মোটরসাইকেল),ভাইস চেয়ারম্যান পদে উপজেলা বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক ও চাতলপাড় ইউপির সাবেক চেয়ারম্যান মোঃ আলমগীর হোসেন(চশমা)  ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে লুৎফুর নাহার পাপড়ি(কলস)  দলীয় মনোনয়ন পেয়ে প্রচার প্রচারণা শুরু করেছেন। তারা দলীয় নেতাকর্মীসহ সাধারণ ভোটারদের তাদের ব্যক্তি ইমেজের পাশাপাশি সামাজিক অবস্থান তুলে ধরে প্রচারণা চালাচ্ছেন। এদিকে দলীয় ঘোষনাকে উপেক্ষা করে উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে উপজেলা যুবদলের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক মোঃ ছোয়াব খানও (উড়োজাহাজ) প্রতীক নিয়ে মাঠে রয়েছেন। এবারের নির্বাচনে জাতীয় পার্টি (এরশাদ) ও জামায়াতের কোন প্রার্থী নেই। কে কোন দল থেকে উপজেলা চেয়ারম্যান ও ভাইস চেয়ারম্যান  নিবার্চিত হবেন তা নিয়ে উপজেলার চায়ের দোকানে,হাট-বাজার,অফিস-আদালত ও গ্রামাঞ্চলে  সবর্ত্রই এখন আলোচিত হচ্ছে। তবে প্রতিনিয়ত পাল্টাচ্ছে ভোটারদের হিসাব-নিকাশ। উপজেলার ১৩টি ইউনিয়নে ভোটার সংখ্যা  ১ লাখ ৮৯ হাজার  ৩১২ জন। তৃতীয় উপজেলা নির্বাচনে জোট নেতা আহসানুল হক মাস্টার চেয়ারম্যান, আওয়ামীলীগের প্রদীপ কুমার রায় ভাইস চেয়ারম্যান ও  সৈয়দ হামিদা লতিফ পান্না মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান নিবার্চিত হয়ে দায়িত্ব পালন করছেন।

এ জাতীয় আরও খবর

টানা ১১ জয়ে প্রথম পর্ব শেষ করল আবাহনী

কেন্দ্রীয় ব্যাংকের বক্তব্যে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়বে : বেসিক ব্যাংক

‘শুল্ক ফাঁকি’ দেওয়া ২৪২ মেট্রিকটন ভারতীয় চিনি পাবনায় জব্দ

নির্বাচনের টিকিট না পেয়ে খোলামেলা রূপে হাজির নুসরাত!

বোতলজাত সয়াবিন তেলের দাম বাড়ায় ক্ষুব্ধ ভোক্তারা

ইরানের বিরুদ্ধে কঠোর পদক্ষেপ শুরু করেছে যুক্তরাষ্ট্র

প্রধানমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিলের শাড়ি বন্ধুদের দিলেন ব্যারিস্টার সুমন

শিল্প এবং সংস্কৃতির উন্নয়নে বিনিয়োগ বাড়াতে হবে : তথ্যপ্রতিমন্ত্রী

ভারতের পররাষ্ট্র সচিবের ঢাকা সফর স্থগিত

এক বন্ধুরাষ্ট্রকে খুশি করতে গিয়ে অন্যের বিরাগভাজন হতে পারি না: সেনাপ্রধান

সোনার দাম আবারও বাড়ল, ভরি ১ লাখ ১৯ হাজার ৬৩৮ টাকা

ব্রিটিশ দূতের সঙ্গে বিএনপির বৈঠক