রবিবার, ২৩শে জানুয়ারি, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ ৯ই মাঘ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

৮ পুলিশসহ সরাইলে সংঘর্ষে আহত ৩০

clashm-300x240প্রতিবেদক :: তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে সরাইলে দুই গোষ্ঠীর সংঘর্ষে পুলিশ সহ উভয় পক্ষের ৩০ জন আহত হয়েছে। গত রোববার রাত ৯টায় উপজেলার সদরের সকাল বাজার এলাকায় এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, দক্ষিণ আরিফাইল গ্রামের বাসিন্ধা হানিফ মিয়ার ভগ্নিপতি দ্বীন ইসলাম (৩০) সকাল বাজারের ফরিদ মিয়ার সিএনজি অটোরিক্সা ভাড়ায় চালাত। ঘটনার রাতে সিএনজির আমদানীর টাকা নিয়ে ফরিদ মিয়ার ছেলে মাসুদের (২৫) সাথে চালক দ্বীন ইসলামের প্রথমে বাকবিতন্ডা ও পরে হাতাহাতির ঘটনা ঘটে। এতে মাসুদ গুরুতর আহত হয়। মাসুদের স্বজনরা উত্তেজিত হয়। রাত ৯টায় উভয় গোষ্ঠীর লোকজন দেশীয় অস্থে  সজ্জিত হয়ে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। এতে সকাল বাজার সহ আশ পাশের এলাকার বাসিন্ধাদের মধ্যে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে। উভয় পক্ষের মধ্যে চলে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া ও ইট পাটকেল নিক্ষেপ। সরাইল থানার পাশাপাশি জেলা থেকে এক প্লাটুন রিজার্ভ পুলিশ ঘটনা স্থলে পৌঁছে ২৭ রাউন্ড রাবার বুলেট ছুড়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে সক্ষম হয়। এক ঘন্টা স্থায়ী এ সংঘর্ষে পুলিশ সহ উভয় পক্ষের অন্তত: ২০ জন আহত হয়েছে। গুরুতর আহত মাসুদকে জেলা সদর ও রাবার বুলেট বিদ্ধ আক্তার মিয়া (২৬) নামের এক যুবককে ঢাকায় প্রেরন করা হয়েছে। সংঘর্ষে আহত পুলিশ সদস্যরা হলেন- এস আই কামরুজ্জামান, এস আই শহিদুল ইসলাম, এ এস আই কবিরুল, এ এস আই মিজানুর রহমান, কন্সটেবল মঈনুল, জিয়াউর রহমান ও শাহজালাল। এ ঘটনায় পুলিশ বাদী হয়ে ৩৬ জনের নাম উল্লেখ করে ও অজ্ঞাতনামা আরো দেড়শত লোকের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেছে।

সরাইল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোঃ আলী আরশাদ বলেন, বর্তমানে পরিস্থিতি স্বভাবিক রয়েছে। এলাকায় পুলিশ মোতায়েন আছে।