বৃহস্পতিবার, ১১ই আগস্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ ২৭শে শ্রাবণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

মোদিতে মুসলিম ভোট কমবে

5324244ad2fe1-2ভারতের আসন্ন লোকসভা নির্বাচনে প্রধানমন্ত্রী হিসেবে বিজেপি নরেন্দ্র মোদির নাম ঘোষণা না করলে সংখ্যালঘু মুসলিম ভোট বেশি পেত বলে মনে করেন ২৫ দশমিক ৮ শতাংশ ভোটার।

রাহুল গান্ধীকে কংগ্রেসের প্রধানমন্ত্রী প্রার্থী হিসেবে ঘোষণা করা উচিত ছিল বলে মনে করেন ৩৪ দশমিক ৪ শতাংশ ভোটার। ভারতের আসন্ন লোকসভা নির্বাচন নিয়ে জি-নিউজ ও গবেষণা সংস্থা তালিমের যৌথ সমীক্ষায় এ তথ্য পাওয়া গেছে।

ভারতের ৫৬টি লোকসভা কেন্দ্রের ১৩ হাজার ৪২৮ জন ভোটারের মধ্যে এ সমীক্ষা চালানো হয়। গতকাল শুক্রবার রাতে সেই সমীক্ষার দ্বিতীয় কিস্তির ফলাফল প্রকাশ করা হয়েছে।



সমীক্ষায় জানানো হয়, এবার বিজেপির নেতৃত্বাধীন জাতীয় গণতান্ত্রিক জোট (এনডিএ) ক্ষমতায় আসার পথ প্রশস্ত করেছে। এনডিএ পেতে পারে ২১৭ থেকে ২৩১টি আসন। কংগ্রেসের নেতৃত্বাধীন সংযুক্ত প্রগতিশীল মোর্চা (ইউপিএ) পেতে পারে ১২০ থেকে ১৩৩টি আসন। বামদলের নেতৃত্বাধীন তৃতীয় ফ্রন্ট পেতে পারে ৮৩ থেকে ১১৫টি আসন।



সমীক্ষায় জানানো হয়, যোগ্য প্রধানমন্ত্রী হিসেবে উঠে এসেছে মোদির নাম। ৪৬ দশমিক ১ শতাংশ ভোটার চাইছে মোদিকে। এরপর পছন্দের তালিকায় আছেন যথাক্রমে রাহুল গান্ধী (২১ দশমিক ২ শতাংশ ), অরবিন্দ কেজরিওয়াল (৪ দশমিক ২ শতাংশ), মায়াবতী (২ দশমিক ৯ শতাংশ), মুলায়ম সিং যাদব (২ দশমিক ২ শতাংশ), মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (২ শতাংশ), শারদ পাওয়ার (১ দশমিক ৭ শতাংশ), জয়ললিতা (১ দশমিক ১ শতাংশ), নীতিশ কুমার (শূন্য দশমিক ৯ শতাংশ) ও নবীন পট্টনায়েক (শূন্য দশমিক ৫ শতাংশ)।



সমীক্ষার ফলাফলে জানানো হয়, প্রধানমন্ত্রী হিসেবে বিজেপির পছন্দের তালিকার দ্বিতীয় স্থানে আছেন লালকৃষ্ণ আদভানি (৩৪ দশমিক ৫ শতাংশ), সুষমা স্বরাজ (১৬ দশমিক ৯), রাজনাথ সিং (১৩ দশমিক ৩), শিবরাজ সিং চৌহান (৫ দশমিক ৯) ও অরুণ জেটলির (৩ দশমিক ৮ শতাংশ)।