শুক্রবার, ২১শে জানুয়ারি, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ ৭ই মাঘ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

আশুগঞ্জে বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদ সমাবেশ

sar-karkhana-300x163নিজস্ব প্রতিনিধি : আসন্ন বিশ্বকাপ খেলা ও সেচ মৌসুম জন্য নিরবিচ্ছিন্ন ভাবে বিদ্যুৎ সরবরাহের কারনে দেশের সবগুলো সার কারখানায় গ্যাস সরবরাহ বন্ধ করে বন্ধ বিদ্যুৎ কেন্দ্র গুলো চালু রাখার উদ্যোগ নিয়েছে সরকার। সরকারী এ সিদ্ধান্তের প্রতিবাদে ও আশুগঞ্জ সার কারখানার গ্যাস সরবরাহ বন্ধ না রেখে অব্যাহত রাখার দাবিতে শ্রমিক-কর্মচারীরা বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদ সমাবেশ করেছে।

শনিবার সকাল ৮টা থেকে ১০টা পর্যন্ত কারখানার শ্রমিক-কর্মচারীরা কাজ বন্ধ করে দিয়ে কারখানার প্রধান গেইটের সামনে বিক্ষোভ করে ও প্রতিবাদ সমাবেশ করে। কর্মসূচি চলাকালে প্রায় ২ঘন্টা কারখানা থেকে কমান্ড এরিয়া ভুক্ত ৭ জেলায় সার সরবরাহ বন্ধ ছিল।


প্রতিবাদ সমাবেশে কারখানা শ্রমিক-কর্মচারী ইউনিয়নের সভাপতি জিন্নাত আলী সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন সিবিএ সাধারণ সম্পাদক ফরিদ উদ্দিন আহমেদ,সিনিয়র সহ-সভাপতি সাইফুদ্দিন ফারুকী, আমিন খন্দকার প্রমুখ।


এদিকে,কারখানার চলতি অর্থ বছরে ২লক্ষ মেট্রিক টন ইউরিয়া সার উৎপাদন লক্ষমাত্রা নির্ধারন করেন। বর্তমানে ১লক্ষ ৮৪হাজার মেট্রিক টন ইউরিয়া সার উৎপাদন হয়েছে। লক্ষমাত্রা নির্ধারনের বাকী আরো ১৬শ মেট্রিকটন। এ জন্য লক্ষ্য মাত্রা নির্ধারনে চলতি মার্চ মাস পর্যন্ত কারখানার উৎপাদন চালু রাখতে হবে।


সিবিএ সাধারন সম্পাদক ফরিদ উদ্দিন জানান, বিসিআইসির লাভজনক প্রতিষ্ঠান আশুগঞ্জ সার কারখানা। এজন্য কারখানার গ্যাস সরবরাহ ব্যাহত রাখলে চলতি অর্থ বছরে কারখানা লক্ষ মাত্রা অর্জিত হবে। আর গ্যাস সরবরাহ বন্ধ থাকলে লক্ষ্যমাত্রা অর্জিত হবে না। এতে করে শ্রমিক-কর্মচারীরা আর্থিক ভাবে ক্ষতি গ্রস্থ হবে। যদি কারখানার গ্যাস সরবরাহ অব্যাহত না রাখা হয় তাহলে শ্রমিক-কর্মচারীরা কঠোর আন্দোলনের কর্মসূচি দেয়া হবে।