বুধবার, ৮ই ফেব্রুয়ারি, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ ২৫শে মাঘ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

চর ইসলামপুর তাবলিগ পন্থিদের উপর নির্যাতন ,উত্তপ্ত ব্রাহ্মণবাড়িয়ার রাজপথ।

tablig04.03.14[1]গত কিছুদিন আগে ফেসবুকে নবী(সাঃ) কে নিয়ে (নূরের তৈরি দন্দে) এখন উত্তপ্ত ব্রাহ্মণবাড়িয়ার রাজপথ, ঘটনাটি ঘটেছে বিজয়নগর উপজেলার চর ইলামপুর গ্রামে। এ নিয়ে গত ৩ মার্চ সোমবার বিকেলে গ্রাম্য সালিসে চর ইসলামপুরের চেয়ারম্যান, মেম্বার সহ গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গের উপস্থিতিতে তাবলিগ পন্থীকে অন্যায়ভাবে গলায় জুতার মালা পড়িয়ে লাঞ্চিত করে স্থানীয় মাতাব্বরগণ এবং বাড়িঘর জ্বালিয়ে দেওয়ার হুমকি দেয়। পরিস্থিতির শিকার তাবলিগ পন্থীরা এসে জামিয়া ইউনুছিয়া মাদ্রাসায় ঘটনার বিবরণ দিলে পরিস্থিতি পাল্টে উত্তেজনায় রুপ নেয়। এ নিয়ে আজ বেলা ১২ ঘটিকায় নির্যাতনের বিচার ও সালিসকারীদের কঠোর বিচার দাবী করে বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ করেছে কওমী উসলামী ছাত্র ঐক্য পরিষদ ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা।

মিছিল সমাবেশে বক্তারা কর্মসূচী ঘোষণা করেন, অনতিবিলম্বে যদি নির্যাতনকারীদের বিচার না হয় যে কোন মূল্যে তাদের বিচার করার হুসিয়ারী দেন, সমাবেশ থেকে কর্মসূচী ঘোষণা করেন কওমী ইসলামী ছাত্র ঐক্য পরিষদের সেক্রেটারী হাফেজ জুনায়েদ আহম্মদ, তিনি বলেন ঘটনা সম্পর্কে আমরা সকল তথ্য সংগ্রহ করেছি, এনিয়ে বিজয়নগরের গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গের সাথে আলোচনা করেছি। তাদের সাথে সাক্ষ্যাৎ করলে তারা বলেন আমরা ২ দিনের মধ্যেই সমাধান করে দিব। কিন্তু ২দিন সময় অতিবাহিত হওয়ার আগেই তাদেরকে লাঞ্চিত করে বাড়িঘর জ্বালিয়ে দেওয়ার হুমকি দেওয়া হচ্ছে। আমরা বলতে চায় ঘটনার সঠিক বিচার হওয়ার লক্ষ্যে আগামীকাল সকাল ১০ ঘটিকায় বিঝয়নগরে বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ, বিকাল ৪ ঘটিকায় আমতলী বাজারে বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ, তারপরও যদি সমাধান না হয় ডিসি অফিস ঘেরাও সহ চর ইসলামপুর অভিমুখে গণ মিছিল নিয়ে রওয়ানা হব ইনশাআল্লাহ্। সমাবেশ কওমী ইসলামী ছাত্র ঐক্য পরিষদের সভাপতি হাফেজ খাইরুল ইসলামের সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন হাফেজ এরশাদ উল্লাহ, মাওলানা শরীফ, এম নুরুল্লাহ আল মানছুর প্রমুখ।