মঙ্গলবার, ১৬ই এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ ৩রা বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন বিশিষ্ট নারী নেত্রী এডভোকেট নিশাত

nishatbব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন জেলা মহিলা আওয়ামীলীগ সাধারণ সম্পাদক বিশিষ্ট নারী নেত্রী এডভোকেট তাসলিমা সুলতানা খানম নিশাত। মনোনয়নপত্র জমা দিয়ে তিনি সাংবাদিকদের বলেন দল থেকে মনোনয়ন দিলেই নির্বাচন করবো।মনোনয়নপত্র জমাদানকালে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন জেলা আওয়ামীলীগ নেতা শাহআলম সরকার, আওয়ামী যুব আইনজীবি পরিষদের সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট সাইফুল ইসলাম,মহিলা আওয়ামীলীগ নেত্রী মিলি আক্তার প্রমুখ। 



মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী হিসেবে সব মহলেই আলোচনায় আছে এডভোকেট নিশাতের নাম। যোগ্য বিবেচনায় বিভিন্ন শ্রেনী পেশার মানুষ  এ পদের জন্যে সবচেয়ে ভালো প্রার্থী  হিসেবে এই নারী নেত্রীর কথাই বলছেন । এডভোকেট নিশাত এর আগে নবম জাতীয় সংসদের সংরক্ষিত আসনে মহিলা সংসদ সদস্য হওয়ার জন্যে দলীয় মনোনয়ন জমা দিয়েছিলেন। নিশাত রাজনৈতিক ও বিভিন্ন সামাজিক সাংস্কৃতিক সংগঠনের সঙ্গে জড়িত। ১৯৮৯ সালে ছাত্রলীগে যোগদানের মাধ্যমে তিনি ছাত্র রাজনীতিতে সম্পৃক্ত হন এবং ঐ সময় ব্রাহ্মণবাড়িয়া সরকারী কলেজ শাখা ছাত্রলীগের মহিলা সম্পাদিকা নির্বাচিত হন। পরবর্তীতে জেলা ছাত্রলীগের মহিলা সম্পাদিকা নির্বাচিত হয়ে ১৯৯৮ সাল পর্যন্ত দায়িত্ব পালন করেন।এরপর ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা মহিলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদিকা নির্বাচিত হন। তিনি দীর্ঘ এই সময়ে নানা আন্দোলন সংগ্রামে অগ্রনী ভূমিকা পালন করেন।একারনে একাধিক মামলাও হয় তার বিরুদ্ধে।তাসলিমা সুলতানা খানম নিশাত কেন্দ্রীয় খেলাঘর আসরের জাতীয় পরিষদ সদস্য, কন্যা শিশু এডভোকেসী ফোরাম,ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা শাখার সদস্য সচিব, তিতাস সাহিত্য-সংস্কৃতি পরিষদের উপদেষ্টা এবং বিকশিত নারী নেটওয়ার্ক, ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সভানেত্রী। তিনি সুইড-বাংলাদেশ ,ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা শাখার সাধারন সম্পাদক।এর আগে সুইড পরিচালিত আসমাতুন্নেছা বুদ্ধি প্রতিবন্ধী স্কুল এর প্রতিষ্ঠাকাল থেকে ১৫ বছর প্রধান শিক্ষক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন।এরপর আইনপেশায় জড়িত হন।২০১২ সালের এপ্রিলে তিনি এপিপি(সহকারী পাবলিক প্রসিকিউটর)নিযুক্ত হন। এডভোকেট নিশাত ব্রাহ্মণবাড়িয়ার মহিলাদের ক্রীড়া উন্নয়নেও ভূমিকা রাখেন। তিনি ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা মহিলা ক্রীড়া সংস্থার সাংগঠনিক সম্পাদিকা হিসেবে ১৯৯৮ সাল থেকে ২০০২ সাল পর্যন্ত দায়িত্ব পালন করেন । এসময় ক্রীড়া দলের টীম লিডার হিসেবে বিভাগীয় এবং জাতীয় পর্যায়ে ব্রাহ্মণবাড়িয়া দলের ব্যাপক সফলতা বয়ে আনতে সক্ষম হন। রাজনৈতিক,সামাজিক-সাংস্কৃতিক সংগঠনের সঙ্গে সম্পৃক্ততা ছাড়াও   ২০০৭ সালে তিনি নারী সাংবাদিকতায় “সালমা সোবহান ফেলোশীপ (ই-মিডিয়া) অর্জন করেন।তিনি ব্রাহ্মণবাড়িয়া থেকে প্রকাশিত জনপ্রিয় সাপ্তাহিক ‘গতিপথ’ এর নির্বাহী সম্পাদক। দি হাঙ্গার প্রজেক্ট বাংলাদেশ এর স্বেচ্ছাসেবক হিসেবে ২০০৩ সালে ভারত এবং ২০০৫ সালে অষ্ট্রেলিয়া সফর করেন এডভোকেট নিশাত। 

এ জাতীয় আরও খবর

দিনে ১২ প্রবাসীর লাশ আসে দেশে

অনির্দিষ্টকালের জন্য আইপিএল থেকে বিরতিতে ম্যাক্সওয়েল

ফরিদপুরে বাস-পিকআপ ভ্যান সংঘর্ষে নিহত ১১

ইরানের হামলা ঠেকাতে ইসরায়েলের খরচ ১.৩ বিলিয়ন ডলার, তেহরানের খরচ তেলআবিবের এক দশমাংশ

১৫০ উপজেলায় ১৮৯১ প্রার্থীর মনোনয়ন দাখিল

ডিপিএলে এক ম্যাচে তিন সেঞ্চুরি

মুস্তাফিজের আইপিএলে খেলার ছুটি বাড়াল বিসিবি

আ’লীগ থেকে বড় মনিকে সাময়িক অব্যাহতি

পথে-ঘাটে-সচিবালয়ে, সর্বত্র ইসরায়েলে ইরানের হামলার প্রসঙ্গ

ইসরায়েলের আকাশে শক্তি প্রদর্শন ইরানের

নিজেদের রেকর্ড ভেঙে আইপিএলের সর্বোচ্চ রান হায়দরাবাদের

২৩ নাবিকসহ ২২ এপ্রিল দুবাইয়ে নোঙর করবে এমভি আবদুল্লাহ