বৃহস্পতিবার, ১লা ডিসেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ ১৬ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

কসবায় বিএনপি’র একক প্রার্থী বেকায়দায় আওয়ামী লীগ

Upzila-electionফরহাদুল ইসলাম পারভেজ  :
উপজেলা নির্বাচনের তফসিল ঘোষণার পর কসবায় বইছে নির্বাচনের হাওয়া। উপজেলার সম্ভাব্য প্রার্থীরা এখন মাঠে ময়দানে ব্যস্ত সময় কাটাচ্ছেন। বড় দু’দল বিএনপির একক প্রার্থী মো. ইকলিল আজম। আওয়ামী লীগ ও জাপার একাধিক প্রার্থী থাকায় একক প্রার্থী নির্বাচনে হিমশিম খেতে হচ্ছে শীর্ষ নেতাদের। সম্ভাব্য প্রার্থীরা দলীয় সমর্থন পেতে একদিকে যেমন শীর্ষ নেতাদের নিকট গ্রুপিং চালিয়ে যাচ্ছেন অপরদিকে নেতাকর্মী ও ভোটারদের সমর্থন পেতে পাড়া-মহল্লায় গিয়ে শুভেচ্ছা বিনিময় করছেন। তাছাড়া উপজেলার অলিতে-গলিতে, দেয়ালে ব্যানার, পোস্টার, ফেস্টুন টানিয়ে দোয়া কামনা করছেন।
  চেয়ারম্যান পদে বিএনপি’র একক প্রার্থী কসবা বর্তমান উপজেলা পরিষদ ভাইস-চেয়ারম্যান ও বিএনপি সাধারণ সম্পাদক মো. ইকলিল আজম। সাবেক সাংসদ মুশফিকুর রহমানের নেতৃত্বে (১৯ ফেব্রুয়ারী) বুধবার স্থানীয় আলতাফ প্লাজায় বিএনপি’র সম্ভাব্য সকল প্রার্থীদের নিয়ে কাউন্সিলের মাধ্যমে একক প্রার্থী হিসেবে মো. ইকলিল আজমকে চেয়ারম্যান, মো. শরিফুল ইসলাম ভূইয়া ও লুৎফুর নাহার (রিনা) কে ভাইস ও মহিলা ভাইস-চেয়ারম্যান পদে প্রার্থী হিসেবে ঘোষণা করে। এসময় উপস্থিত ছিলেন ব্রাহ্মনবাড়িয়া জেলা বিএনপি সহ-সভাপতি হাফিজুর রহমান মোল্লা কচি,সাংগঠনিক সম্পাদক জহিরুল হক খোকনসহ জেলা নেতৃবৃন্দ। বিদ্রোহী প্রার্থী না থাকায় বিএনপি নেতা কর্মীরা রয়েছে ফুরফুরে মেজাজে। মাঠ চষে বেড়াচ্ছে একক প্রার্থী নিয়ে। জন সাধারণের নিকট তুলে ধরছে সরকারের ব্যর্থতার চিত্র।
  এদিকে স্থানীয় সাংসদ আইন, বিচার ও সংসদ বিষয়ক মন্ত্রী এডভোকেট আনিসুল হক আওয়ামীলীগের ৫ প্রার্থী ও কাউন্সিলদের নিয়ে গত (২৮ ফেব্রুয়ারি) শুক্রবার উপজেলা অডিটরিয়ামে একক প্রার্থী নির্বাচনে বৈঠক করেন। সকল কাউন্সিলর ও ৫ প্রার্থী আইনসন্ত্রীর নিকট দায়িত্ব একক প্রার্থী ঘোষণার। তিনি আগামী ৪ মার্চ আওয়ামীলীগের একক প্রার্থী ঘোষণা করবেন বলে কাউন্সিলদের জানান। আওয়ামী লীগের সম্ভাব্য চেয়ারম্যান প্রার্থীরা হলেন; বর্তমান উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান রুহুল আমিন ভুইয়া বকুল, সাবেক যুবলীগ সাধারণ সম্পাদক ও সাবেক চেয়ারম্যান মো. মঞ্জুর আলম,উপজেলা আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক কাজী মো. আজহারুল ইসলাম, সাবেক সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট আনিছুল হক ভুইয়া, তৃণমুল আওয়ামী লীগ আহ্বায়ক মো. তসলিমুর রেজা। 
অপরদিকে জাতীয় পার্টির সম্ভাব্য চেয়ারম্যান প্রার্থীরা হলেন; উপজেলা জাতীয় পার্টির সভাপতি এডভোকেট হারুনুর রশীদ খান, বিশিষ্ট ব্যাবসায়ী আলহাজ্ব আইয়ুব আলী ভুইয়া, জাপা নেতা মোহাম্মদ তারেক আদেল ও সাবেক সাংসদ মরহুম লিয়াকত আলীর ছেলে নায়েল আলী। এদিকে স্থানীয় সরকারের এ নির্বাচনকে চ্যালেঞ্জ হিসেবে গ্রহণ করছে আওয়ামী লীগ ও বিএনপি নেতারা। উপজেলা পরিষদ নির্বাচনকে ঘিরে আওয়ামীলীগের নেতা কর্মীরা বিভিন্ন ধারায় বিভক্ত হয়ে তাদের মনোনয়ন যুদ্ধে নেমেছে। সাধারণ ভোটারদের ধারণা আওয়ামীলীগ যদি একক প্রার্থী না দিতে পারে তাহলে নিশ্চিত ভরাডুবি হবে তাদের। জাতীয় পাটির প্রেসিডিয়াম সদস্য জাহাঙ্গীর মোহাম্মদ আদেলের ছেলে তারেক এ আদেল ও গত সংসদ নির্বাচনে জাতীয় পাটির মনোনয়ন প্রত্যাশী মো. আইয়ুব আলী ভূইয়াকে নিয়ে রয়েছে টানা পোড়েন কেউ ছাড় দিতে নারাজ।

 

এ জাতীয় আরও খবর

পোল্যান্ডকে উড়িয়ে গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন আর্জেন্টিনা

ফের আর্জেন্টিনার গোল, ২-০ গোলে এগিয়ে আর্জেন্টিনা

পেনাল্টি মিস করলেন মেসি, প্রথমার্ধ গোলশূন্য

পরিবহন ধর্মঘট থাকায় রাতেই মাঠে চলে এসেছেন বিএনপি নেতারা

শাহজালাল বিমানবন্দর : টার্মিনাল এলাকায় যানজট, লাগেজ মাথায় নিয়ে হাঁটছেন বিদেশগামীরা

আপনার শর্ত দেওয়ার দিন শেষ, এখন শর্ত দেবে বিএনপি : গয়েশ্বর

‘আগুন সন্ত্রাসে বিএনপি নয়, আ.লীগই অভ্যস্ত’

আবাহনীকে হারিয়ে ফাইনালে শেখ রাসেল

ষোলো বছরের অপেক্ষা অবসান অস্ট্রেলিয়ার

আন্দোলন দমনে মরিয়া সরকার: ফখরুল

পাকিস্তান প্রেমীদের পাকিস্তানে পাঠিয়ে দেওয়া হবে: শেখ সেলিম

বিএনপির মঞ্চে ‘হেলমেট বাহিনী’র হামলা, পুলিশ বলছে ‘কোন্দল’