শনিবার, ২৯শে জানুয়ারি, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ ১৫ই মাঘ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

হাইকোর্টের আদেশ দু‘সপ্তাহের জন্য স্থগিত

news-image

BrahmanbariaAshuganj-Pic-150x150আশুগঞ্জ বিদ্যুৎ কেন্দ্রের নির্মিতব্য প্রায় সাড়ে ১৩‘শ মেগাওয়াট ক্ষমতাসম্পন্ন ৪টি ইউনিটের ভারী মালামাল আনলোডিং-এ মেঘনা নদীর ঘাটে নির্মানাধীন মুড়িং টার্মিনাল (অস্থায়ী জেটি) ভেঙ্গে ফেলা ও নদী দখলে সব ধরনের সামগ্রী সরিয়ে নেয়ার আদেশের জবাবে সুপ্রীম কোর্টের হাইকোর্ট এফিলেটেড ডিভিশনে আশুগঞ্জ বিদ্যুৎ কেন্দ্রের দায়ের করা স্থগিতাদেশের প্রেক্ষিতে উক্ত রীট পিটিশনের কার্যকারিতা ২সপ্তাহের জন্য স্থগিতাদেশ প্রদান করে আজ ২৪ ফেব্রুয়ারি শুনানীর দিন ধায্য করেছে সুপ্রীম কোর্টের এফিলেটেড ডিভিশন। বিদ্যুৎ কেন্দ্র কর্তৃপক্ষ জানায় এ ক্ষেত্রে মহামান্য আদালতের নির্দেশনা অনুসারে পরবর্তী পদক্ষেপ নেয়া হবে। আশুগঞ্জ বিদ্যুৎ কেন্দ্র কর্তৃপক্ষ জানায়, বর্তমানে এ কেন্দ্রের অধীনে প্রায় ১৩‘শ মেগাওয়াট ক্ষমতা সম্পন্ন ৪টি বৃহৎ ইউনিটের নির্মাণ কাজ চলছে। নির্মাণাধীন এসব প্রকল্পের বৃহৎ টার্বোজেনারেটসহ ভারী মালামাল মার্চ মাসের প্রথম সপ্তাহে আশুগঞ্জ পৌছার কথা। এসব জেনাারেটরের ওজন ৩৮০ মেট্রিক টন বা তারও বেশী কিন্ত বিদ্যুৎ কেন্দ্রের নিজস্ব জেটির ক্ষমতা ৮০ মেট্রিক টন। তাই এসব ভারী মালামাল আনলোডিং/পরিবহনের জন্য বিদ্যুৎ কেন্দ্রের পাশে মেঘনা নদীর ঘাটে একটি অস্থায়ী জেটি নির্মাণের সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। মালামাল বহনকারী ঠিকাধারী প্রতিষ্ঠান কনভেয়ার গ্রুপের সাব কন্ট্রাকটর হিসাবে এ অস্থায়ী জেটি নির্মাণের দায়িত্ব পায় আশুগঞ্জ আওয়ামী লীগের সভাপতি হাজী ছফিউল্লাহ মিয়া‘র প্রতিষ্ঠান মেসার্স ছফিউল্লাহ এন্টারপ্রাইজ। বিদ্যুৎ কেন্দ্রের অনুমতি সাপেক্ষে তারা এ জেটি নির্মাণ কাজ শুরু করলে এটিকে নদীদখল হিসাবে বিভিন্ন গণমাধ্যমে সংবাদ প্রচারিত হয়। এসব গণমাধ্যমের খবরে অবগত হয়ে হিউম্যান রাইটস এন্ড পিস ফর বাংলাদেশ নদী দখল রোধ ও অবৈধ স্থাপনা সরিয়ে নিতে উচ্চ আদালতে রীট পিটিশন দায়ের করে। বিজ্ঞ আদালত রীটের প্রেক্ষিতে এ জেটি নির্মাণ কার্যক্রম স্থগিত করে সাত দিনের মধ্যে নদী দখল রোধে সব ধরনের মালামাল অপসারনের নির্দেশ প্রদান করে। বিদ্যুৎ কেন্দ্র কর্তৃপক্ষ গত ১৯ ফেব্রুয়ারি জেটি নির্মাণ বন্ধ না করতে ও উক্ত রীট পিটিশনের কার্যকারিতা স্থগিতাদেশ চেয়ে মহামান্য সুপ্রীম কোর্টের এফিলেটেট ডিভিশনে একটি আপিল দায়ের করে। মহামান্য সুপ্রীম কোর্টের এফিলেট ডিভিশন আজ সোমবার  ২৪ ফেব্রুয়ারি শুনানীর দিন ধায্য করে উক্ত রীট পিটিশন কার্যকারিতা ২ সপ্তাহের জন্য স্থগিতাদেশ প্রদান করে। । এব্যাপারে আশুগঞ্জ পাওয়ার ষ্টেশন ব্যব¯হাপনা পরিচালক প্রকৌশলী মোঃ নুরুল আলম জানান, সুপ্রীম কোট রীটের কার্যকারিতা ২ সপ্তাহের জন্য স্থগিত করেছেন। এটি নদী দখল নয়, আমাদের নিজস্ব জেটির ক্ষমতা ৮০ মেট্রিক টন, নতুন প্রতিটি জেনারেটরের ওজন ৩৮০ মেট্রিক টনের বেশী। সুতরাং এ মুড়িং টার্মিনাল (অস্থায়ী জেটি) নির্মাণ করা না গেলে মালামাল পরিবহন সম্ভব হবেনা। নৌমন্ত্রণালয়ের সাথে চুক্তি অনুসারে মালামাল পরিবহন শেষে এ সব স্থাপনা সরিয়ে নেয়া হবে। এব্যাপারে আদালতের রায় অনুসারে পরবর্তী পদক্ষেপ নেয়া হবে। মালামাল পরিবহন শেষে নদীঘাট পুর্বতন অবস্থায় ফিরিয়ে দেয়া হবে এবং বিষয়টি জাতীয় গুরুত্বপুর্ণ হওয়ায় অনুমতি প্রদান করা হয়েছে বলে জানান বিআইডব্লিউটিএ-এর যুগ্ম পরিচালক মঞ্জুর কাদের।

এ জাতীয় আরও খবর