মঙ্গলবার, ৯ই আগস্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ ২৫শে শ্রাবণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

মেয়রের নাম ভাঙ্গিয়ে লোকনাথ দিঘীর পাড়ের বৃক্ষ নিধন

br-loknath-23-02-14রবিবার ভোর রাতে রাতে ব্রাহ্মণবাড়িয়া শহরের লোকনাথ দিঘীর পাড়ের দুর্লভ বিভিন্ন প্রজাতির গাছ কেটে ফেলেছে ইজারাদারের লোকজন। প্রত্যদর্শীরা জানায়, ভোর রাতে ইজারাদার মেড্ডা এলাকার ফজু মিয়ার লোকজন লোকনাথ দিঘীর চর্তুদিকের দুর্লভ প্রজাতির গাছসহ বিভিন্ন প্রজাতির গাছ কাটা শুরু করে। সকালে প্রাতঃভ্রমনে আসা লোকজন গাছ কাটার দৃশ্য দেখতে পেয়ে প্রথমে হতবাক হয়ে পড়ে। খবর পেয়ে স্থানীয় লোকজন ও বৃপ্রেমীরা এসে বাধা প্রদান করে। গাছ কাটা শ্রমিকরা জানায়, ইজারাদার ফজু মিয়া পৌর মেয়র হেলাল উদ্দিনের ভগ্নিপতি। তার অনুমতি নিয়েই গাছ কাটছেন। এ বিষয়ে কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে ইজারাদারের গাছ কাটার শ্রমিকরা পালিয়ে যায়। লোকনাথ দিঘীর পাড় মসজিদ কমিটির সাধারণ সম্পাদক আবু নাসের বাহার জানান, কয়েক বছর পূর্বে আমরা দুর্লভ প্রজাতির বিভিন্ন গাছ রোপন করি। আজ গাছ অনেক বড় হয়েছে। ইজারাদার প্রভাবশালী হওয়ায় কোন তোয়াক্কা না করেই গাছ নিধনসহ দিঘীর পাড় এর ব্যাপক ক্ষতি সাধন করছে। এখানে প্রতিদিন শহরের বিভিন্ন মহলার কয়েক হাজার মানুষ সকাল, বিকাল ও রাতে শরীর চর্চা করতে আসে। এটি ছাড়া শহরের আর কোথাও এরকম মনোরম প্রাকৃতিক পরিবেশ নেই। পরিবেশ অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক সাইফুলাহ তালুকদার জানান, এটি আমাদের বিষয় নয়। লোকনাথ দিঘীর পাড় জেলা প্রশাসন ও সদর উপজেলা বণ বিভাগের অধীনে রয়েছে। সদর উপজেলা বন কর্মকর্তা শাহজাহান জানান, দিঘীটি যেহেতু পৌরসভার তাই গাছ কাটার বিষয়টি পৌরসভা দেখভাল করবে। পৌর মেয়র হেলাল উদ্দিন জানান, আমি কাউকে গাছ কাটার অনুমতি দেয়নি। এখনই গাছ কাটা বন্ধ করছি।