বৃহস্পতিবার, ২রা ফেব্রুয়ারি, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ ১৯শে মাঘ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

রেনজির নেতৃত্বে ইতালিতে নতুন সরকারের শপথ

5308ddd4a9436-Untitled-3ইতালির মধ্য বামপন্থী রাজনীতিবিদ মাত্তিও রেনজির নেতৃত্বাধীন সরকার গতকাল শনিবার শপথ নিয়েছে। এর মাধ্যমে ডেমোক্রেটিক পার্টির এই নেতা ইতালির সবচেয়ে কম বয়সী প্রধানমন্ত্রী হলেন।

গত শুক্রবার রেনজি আনুষ্ঠানিকভাবে প্রধানমন্ত্রী পদের জন্য নির্বাচিত হয়েছেন। পরে তিনি সরকার গঠনের লক্ষ্যে মন্ত্রিসভাও ঘোষণা করেন। তবে ইতালির মতো দেশের অর্থনৈতিক সংকট কাটিয়ে ওঠার মতো চ্যালেঞ্জ মোকাবিলায় তাঁর রাজনৈতিক পরিপক্বতা নিয়ে সংশয় রয়েছে দেশের মানুষের।

গতকাল স্ত্রী ও তিন সন্তান নিয়ে রোমে শপথ নিতে প্রেসিডেন্ট প্রাসাদে যান ফ্লোরেন্সের সাবেক মেয়র রেনজি। ইউরোজোনের তৃতীয় বৃহত্তম অর্থনীতির দেশ ইতালি সরকারের দায়িত্ব নেওয়া মধ্য বামপন্থী এই ১৬ সদস্যের মন্ত্রিসভা গঠন করেন। তাঁর মন্ত্রিসভার অর্ধেক সদস্য নারী এবং তাঁদের গড় বয়স ৪৭ বছর আট মাস। রেনজির পাশাপাশি বয়সের দিক থেকে ইতালির ইতিহাসে এই সরকারের সদস্যদের গড় বয়স অনেক কম।

রেনজির আগে ইতালির সর্বকনিষ্ঠ প্রধানমন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব নিয়েছিলেন বেনিতো মুসোলিনি। তিনি ১৯২২ সালে যখন প্রধানমন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব নেন, তখন তাঁর বয়স ছিল বর্তমান রেনজির চেয়ে দুই মাস বেশি। রাজনৈতিক পর্যবেক্ষক মারিও ক্যালাব্রেসি বলেন, নতুন মুখ ও তারুণ্যনির্ভর মন্ত্রিসভা করে রেনজি বড় ধরনের ঝুঁকি নিচ্ছেন। তবে সরকারের অভিজ্ঞতা ও সামর্থ্য নিয়ে অবশ্য সংশয় থাকবে।

চলতি মাসের শুরুতে ডেমোক্রেটিক দলেরই নেতা ও আগের প্রধানমন্ত্রী এনরিকো লেত্তা পদত্যাগ করেন। লেত্তার বিরুদ্ধে অভিযোগ, তিনি প্রতিশ্রুতিমতো সংস্কারকাজ করতে পারেননি। লেত্তাকে সরানোর ক্ষেত্রে পেছন থেকে এই রেনজি কলকাঠি নাড়েন বলে শোনা যাচ্ছে।

রেনজি আশা করেন, তাঁর নেতৃত্বে অর্থনৈতিক সংকটে পতিত দেশ নতুন আশার আলো খুঁজে পাবে। দেশবাসীকে তিনি আশ্বাস দেন, শুল্ক ও শিক্ষাক্ষেত্রে চার মাসের মধ্যেই সংস্কার আসবে। বিবিসি।