শুক্রবার, ১২ই আগস্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ ২৮শে শ্রাবণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

প্রাথমিকে বৃত্তি পেল ৫৪ হাজার শিক্ষার্থী

র মধ্যে ২১ হাজার ৯৭৮ জন মেধাবৃত্তি (ট্যালেন্টপুল) এবং ৩২ হাজার ৪৩৪ জন সাধারণ বৃত্তির জন্য মনোনীত হয়েছে।

প্রাথমিক ও গণশিক্ষামন্ত্রী মোস্তাফিজুর রহমান ফিজার রোববার সচিবালয়ে সংবাদ সম্মেলনে বৃত্তিপ্রাপ্তদের তালিকা প্রকাশ করেন।

২০১৩ সালের প্রাথমিক শিক্ষা সমাপনী পরীক্ষার ফলাফলের ওপর ভিত্তি করে বৃত্তিপ্রাপ্তদের এই তালিকা করা হয়েছে। ২৫ লাখ ১৯ হাজার ৩২ জন অংশ নিয়ে এ পরীক্ষায় ২৪ লাখ ৮৩ হাজার ১৪২ জন উত্তীর্ণ হয়।

সেই হিসাবে উত্তীর্ণ শিক্ষার্থীর ২ দশমিক ২ শতাংশ বৃত্তি পাচ্ছে।

আগে পঞ্চম শ্রেণির শিক্ষার্থীদের আলাদা পরীক্ষা নিয়ে বৃত্তি দেয়া হলেও ২০০৯ সাল থেকে প্রাথমিক সমাপনী পরীক্ষায় অংশ নেয়া শিক্ষার্থীদের মধ্য থেকেই বৃত্তি দেয়া হচ্ছে।

মেধাবৃত্তিপ্রাপ্ত প্রত্যেক শিক্ষার্থী প্রতি মাসে ২০০ টাকা এবং সাধারণ বৃত্তিপ্রাপ্তরা মাসে ১৫০ টাকা করে পাবে। এছাড়া বৃত্তিপ্রাপ্ত সবাই বছরে এককালীন ১৫০ টাকা করে পাবে।

প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের ওয়েবসাইট www.dpe.gov.bd থেকে বৃত্তির ফল জানা যাবে।
গত বছর প্রাথমিক সমাপনীতে ৫৪ হাজার ৫৩০ জন শিক্ষার্থী বৃত্তি পায়। এর মধ্যে ২১ হাজার ৯৮০ জন মেধাবৃত্তি (ট্যালেন্টপুল) এবং ৩১ হাজার ৪৬৮ জনকে সাধারণ বৃত্তি দেয়া হয়।

এছাড়া গত বছর এক হাজার ৮২ জনকে সম্পূরক বৃত্তি (নির্দিষ্ট ওয়ার্ডে কোটা পূরণ না হলে অন্য ওয়ার্ড থেকে বৃত্তি) দেয়া হয়েছিল।

সংবাদ সম্মেলনে মন্ত্রী যশোরে বনভোজনের বাস দুর্ঘটনায় সাত শিক্ষার্থীর প্রাণহানিতে শোক প্রকাশ করেন।

তিনি জানান, সোমবার দেশের সব প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ক্লাস শুরু হওয়ার আগে জাতীয় সঙ্গীত গাওয়ার পরে শোক প্রকাশ করে বিশেষ দোয়া করা হবে।

আহতদের চিকিৎসার বিষয়ে যথাযথ ব্যবস্থা নেয়া হবেও জানান মোস্তাফিজুর।

প্রাথমিক ও গণশিক্ষা সচিব কাজী আখতার হোসেন, মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব এস এম আশরাফুল ইসলাম সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন।