বুধবার, ১লা ডিসেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ ১৬ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

বিজয়নগরে দু’দলের সংঘর্ষে আহত-৪০

imgresপূর্ব বিরোধের জের ধরে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার বিজয়নগরে দু’দল গ্রামবাসীর সংঘর্ষে উভয়পক্ষের ৪০জন আহত হয়েছে। সংঘর্ষ চলাকালে প্রতিপক্ষের ১০টি বাড়ি ভাংচুর ও লুটতরাজ করে দাঙ্গাবাজরা। ঘটনাটি ঘটেছে গতকাল শনিবার  সকালে উপজেলার ইছাপুরা ইউনিয়নের খাদুরাইল গ্রামে। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌছে ব্যাপক লাঠিপেটা ও ২৫ রাউন্ড শর্টগানের গুলি ছুড়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনে। পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে ১০জন দাঙ্গাবাজকে গ্রেপ্তার করে।
এলাকাবাসী ও পুলিশ জানান, খাদুরাইল গ্রামের সাবেক মেম্বার কাচামালা ও একই এলাকার ভুট্টো মিয়ার মধ্যে দীর্ঘ দিন ধরে বিরোধ চলে আসছিল। পুরানো বিরোধের জের ধরে গতকাল শনিবার সকাল ৯টার দিকে দেশীয় অস্ত্র-শস্ত্র নিয়ে সংঘর্ষে লিপ্ত হয়। সংঘর্ষের এক পর্যায়ে উপজেলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও ইছাপুরা ইউপি চেয়ারম্যান মোঃ আক্তার হোসেনের লোকেরা সাবেক মেম্বার কাচামালার গ্রুপের পক্ষে এবং উপজেলা বিএনপির সভাপতি মোঃ হারুন মুন্সীর লোকেরা ভুট্টো মিয়ার দলের পক্ষে সংঘর্ষে যোগ দিলে সংঘর্ষ ভয়াবহ আকার ধারন করে। ৩ ঘন্টাব্যাপী সংঘর্ষে উভয়পক্ষের ৪০জন আহত হয়। সংঘর্ষ চলাকালে প্রতিপক্ষের ১০টি বাড়ি ভাংচুর ও লুটতরাজ করে দাঙ্গাবাজরা।
খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌছে ব্যাপক লাঠিপেটা এবং ২৫ রাউন্ড শর্টগানের গুলি ছুড়ে দুপুর ১২টার দিকে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনে। পুলিশ সংঘর্ষস্থল থেকে মহিলাসহ ১০জনকে গ্রেপ্তার করে।
আহতদের মধ্যে রিপন মিয়া-(২৫), রশিদ মিয়া-(৩০), হারিজ মিয়া-(২৮), ফারুক মিয়া-(১১), তোফাজ্জল মিয়া- (১২), তানভির মিয়া-(১৫), আহমদ মিয়া-(৪০), সজিব মিয়া-(৪৫), আক্তার মোল্ল¬া-(৩৫), সোহেল মিয়া-(১৮), ফুল মিয়া-(৫০) কে জেলা সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। বাকীরা বিভিন্ন প্রাইভেট ক্লিনিকে চিকিৎসা নেয়।
এ ব্যাপারে বিজয়নগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা রসুল আহমদ নিজামী বলেন, পরিস্থিতি বর্তমানে নিয়ন্ত্রনে আছে। তিনি বলেন, পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রন করতে ২৫ রাউন্ড শর্টগানের গুলি ছোড়া হয়েছে এবং ১০জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।