বৃহস্পতিবার, ২রা ডিসেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ ১৭ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

নতুন বছরের প্রথম ‘ইত্যাদি’ মুড়াপাড়া জমিদার বাড়িতে

Ittadiটেলিভিশন অনুষ্ঠানকে স্টুডিওর চার দেয়ালের বাইরে নিয়ে এসে গত কয়েক বছর ধরে দেশের প্রত্যন্ত অঞ্চলে অবস্থিত আমাদের সভ্যতা, সংস্কৃতি, ইতিহাস, ঐতিহ্য ও প্রতœতাত্ত্বিক নিদর্শন সমৃদ্ধ এবং পর্যটকদের জন্য আকর্ষণীয় নান্দনিক সৌন্দর্যম-িত স্থানগুলোতে গিয়ে ইত্যাদি’র মূল অনুষ্ঠান ধারণ করা হচ্ছে। আর এরই ধারাবাহিকতায় এবারের পর্ব ধারণ করা হয়েছে রূপগঞ্জ উপজেলার মুড়াপাড়া জমিদার বাড়িতে। মুর্শিদাবাদের হাজার দুয়ারী প্রাসাদের অনুকরণে নির্মিত মুড়াপাড়া জমিদার বাড়িটি বর্তমানে মুড়াপাড়া বিশ্ববিদ্যালয় কলেজ হিসেবে পরিচিত। আমাদের ইতিহাস, ঐতিহ্য, সভ্যতা, সংস্কৃতি তুলে ধরার পাশাপাশি শেকড় সন্ধানী ইত্যাদি’তে সব সময়ই দেশের প্রত্যন্ত অঞ্চল থেকে প্রচারবিমুখ, জনকল্যাণে নিয়োজিত মানুষদের খুঁজে এনে তাদের বিভিন্ন কর্মকা- তুলে ধরা হয়, যাতে তাদের এসব কাজ দেখে অন্যরাও অনুপ্রাণিত হতে পারেন। এবারের পর্বেও রয়েছে বাগেরহাট জেলার মোরেলগঞ্জ থানার বীরেন্দ্রনাথের মাতৃভক্তির ওপর একটি মানবিক প্রতিবেদন। দৃষ্টি প্রতিবন্ধীরা একা একা কোথাও যেতে পারে না বলে তাদের বিনোদনের পথও সীমাবদ্ধ। ব্রেইল পদ্ধতিতে বিনোদনমূলক বই তাদের সেই অভাব অনেকাংশে পূরণ করতে পারে। আর এর ওপরই এবারের ইত্যাদি’তে রয়েছে একটি অনুসন্ধানী প্রতিবেদন। এছাড়াও মোফাজ্জেল হোসেন পলাশের এক অপ্রচলিত শখের দুর্লভ সংগ্রহের ওপর রয়েছে আর একটি অনুসন্ধানী প্রতিবেদন। এছাড়াও গত ২৯শে নভেম্বর প্রচারিত ইত্যাদিতে দেখানো প্রতিবন্ধী মোহাম্মদ মহিউদ্দিনের ওপর রয়েছে একটি ফলোআপ প্রতিবেদন। এবারের ইত্যাদিতে মূল গান রয়েছে একটি। উল্লেখ্য, ইত্যাদিতে সব সময় ভিন্ন আঙ্গিকে বিষয়ভিত্তিক গান প্রচার করার চেষ্টা করা হয়। সেই ধারাবাহিকতায় এবারের ইত্যাদি’তে একটি দেশাত্মবোধক গান গেয়েছেন জনপ্রিয় কণ্ঠশিল্পী এ্যান্ড্রু কিশোর। গানটি লিখেছেন মোহাম্মদ রফিকউজ্জামান এবং সুর করেছেন আলী আকবর রূপু। গানটি দর্শকদের সামনে এবং ঢাকা ও ঢাকার আশপাশে বিভিন্ন স্থানে চিত্রায়ণ করা হয়। যেহেতু ইত্যাদির বিভিন্ন অনুষ্ঠান বিভিন্ন স্থানে ধারণ করা হয়, তাই দর্শক পর্বের নিয়ম অনুযায়ী সেই স্থানকে ঘিরে দর্শকদের বিভিন্ন প্রশ্ন করা হয় এবং সঠিক উত্তরদাতাদের দিয়ে করা হয় দ্বিতীয় পর্ব। নিয়মিত পর্ব হিসেবে এবারও রয়েছে যথারীতি মামা-ভাগ্নে, নানী-নাতি ও চিঠিপত্র বিভাগ। রয়েছে বিভিন্ন সমসাময়িক ঘটনা নিয়ে বেশ কিছু সরস অথচ তীক্ষè নাট্যাংশ। সঙ্গে থাকার আহ্বান ও বাস্তবতা, কর্মফল, নতুন বছরের প্রতিক্রিয়া, মিছিলের ভিন্ন ধরন, নববর্ষে দম্পতির শান্তি আলোচনা ও প্রতিক্রিয়া, জ্যোতিষের গণনায় বর্তমানসহ বিভিন্ন বিষয়ের ওপর রয়েছে বেশ কয়েকটি নাট্যাংশ। বরাবরের মতো এবারও ইত্যাদি’র শিল্প নির্দেশনা ও মঞ্চ পরিকল্পনায় ছিলেন ইত্যাদি’র নিয়মিত শিল্প নির্দেশক মুকিমুল আনোয়ার মুকিম। এবারের ইত্যাদিতে উল্লেখযোগ্য শিল্পীরা হলেন নাজমূল হুদা বাচ্চু, আতাউর রহমান, আবদুল আজিজ, মহিউদ্দিন বাহার, মাসুম আজিজ, কিসলু, সুভাশিষ ভৌমিক, আবদুল কাদের, আফজাল শরীফ, কাজী আসাদ, জিল্লুর রহমান, কামাল বায়েজিদ, সোলায়মান খোকা, মামুনুল হক টুটু, রতন খান, নিসা, রবিন, অশোক বড়ুয়াসহ আরও অনেকে। পরিচালকের সহকারী হিসেবে ছিলেন যথারীতি রানা ও মামুন। সব শ্রেণী পেশার মানুষের প্রিয় অনুষ্ঠান ইত্যাদি’র আগামী পর্ব একযোগে বিটিভি ও বিটিভি ওয়ার্ল্ডে প্রচার হবে ৩১শে জানুয়ারি রাত ৮টার বাংলা সংবাদের পর এবং পুনঃপ্রচার করা হবে ২রা ফেব্র“য়ারি রাত ১০টার ইংরেজি সংবাদের পর। ‘ইত্যাদি’ রচনা, পরিচালনা ও উপস্থাপনা করেছেন হানিফ সংকেত। নির্মাণ করেছে ফাগুন অডিও ভিশন। স্পন্সর করেছে যথারীতি কেয়া কসমেটিকস লিমিটেড। মানবজমিন