বৃহস্পতিবার, ২রা ডিসেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ ১৭ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

৭ আসনে ভোটগ্রহণ শুরু

election-4দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে স্থগিত ৮টি আসনের মধ্যে ৭টি আসনের বিভিন্ন কেন্দ্রে ভোটগ্রহণ শুরু হয়েছে। সকাল ৮টা থেকে টানা বিকেল ৪টা অবধি ৬ জেলার ৭ আসনের স্থগিত কেন্দ্রগুলোর ভোটগ্রহণ চলবে। এ উপলক্ষে কেন্দ্রগুলো ঘিরে নেওয়া হয়েছে ব্যাপক নিরাপত্তা ব্যবস্থা। তবে, ১৬ জানুয়ারি বৃহস্পতিবার কুড়িগ্রাম-৪ আসনের ভোটগ্রহণ করা হচ্ছে না। গত ৫ জানুয়ারি বিএনপি ছাড়াও ১৮ দলের ভোট প্রতিহতের ঘোষণায় সহিংসতা, ব্যালট বাক্স ছিনতাই ও ভোটকেন্দ্রে অগ্নিসংযোগের কারণে দিনাজপুর-৪, কুড়িগ্রাম-৪, বগুড়া-৭, গাইবান্ধা ১, ৩, ৪, যশোর-৫ ও লক্ষ্মীপুর-১ আসনের মোট ৯৫৯টি কেন্দ্রের মধ্যে ৩৯২টি কেন্দ্রে ভোটগ্রহণ স্থগিত করে ইসি।

১৬ জানুয়ারি কুড়িগ্রাম-৪ আসন ছাড়া বাকি ৭টি আসনে সব মিলিয়ে ৩৯০টি ভোটকেন্দ্রে ১০ লাখ ২৫ হাজার ২৭২ জন ভোটারের ভোট অনুষ্ঠিত হবে। ভোটের প্রস্তুতি প্রসঙ্গে বুধবার নির্বাচন কমিশনার মো. শাহনেওয়াজ সাংবাদিকদের বলেন, ভোট গ্রহণের সব প্রস্তুতি চূড়ান্ত হয়েছে। সেনা, বিজিবি, র‌্যাব ও পুলিশের সদস্যরা একযোগে প্রতিটি উপজেলায় ৫ থেকে ১০টি কেন্দ্রকে ঘিরে টহলে থাকবে। এছাড়া সেনাবাহিনী জেলা থেকে উপজেলায় টহল দেবে।

৭ আসনের ভোটের তথ্য

দিনাজপুর-৪ আসনের ১২০টি কেন্দ্রের মধ্যে স্থগিত হয় ৫৭টি। স্থগিত কেন্দ্রে ভোটার সংখ্যা ১ লাখ ৩৪ হাজার ৯১৯।

এদিকে গাইবান্ধায় ভোট হবে তিনটি আসনে। গাইবান্ধা-১ আসনের ১০৯টি কেন্দ্রের মধ্যে স্থগিত আছে ৫৪ কেন্দ্রের ভোট। এসব কেন্দ্রে ভোটার আছে ১ লাখ ৫৮ হাজার ২০৯ জন।

গাইবান্ধা-৩ আসনে স্থগিত ৮০টি কেন্দ্রে ভোট আছে ২ লাখ ২৬ হাজার ৬২৭টি।

গাইবান্ধা-৪ আসনের ১৩০টি কেন্দ্রের মধ্যে স্থগিত আছে ৭২টি। এতে ভোটার আছে ২ লাখ ৭৭ জন।

বগুড়া-৭ আসনে ১৬১টি কেন্দ্রের মধ্যে ৪৬টি কেন্দ্রে পুনরায় ভোট গ্রহণ করা হচ্ছে। এতে ১ লাখ ১৫ হাজার ৮৬৫ ভোট আছে।

যশোর-৫ আসনের ১২২টি কেন্দ্রের মধ্যে ৬০টি কেন্দ্রে পুনরায় ভোট হচ্ছে।

লক্ষ্মীপুর-১ আসনের ৮১টি আসনের মধ্যে পুনরায় ভোটের ২১টি কেন্দ্রে ৫০ হাজার ২৭৯ ভোট আছে।

এদিকে আদালতের স্থগিতাদেশে কুড়িগ্রাম-৪ আসনে ভোটগ্রহণ আরেক দফায় স্থগিত রাখা হয়েছে।

আওয়ামী লীগ প্রার্থী এ আসনের আরও কিছু কেন্দ্রে পুনরায় ভোটগ্রহণ দাবি করার কারণে আদালত এ স্থগিতাদেশ দেন। এ আসনের ২টি কেন্দ্রের ভোটগ্রহণ স্থগিতাদেশে আদালতের নির্দেশনা ইসিতে এসেছে। পরে নির্দেশনা পেলে ওই কেন্দ্রে ভোট হবে বলে ইসি সূত্র জানিয়েছে।

কুড়িগ্রাম-৪ আসনের ১০৬ কেন্দ্রের মধ্যে স্থগিত ২ট কেন্দ্রে ভোট আছে ৭ হাজার ২৫৭টি।

এ আসনে জেপির রুহুল আমিন ৩০ হাজার ৫৪৪ ভোট ও আওয়ামী লীগের জাকির হোসেন ২৩ হাজার ৯৪৬ ভোট পেয়েছেন। নিকটতম এ দুই প্রতিদ্বন্দ্বীর মধ্যে ৬ হাজার ৫৯৮ ভোটের পার্থক্য ঘোচাতে ২টি কেন্দ্রে ভোটগ্রহণ প্রয়োজন।

এদিকে নির্ধারিত কেন্দ্রের ভোটগ্রহণ নির্বিঘ্ন করতে এসব এলাকায় নেওয়া হয়েছে কড়া নিরাপত্তা ব্যবস্থা।

প্রতিটি ভোটকেন্দ্রে ১০ অস্ত্রধারী পুলিশ

৫ জানুয়ারি নির্বাচনে প্রতিটি ভোটকেন্দ্রে এক থেকে তিনজন অস্ত্রধারী পুলিশ মোতায়েন করা হয়। কিন্তু ১৬ জানুয়ারির নির্বাচনে ১০ জন অস্ত্রধারী পুলিশ মোতায়েন করা হবে। এছাড়া লাঠিহাতে ১০ জন আনসারও ভোটকেন্দ্রে দায়িত্ব পালন করবেন।

সহিংসতায় জড়িতদের বিরুদ্ধে আইন

৫ জানুয়ারি অনুষ্ঠিত নির্বাচনের সঙ্গে জড়িত অপরাধী, দলমত নির্বিশেষে চিহ্নিত অপরাধী, চাঁদাবাজ, মাস্তান, অস্ত্রবাজ ও সন্ত্রাসীদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে। তবে কারও বিরুদ্ধে যেন হয়রানিমূলক বা বৈষম্যমূলক ব্যবস্থা গ্রহণ না করা হয় সেই বিষয়টিও নিশ্চিত করা হয়েছে।

এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট নিয়োগ

স্থগিত ৮টি আসনে পুনরায় ভোট গ্রহণের জন্য ৩০ জন এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট নিয়োগ দেওয়া হয়েছে। এ ছাড়া ৮টি নির্বাচনী এলাকায় ৮ জন করে জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট থাকবেন।

তা ছাড়া ৮টি নির্বাচনী এলাকার ৩৯২টি ভোটকেন্দ্রের পুনরায় ভোটগ্রহণ উপলক্ষ্যে পুলিশ, এপিবিএন, ব্যাটালিয়ন, আনসার, ৠাব ও বিজিবির সমন্বয়ে মোবাইল টিম ও স্ট্রাইকিং ফোর্স গঠন করা হয়েছে। পুলিশ, এপিবিএন ও ব্যাটালিয়ন আনসার নিয়ে গঠিত একটি মোবাইল ফোর্স তিনটি ভোটকেন্দ্রে নিয়োজিত থাকবে।

সামরিক বাহিনীর সমন্বয়ে গঠিত স্ট্রাইকিং ফোর্স ১০টি ভোটকেন্দ্রে দায়িত্ব পালন করবে। প্রতি পাঁচটি ভোটকেন্দ্রের জন্য একটি ৠাবের টিম এবং প্রতিটি ১০টি ভোটকেন্দ্রের জন্য একটি বিজিবি টিম দায়িত্ব পালন করবে।

উপজেলায় সেনা ক্যাম্প

৭টি সংসদীয় আসনের ৩৯০টি ভোটকেন্দ্রের পুনরায় ভোট গ্রহণ অবাধ, সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণ করতে আইনশৃক্সখলা বাহিনীর সঙ্গে সেনাবাহিনী স্ট্রাইকিং ফোর্স হিসেবে থাকবে। সেনাবাহিনী নির্বাচনী এলাকার উপজেলায় অবস্থান করবে এবং জেলা সদরে একটি নিয়ন্ত্রণ কক্ষ স্থাপন করে রিটার্নিং অফিসারের সঙ্গে সমন্বয় করে দায়িত্ব পালন করবে।

নির্বাচনী এলাকার যে সব ভোটকেন্দ্রে পুনরায় ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে সেসব এলাকায় সেনাবাহিনীর টহল বাড়িয়ে দৃশ্যমান করার বিষয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

এ জাতীয় আরও খবর

যাত্রী বেশি হলে বিমানবন্দরে ল্যাব বাড়ানো হবে : স্বাস্থ্যমন্ত্রী

করোনায় আরও ৩ মৃত্যু, শনাক্ত ২৬১

ডাক ও টেলিযোগাযোগমন্ত্রীর কাছে ক্ষমা চাইল সেই ব্যাংক

মালয়েশিয়া এয়ারলাইন্সে বোমা আতঙ্ক, যেভাবে চলে অভিযান

মেয়র জাহাঙ্গীরের বিরুদ্ধে এবার নওগাঁর আদালতে মামলা

আমিনবাজারে ৬ ছাত্র হত্যা : ১৩ জনের মৃত্যুদণ্ড ও ১৯ জনের যাবজ্জীবন

ওমিক্রন আতঙ্কে ভারত : ঝুঁকিপূর্ণ দেশের তালিকায় আবারও বাংলাদেশ

সারাদেশের আবহাওয়া শুষ্ক থাকবে, লঘুচাপটি শক্তিশালী হচ্ছে

নিয়ম ভেঙে তুলে নেওয়া হয় ৩৬৮৭ কোটি টাকা

এইচএসসিতে বসেছে প্রায় ১৪ লাখ শিক্ষার্থী

৬ ছাত্রকে পিটিয়ে হত্যা : ১৩ জনের মৃত্যুদণ্ড

কথা দিয়ে কথা রাখুন : কাদের